ইউরো কাপ শুরুর আগেই করোনা ভাইরাসের থাবায় জেরবার স্পেন দলের একের পর এক ফুটবলার। যার জেরে প্রতিযোগিতা শুরুর আগে চিন্তায় পডড়ে গিয়েছে স্পেন দলের কোচ লুই এনরিকে। দিন কয়েক আগেই পর্তুগালের বিরুদ্ধে অনুশীলন ম্যাচের পরে করোনা পরীক্ষা করা হয় ফুটবলারদের। সকলের রিপোর্ট নেগেটিভ এলেও রিপোর্ট পজেটিভ আসে দলে অধিনায়ক সের্জিও বুস্কেটসের। তারপরই গোটা দলে ছড়িয়ে পড়ে আতঙ্ক। আইসোলেসনে চলে যায় পুরো স্পেন দল।  

নিয়ম মেনে ২ দিন পর ফের কোভিড টেস্ট করা হয় স্পেন দলের। আর এবার দলের উদ্বেগ আরও বাড়িয়ে রিপোর্ট পজেটিভ আসে দিয়েগো লরেন্তের।  ফলে মেগা টুর্নামেন্ট শুরুর আগে চাপে রয়েছে স্পেন। সুইডেনের বিরুদ্ধে ইউরো কাপের প্রথম ম্যাচ খেলতে নামবে স্পেন। তার আগে শিবিরে লাগাতার করোনার হানা চিন্তা বাড়িয়েছে টিম ম্যানেজমেন্টের। দলে করোনার থাবার কারণে  লিথুয়ানিয়ার বিরুদ্ধে প্রস্তুতি ম্যাচে অনূর্ধ্ব -২১ দলকে নামায় স্পেন। যদিও ৪-০ গোলে লিথুয়ানিয়ার বিরুদ্ধে জয় পায় স্প্যানিশ আর্মাডারা।

দলে করোনার থাবায় উদ্বিগ্ন স্পেনের প্রশাসনও। জানা যাচ্ছে, দেশের সেনার সহযোগিতায় প্রতিটি ফুটবলারকে টিকা দেবে স্পেন। স্পেনের স্বাস্থ্য বিভাগ ঠিক করে, ইউরো শুরুর আগেই প্রথম একাদশের সব ফুটবলারদের ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। তবে স্প্যানিশ ফুটবলারদের কোন ভ্যাকসিন দেওয়া হবে তা এখনো জানা যায়নি। ভ্যাকসিনের কটি ডোজ দেওয়া হবে সেই ব্যাপারেও কিছু জানা যায়নি। তবে ইউরো কাপ শুরুর আগে স্পেন দলের রীতিমত মাথা ব্যাথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে মারণ ভাইরাস।