ফের ব্রাজিলে ফিরল ২০১৬ সালের শাপেকোয়েন্সের বিমান দুর্ঘটনার ভয়াবহ স্মৃতি। সেই দুর্ঘটনায় শেষ হয়ে গিয়েছিল পুরো ক্লাব। আর সাড়ে চার বছর পর সেই ভয়ঙ্কর স্মৃতি ফেরালো পালমাস। প্লেন দুর্ঘটনায় মৃত্যু হল ব্রাজিলের চার ফুটবলার সহ মোট ৬ জনের। এই মর্মান্তিক ঘটানর সাক্ষী থাকল ব্রাজিলের চতুর্থ ডিভিশনের ফুটবল ক্লাব পালমাস। প্লেন দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে ক্লাবের ৪ ফুটবলার,প্রেসিডেন্ট। দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে প্লেনের পাইলটেরও। এই ভয়াবহ দুর্ঘটনার পর শোকের আবহ নেমে এসেছে ব্রাজিলের ফুটবল মহলে।

জানা গিয়েছে, ব্রাজিলের চতুর্থ ডিভিশনের ক্লাব পালমাস থেকে  ৮০০ কিমি দূরের গোইয়ানিয়ার উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছিলেন ফুটবলাররা। সেখানেই ভিলা নোভার বিপক্ষে আগামী মঙ্গলবার ব্রাজিলের ঘরোয়া কাপ টুর্নামেন্ট কোপা ভের্দের শেষ ষোলোতে খেলার কথা ছিল পালমাসের। ছোট একটি বিমান ছিলেন ক্লাবের প্রেসিডেন্ট লুকাস মেরা এবং পাইলট ওয়াগনার ছাড়াও ছিলেন চার ফুটবলার লুকাস প্রাক্সেদেস, গিলের্মে নোয়ে, রানুলে এবং মার্কাস মোলিনারি। কিন্তু বিমান ওড়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই তা স্থানীয় একটি জঙ্গলে ভেঙে পড়েছ। ঘচনায় মৃত্যু হয় ৪ ফুটবলার সহ জনের।

ঘটনায় ক্লাবের তরফ থেকে বিবৃতি প্রকাশ করা হয়েছে। বিবৃতিতে দুঃখ প্রকাশ করে জানানো হয়েছে,'তোকানতিনেসে এভিয়েশন অ্যাসোসিয়েশনের রানওয়ে থেকে বিমানটি টেকঅফ করেছিল। কিন্তু একেবারে শেষ প্রান্তে গিয়ে সেটি দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। খবর পেয়ে তড়িঘড়ি ঘটনাস্থলে যায় প্রশাসবনের আধাকারিকরা। যদিও কাওকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি।'  ঘটনায় ব্রাজিলের ফুটবল মহলের পাশাপাশি শোক প্রকাশ করেছে ফুটবল বিশ্ব।