২০ অক্টোবর থেকে শুরু হচ্ছে আইএসএলের পঞ্চম মরসুম। ভারতীয় ফুটবলের মেগা ইভেন্টের আগে উন্মাদনা রয়েছে দল ও তাদের সমর্থদের মধ্যে। প্রথম ম্যাচেই মুখোমুখি দুবারের চ্যাম্পিয়ন এটিকে ও কেরালা ব্লাস্টার্স। খেলা কেরালার ঘরের মাঠে। এটিকে নিয়ে এবার কতটা উন্মাদনা আছে সেটা অবশ্য টের পাওয়া যাবে টুর্নামেন্ট শুরু হলেই। কারণ ভারতীয় ফুটবলের মক্কায় যে আইএসএল-আইলিগ বিতর্ক এখনও টাটকা। এবার এটিকে কোচের পদে ফিরিয়ে এনেছে স্প্যানিশ কোচ অ্যান্তোনিও লোপেজ হাভাসকে। তাঁর হাত ধরেই যে প্রথম আইএসএল চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল এটিকে।

 


গত বছর আইএসএল শুরু হওয়ার আগে থেকেই ফেভারিট ধরা হয়েছিল বেঙ্গালুরু এফসি ও এফসি গোয়াকে। তবে এবছর ফেভারিটদের তালিকায় ঢুকে পরেছেন কলকাতার ফুটবল ফ্রাঞ্চাইজি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের এটিকে। কোচ হাবাসের পাশাপাশি এবছর এটিকে দলে যোগ দিয়েছেন ইস্টবেঙ্গল থেকে আসা স্ট্রাইকার জবি জাস্টিন। একই সঙ্গে এটিকেতে এবছর চুক্তিবদ্ধ ফুটবলার মাইকেল সোসাইরাজ ও গোলরক্ষক ধীরজ সিং। এবছর নিজেদের ঘরের মাঠ যুবভারতী কাপাঁতে দেখা যেতে পারে এটিকের তারকা ফুটবলারদের। ২০১৪ সালে, প্রথম আইএসএল খেতাব জিতেছিল এটিকে। সেই দল আর বর্তমান দলের মধ্যে অনেক পার্থক্য।

 

 

তবে এবছর ফের কোচ হিসাবে এটিকে ফুটবলরারদের ভরসা যোগাছেন কোচ হাভাস। একই সঙ্গে কলকাতা দলের এবছরের বড় চমক হল ফিজিয়ান ফুটবলার রয় কৃষ্ণ। তবে বিদেশীদের পাশাপাশি এবছর কোচ হাভাসকে ভরসা দিচ্ছেন দেশীয় ফুটবলাররাও। পাশাপাশি কলকাতার এই ফুটবল দলের অ্যাডভান্টেজ হল একাধিক বাঙালি ফুটবলার। বাঙালিদের মধ্যে এবছর এটিকে দলে রয়েছেন প্রণয় হালদার, অঙ্কিত মুখোপাধ্যায়, প্রবীর দাস, প্রীতম কোটাল, গোলরক্ষক অরিন্দম ভট্টাচার্য। একই সঙ্গে কলকাতা মাঠে খেলে আসা দেশীয় ফুটবলারদের মধ্যে রয়েছেন লাল-হলুদ জার্সিতে ঝড় তোলা জবি জাস্টিন, মাইকেল সোসাইরাজ, জয়েশ রানে, বলবন্ত সিং ও বিশ্বকাপ খেলা গোলরক্ষক ধীরজ সিং। তাই খাতায় কলমে বড় দল নিয়েই মিলিয়ন ডলার ফুটবল লিগে নামতে চলেছে এটিকে। এখন দেখার মাঠে তারা নিজেদের ফের একবার প্রমাণ করতে পারে কি না।