খোঁড়াতে খোঁড়াতে হলেও পুনরায় সিঁরি আ জয় করেছে জুভেন্তাস। তাদের টানা নবম সিঁরি জয়ের পথটি এবারে ভরা ছিল হাজার রকমের বিপদ ও সমস্যায়। সেই বিপদ এবং সমস্যা যে জুভে কাটিয়ে উঠতে পেরেছে তা নয়। বরং জুভে ধন্যবাদ জানাতে পারে ইন্টার মিলান, লাৎজিও, আটালান্টা-র মতো ক্লাবগুলিকে যারা দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করেও বার বার মোক্ষম সময় ভুল করে জুভের কাজ সহজ করে দিয়েছে। জুভেন্তাস-কে এই মরশুমে বরং দেখিয়েছে অনেক নড়বড়ে। রোনাল্ডো, দিবালা কিংবা ডি-লিটের মতো কয়েকজন হাতে গোনা খেলোয়াড়-কে বাদ দিলে প্রত্যেকে ভুগছে ধারাবাহিকতার অভাবে। 

এর আগে অনেকবার জুভেন্তাস লিগে অন্য দল ভালো খেলা-সত্ত্বেও ভাগ্যের জোরে ম্যাচ জিতে বেরিয়ে গিয়েছে। কিন্তু কাল ক্যাগলিয়ারীর বিরুদ্ধে সেই চিত্রনাট্যতে বদল ঘটলো। প্রথমার্ধে রোজকার মতো বিরক্তিকর ফুটবল খেলছিল জুভে। সেই জঘন্য ফুটবলের ফায়দা তুলে প্রথমার্ধতেই ২ গোলে এগিয়ে যায় ক্যাগলিয়ারী। চলতি লিগে এই ম্যাচে নামার আগে যারা লিগ তালিকায় ১৪ নম্বরে ছিল। তারপর বাকি ম্যাচে ১১ জনকেই নিজেদের অর্ধে রেখে জুভের কাজটা আরও কঠিন করে তুলেছিল উদীনেসে। এরপর গোটা ম্যাচের ছবি ছিল একইরকম। পরিকল্পনা হীন ফুটবল খেলে গোলের চেষ্টা জুভের এবং ক্যাগলিয়ারীর মরিয়া লড়াই। জুভের ডিফেন্স, মাঝমাঠ এবং আক্রমণের কঙ্কালসার চেহারা টা আরও একবার সবার সামনে আসে। শেষ ৭ ম্যাচে ১৪ গোল হজম করেছে জুভে। বদলে গোল করেছে মাত্র ১২ টি। যার মধ্যে অর্ধেকই ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর। 

আরও পড়ুনঃনো বলের ক্ষেত্রে সম্পূর্ণ নতুন নিয়ম আইসিসির, শুরু আজ থেকে

৩৫ বছরের রোনাল্ডো মাঝমাঠে এসে বল সামলে প্রতি ম্যাচে গোল করে যাবেন এমনটা কেউ ভাবেন না। টানা খেলার কারণ বা অন্য যে জন্যই হোক গতকাল তিনি ছিলেন পুরোপুরি নিষ্প্রভ। পরিবর্ত হিসাবে নামা লুকা জানিমাচিয়া ছাড়া জুভেন্তাসের সকলকেই দ্বিতীয় ডিভিশনে খেলার যোগ্যও মনে হয়নি। হিগুয়েন নিজের সোনালী সময় ফেলে এসেছেন। বেরনারদেশচী গোটা ম্যাচে দৌড়ে বেড়ালেও একবারও নিজের কাজটা ঠিকঠাক ভাবে করতে পারেননি। বল-কন্ট্রোল নামক ব্যাপারটির সাথে মাতুইদির সম্পর্ক নেই বহুদিন। জুভের দুই উইংব্যাক খুয়ান কুয়াদ্রাদো এবং আলেক্স সান্দ্রো আজ পর্যন্ত কটি বিপজ্জনক ক্রস স্ট্রাইকার দের জন্য তুলতে পেরেছেন তা হাতে গুনে বলা যাবে। সবমিলিয়ে এই জুভেন্তাস এখন টপ ডিভিশনের ফুটবলের যোগ্য বলে দাবি করবেন না কেউ। 

আরও পড়ুনঃনির্বাসনে পাঠানোর কারণ আজও অজানা মহম্মদ আজহারউদ্দিনের কাছে

আরও পড়ুনঃক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ খেলা হচ্ছে না ৫ প্রোটিয়া ক্রিকেটারের

কালকের ম্যাচে চোটের জন্য জুভেন্তাস পায়নি পাওলো দিবালা এবং মাথিস ডি লিট-কে। গত ম্যাচে দুজনেই চোট পেয়েছেন। কিন্তু তারা থাকলেও বিশাল কিছু ভালো খেলতে পারছেনা জুভেন্তাস। পরের মাসের প্রথম সপ্তাহের শেষেই নামতে হবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে। সেখানে ফ্রেঞ্চ ক্লাব লিওনের সাথে শেষ ষোলোর দ্বিতীয় পর্বের খেলায় অন্তত ২ গোলের ব্যবধানে জিততেই হবে জুভেকে। নয়তো পরবর্তী পর্বে যেতে পারবেনা জুভে। কিন্তু আপাতত যে ফর্মে রয়েছে জুভেন্তাস তাতে শেষ ষোলো থেকেই বিদায় কার্যত নিশ্চিত হয়ে রয়েছে রোনাল্ডোদের।