টানা বারো ম্যাচে জয়। সঞ্জয় সেনের আমলে আইলিগে যে রেকর্ড করেছিল মোহনবাগান, সেই রেকর্ড ছুঁয়ে ফেলল কিবু-ব্রিগেডও। রবিবার অ্যাওয়ে ম্যাচে ট্রাউ এফসিকে ৩-১ গোলে উড়িয়ে দিলেন বেইতিয়া, ফ্রান গঞ্জালেসরা। গোল করলেন ফ্রান গঞ্জালেজ, বেইতিয়া এবং বাবা দিওয়ারা। মোহনবাগানের খেতাব জয় এখন স্রেফ সময়ের অপেক্ষা।

সহজ বা কঠিন ম্যাচ বলে কিছু নেই। ফারাক নেই হোম কিংবা অ্যাওয়ে ম্যাচেও। মাঠে নামলেই এখন জিতছে মোহনবাগান।  ব্যাতিক্রম ঘটল না রবিবারও, ট্রাউ এফসির বিরুদ্ধে ম্যাচে। ম্যাচের বয়স তখন বাইশ মিনিট। তিন গোলে লিড নিল মোহনবাগান। পেনাল্টি থেকে প্রথম গোল করলেন ফ্রান গঞ্জালেজ।  ২১ মিনিটে দ্বিতীয় গোল। এবার সুহেরের সঙ্গে ওয়ান-টু খেলে বল জালে জড়িয়ে দিলেন বেইতিয়া। এমন গোল আইলিগে বড় একটা দেখা যায় না। ট্রাই এফসির কফিনে শেষ পেরেকটি পোঁতেন বাবা দিওয়ারা। তাঁকে বল বাড়িয়েছিলেন বেইতিয়া। চিতাবাঘের ক্ষিপ্রতায় লক্ষ্যভেদ করতে ভুল করেননি সেনেগালের ফুটবলারটি।  

 

 

 

তিন গোলে পিছিয়ে থাকার অবস্থায় অবশ্য একটি গোল শোধও করে ট্রাউ এফসি। গোল করে যান জোয়েল সানডে।  বেশ কয়েকটি সুযোগ তৈরি এলেও কাজে লাগাতে পারেনি ট্রাউ-এর ফুটবলাররা। ম্যাচের শেষলগ্নে প্রতিপক্ষকে বিপজ্জনক ফাউল করে লাল কার্ড দেখেন মোহনবাগানের তুরসুনভ। এই জয়ের ফলে ২৪ ম্যাচের পর মোহবাগানের পয়েন্ট ৩৫। ১৪ ম্যাচে ২২ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে পাঞ্জাব এফসি। ১৩ ম্যাচে ২০ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় চার্চিল।  বাকি ম্যাচগুলি থেকে ৬ থেকে ৯ পেয়ে ফের ভারতসেরা হবে মোহনবাগান।