চলতি মাসের ১ তারিখ থেকে শুরু হয়েছে ভারতীয় ফুটবলের নতুন মরসুম। আর তারপর থেকেই ততপড়তা বেড়েছে দলবদলের বাজারে। মোহনবাগানে গত মপসুমে খেলা দুই ফুটবলারকে তুলে নিয়েছে লাল-হলুদ। আইএসএল ক্লাব থেকেও ফুটবলার নিয়েছে কলকাতার ক্লাবটি। এসেছেন নতুন সহকারি কোচও। এক নজরে দেখে নেওয়া যাক এখনও পর্যন্ত নতুন মরসুমে ইস্টবেঙ্গলের দল কী রকম হল।  

পিন্টু মাহাতো

গত বছর মোহনবাগানে ছিলেন এই উইঙ্গার। এই বছর লাল-হলুদে সই করেছেন আগামী ৩ বছরের জন্য।

অভিষেক আম্বেদকর

এই উইংব্যাকও গত মরসুমে খেলেছেন মোহনবাগানে। ইস্টবেঙ্গলে সই করলেন ২ বছরের জন্য।

বৈইথাং হাওকিপ

দুই বছর বেঙ্গালুরু এফসিতে কাটানোর পর এইবছর আগামী তিন মরসুমের জন্য ইস্টবেঙ্গল দলে যোগ দিয়েছেন ফ্রিকিক স্পেশালিস্ট হাওকিপ। তাঁর যোগদানে কিন্তু লাল-হলুদেপর মাঝমাঠের শক্তি অনেকটাই বাড়ল।

লালথুয়ামাওইয়া রালতে

গত মরসুমে খেলেছেন এফসি গোয়ায়। এই মিজো গোলরক্ষককে আগামী ১ বছরের জন্য লোনে সই করাল ইস্টবেঙ্গল।

কাশিম আইদারা

গত মরসুমে মিনার্ভআ পঞ্জাব থেকে লাল-হলুদে এসেছিলেন 'ব্য়াটম্যান'। মাঝমাঠের এই বিদেশী ফুটবলার এইবার আরও একবছরের জন্য চুক্তির মেয়াদ বাড়িয়েছেন।

হাইমে সান্তোস কোলাদো

গত মরসুমে আইলিগের মাঝামাঝি খেলতে এসেই লাল-হলুদের জনতার নয়নের মণি হয়ে উঠেছিলেন হাইমে। তরুণ স্প্যানিশ ফুটবলারকে আরও দুই বছরের জন্য চুক্তিবদ্ধ করেছেন লাল-হলুদ কর্তারা।

জোসেফ ফেরে

ইনি ফুটবলার নন কোচ। লাল হলুদে এই বছর আগামী ২ মরসুমের জন্য আলোহান্দ্রো মেনেন্দেজের সহকারী হিসেবে এসেছেন। কোচিং-এ উয়েফার 'এ' লাইসেন্সের পাশাপাশি তাঁর স্পোর্টস সায়েন্সেও ডিগ্রি রয়েছে। পাশাপাশি তিনি ভিডিও বিশ্লেষণেও দক্ষ।