ক্ষোভ উগড়ে দিলেন অল ইন্ডিয়া ফুটবল ফেডারেশনের প্রেসিডেন্ট প্রফুল্ল প্যাটেল। নিশানায়  আই লিগে খেলা দলগুলির সুপার কাপ থেকে শেষ মুহূর্তে বেরিয়ে যাওয়া।

আগামী মরশুমের রোডম্যাপ কী হবে জানতে চেয়ে ফেব্রুয়ারি মাসে আইলিগ খেলা ক্লাবগুলি চিঠি দেয় ফেডারেশনকে। সেই চিঠির কোনও প্রত্যুত্তর আসেনি। ইতিমধ্যে চলে আসে সুপার কাপের কোয়ালিফাইং রাউন্ড। নিজেদের দাবিতে অনড় থেকে নিজেদের সরিয়ে নেয় মিনার্ভা, গোকুলাম, আইজলের মতো দলগুলি। এই সিদ্ধান্তকে সমর্থন করেছে ইস্টবেঙ্গল মোহনবাগানের মতো ক্লাব। আবার প্রথমে সমর্থন করলেও পরে তা তুলে নিয়ে সুপার কাপে অংশগ্রহণ করে চেন্নাই। ফেডারেশনের তরফে বাকি দলগুলির সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তাঁরা সুপার কাপ রি-শিডিউল করতে অনুরোধ করেন। তাতেও রাজি হয়নি ফেডারেশন।  ক্লাবগুলির এই ব্যবহারেই রুষ্ট হয়েছে প্রফুল্ল প্যাটেল। 

প্রসঙ্গত সম্প্রতি প্রথম ভারতীয় প্রশাসক  হিসেবে ফিফা কাউ্সিলের সদস্য হিসেবে মনোনীত হয়েছেন প্রভাত প্যাটেল। কুয়ালালামপুরে আয়োজিত সভায় ২৯তম এশিয়ান ফুটবল ফেডারেশনের সভায় মোট ৮ জন প্রার্থী ছিলেন। আসন ছিল পাাঁচটা। মোট ৪৬টি  ভোটের মধ্যে ৩৮টি ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন প্রফুল্ল প্যাটেল। বিদায়ী ভাষণে তিনি বলেন "আগামী বিশ্বকাপ এশিযায়। কাতার বিশ্বকাপকে সফল করার জন্য সর্বতোভাবে সাহায্য করব।" একই সঙ্গে তিনি মহিলাদের ফুটবলে উন্নতির জোয়ার আনার প্রতিশ্রুতি দেন। 

এক সর্বভারতীয় সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে প্রফুল্ল প্যাটেল বলেন, "আমি দলগুলির সঙ্গে কথা বলার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম। কিন্তু তাঁরা যে আচরণ করছে তা অপ্রত্যাশিত।  খেলোয়াড়সুলভ মানসিকতার পরিচায়ক নয় এই ব্যবহার। তাঁরা সুপার কাপ থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্তে অনড় রইলেন। ফলে এখন আর মিটিংয়ের কোনও মানেই থাকে না।"