২০ অক্টোবর থেকে শুরু হচ্ছে ভারতীয় ফুটবলের মেগা ইভেন্ট ইন্ডিয়ান সুপার লিগ। আর আইএসএলে এবছর প্রধান চমক হল গত বারের চ্যাম্পিয়ন বেঙ্গালুরু এফসি। ভারতীয় দলের অধিনায়ক সুনীল ছেত্রী ও কোচ কার্লস কুয়াড্রাতের হাত ধরে গত বছর আইএসএল খেতাব পেয়েছিল বেঙ্গালুরু দল। প্রথম বছর আইলিগ থেকে এসে ২০১৭-১৮ মরশুমে রানার আপের পাশাপাশি গত বছরের চ্যাম্পিয়ন দল বেঙ্গালুরু। এবছরও আইএসএলের অন্যতম ফেভারিট কুয়াড্রেতের ছেলেরা। অক্টোবরের ২১ তারিখ নর্থইস্ট ইউনাইটেডের বিরুদ্ধে এবছরের আইএসএল মরশুম শুরু করতে চলেছে বেঙ্গালুরু।

 

 

শেষ দুবছর ধরে ধারাবাহিক ভাবেই পারফর্ম করতে দেখা যাচ্ছে এই দলকে। আর সেই অনুযায়ী এবার ষষ্ট আইএসএলেও নিজেদের প্রভাব বজায় রাখতে তৈরি সুনীল ছেত্রীরা। এবারও এফসি গোয়া, নর্থ ইস্ট ও এটিকের মতন দলকে টক্কা দিতে মরিয়া হয়ে উঠেছে কুয়াড্রাতের দল। কোচ, অধিনায়কের পাশাপাশি এবছরে বেঙ্গালুরুর বাড়তি পাওনা হল ভারতীয় দলের ফুটবলার আশিক কুরুনিয়ান। একই সঙ্গে বিদেশিদের মধ্যে স্পেনের তারকা ডিমাস ডেলগাডো ও অ্যালবার্ট সেরানের সঙ্গে চুক্তিতে বৃদ্ধি আরও কিছুটা খাতায় কলমে এগিয়ে রাখছে দলকে। সেই সঙ্গে দলের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ ফুটবলার জুয়ানান গোঞ্জালেজ ও এরিক পারতালুদেরও নীল সাদা জার্সি গায়ে নামতে দেখা যাবে এবছরের আইএসএলে।

 

 

বেঙ্গালুরুর বিদেশি সহ দেশীয় ব্রিগেড কিন্তু খাতায় কলমে এবছর অনেকটাই এগিয়ে। একই সঙ্গে দলের ফুটবলার থেকে শুরু করে দলের কম্বিনেশন সব কিছুই আগের মতন থাকায় ভালো বোঝা পড়ার মধ্যে দিয়েই খেলতে দেখা যাবে বেঙ্গালুরুকে এমনটাও স্পষ্ট। গত বারের মতন প্লেঅফের পাশাপাশি চ্যাম্পিয়ন হওয়াই লক্ষ্য থাকবে সুনীলদের। দলের আক্রমণাত্মক ফুটবল দিয়েই বাজিমাৎ করতে প্রস্তুত বেঙ্গালুরু। তবে লিগ শুরু হলে ছন্দের আভাস মিলবে এই দলের।