করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ৩ মে পর্যন্ত লকডাউন বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে চলতি মরসুমে আইলিগের বাকি ম্যাচ বাতিল করা হবে, তা এক প্রকার নিশ্চিত। পয়েন্টের বিচারে ২০১৯-২০ মরসুমের আইলিগ চ্যাম্পিয়ন মোহনবাগাান স্থির হয়ে গেলেও বাকি রয়েছে লিগের ২৮টি ম্যাচ। চ্যাম্পিয়নশিপ না হোক লিগের দ্বিতীয়, তৃতীয় স্থান নির্বাচন ও অবনমনের আওতায় কোন দল পড়বে তা নির্বাচনের জন্য বাকি ম্যাচগুলি খবুই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। কিন্তু দেশ জুড়ে যেভাবে করোনার প্রকোপ বাড়ছে তাতে লিগের ভবিষ্যৎ যে অন্ধকার তা বলার অপেক্ষা রাখে না। 
আরও পড়ুনঃকরোনাার কোপ, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর প্রথম বাতি হল ট্যুর ডি ফ্রান্স প্রতিযোগিতা

এআইএফএফ সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবারই বৈঠকের পর আইলিগের বাকি ম্যাচগুলি বাতিলের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করা হবে। এক এআইএফএফ কর্তা জানিয়েছেন,"সম্ভবত আই-লিগের অবশিষ্ট ম্যাচগুলি বাতিল হতে চলেছে। এখন পর্যন্ত কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি এবং আগামী দিনের বৈঠকের পরই এই ঘোষণা করা হবে" চার ম্যাচ বাকি থাকতেই শিরোপা জয়ের কারণে মোহনবাগানকে আইলিগ চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হবে। যদিও সবজু-মেরুণের আইলিগ জয় রুখতে এএফসি পর্যন্ত দরবার করে বসে আছে ইস্টবেঙ্গল। যদিও এএফসি থেকে সেই চিঠির খুব একটা গুরুত্ব দেওয়া হয়নি। কারণ, এএফসি থেকেই আই লিগ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য মোহনবাগানকে অভিনন্দন জানিয়ে চিঠি চলে এসেছে ফেডারেশন দপ্তরে। এবার হঠাৎ করে আই লিগ বাতিল করে মোহনবাগানকে চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করে দিলে, আবার ইস্টবেঙ্গল কী ভাবে বাধা দিতে চাইবে কেউ জানে না। চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানানোর আগে তাই সব দিক থেকে আটঘাট বেধে এগোতে চাইছেন ফেডারেশন কর্তারা।
আরও পড়ুনঃভারতের কোনও সাহায্যের দরকার নেই পাকিস্তানের, জানিয়ে দিলেন পিসিবি চেয়ারম্যান
আরও পড়ুনঃলাহোরে তুষারপাত সম্ভব, কিন্তু ইন্দো-পাক সিরিজ নয়, জানালেন গাভাস্কার
চ্যাম্পিয়ন নিয়ে কোনও সংশয় না থাকলেও দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান নির্বাচন ঝামেলায় পড়তে পারেন ফেডারেশন কর্তারা। কারণ তিন জন দাবিদার রয়ছে দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানের জন্য। ১৬ ম্য়াচে ২৩ পয়েন্ট  ইষ্টবেঙ্গল ও মিনার্ভার ও ১৫ ম্যাচে ২২ পয়েন্ট রিয়াল কাশ্মীরের। একইসঙ্গে অবনমনের বিষয়টিও রয়েছে। ফলে অনকে ভাবনা চিন্তা করেই এগোতে চাইছেন ফেডারেশন কর্তারা। সিদ্ধান্ত কী হয় তা সময় আসলেই জানা যাবে। কিন্তু করোনার জেরে আই লিগের বাকি ম্যাচ যে বাতিল হতে চলেছে তা একপ্রকার  নিশ্চিত করে বলেছেন ফেডারেশনের এক কর্তা।