: শোয়েব আখতার এর তিন ম্যাচের সিরিজের প্রস্তাব উড়িয়ে দিয়েছিলেন কপিল দেব। এবার তারই সুরে সুর মেলালেন আর এক ভারতীয় ক্রিকেটের কিংবদন্তি সুনীল গাভাস্কার। কপিল জানিয়েছিলেন এই পরিস্থিতির মোকাবিলার প্রয়োজনীয় অর্থ ভারতের আছে। এর মধ্যেই বিসিসিআই করোনা মোকাবিলায় নিজেদের সাধ্যমতো সাহায্য করেছে সরকারকে। বিসিসিআইয়ের তরফ থেকে ৫১ কোটি টাকা প্রধানমন্ত্রী ত্রাণ তহবিলে দান করা হয়েছে। প্রয়োজন হলে আরও টাকাও দেওয়া হবে। এর মধ্যে ক্রিকেটারদের নামিয়ে তাঁদের ঝুঁকির মুখে ঠেলে দেওয়ার কোনও প্রয়োজন নেই বলে প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক জানিয়েছিলেন। নিজের সতীর্থের সাথে সম্পূর্ণ সহমত পোষণ করলেন গাভাস্কার। 
আরও পড়ুনঃটেস্টে স্মিথকে কোহলির থেকে এগিয়ে রাখলেন জাহির আব্বাস

ভারত এবং পাকিস্তান দুই দেশেই প্রচুর মানুষ করোনা ভাইরাসের দ্বারা সংক্রমিত হয়েছেন। দুই দেশেই প্রচুর মানুষ মারা যাচ্ছেন। এই সময় এমন অভিনব একটি প্রস্তাব দিয়েছিলেন শোয়েব আখতার। যদিও ২০১২ সালের পর থেকে নিজেদের মধ্যে আর কোন দ্বিপাক্ষিক সিরিজে অংশ নেয়নি দুই দেশ। দুই দেশের রাজনৈতিক সম্পর্কের বারংবার অবনতিই এর কারণ। শুধুমাত্র এশিয়া কাপ, বিশ্বকাপ, চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির মতো প্রতিযোগিতা গুলিতেই মুখোমুখি হয় দুই দল। এই অবস্থায় শোয়েব আখতার ৩ টি একদিনের ম্যাচের সিরিজ আয়োজনের প্রস্তাব প্রাক্তন পাক পেসারের। সিরিজ থেকে সংগৃহীত অর্থ দুই দেশ ভাগ করে নেবে বলে প্রস্তাব দিয়েছিলেন তিনি। 
আরও পড়ুনঃলকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধির পরই বড় সিদ্ধান্ত, অনির্দিষ্ট কালের জন্য স্থগিত হয়ে গেল আইপিএল
আরও পড়ুনঃপোষ্য়র সঙ্গে বিরাট-অনুষ্কার ঘনিষ্ঠ ছবি ভাইরাল সোশ্য়াল মিডিয়ায়

কিন্তু সেই ধারণা মানতে নারাজ সুনীল গাভাস্কার। সম্প্রতি প্রাক্তন পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান রমিজ রাজার ইউটিউব চ্যানেলে এই নিয়ে মুখ খোলেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক। তিনি বলেন এই মুহুর্তে কোনভাবেই ভারত-পাক সিরিজ সম্ভব নয়। তিনি এও বলেন যে এখন লাহোরে তুষারপাতের যতটা সম্ভাবনা আছে, তার চেয়েও কম সম্ভাবনা ভারত পাকিস্তান দ্বিপাক্ষিক সিরিজ হওয়ার। ভারত পাকিস্তান দুই দেশ বড় বড় প্রতিযোগিতাগুলিতে যেমন মুখোমুখি হয় তেমন মুখোমুখি হতে পারে, ব্যস, তাই বাইরে কোনরকম সিরিজের সম্ভাবনা নেই, সাফ জানিয়েছেন গাভাস্কার।