কোন রাশির অদ্ভুত আচরণ বিপদে ফেলতে পারে আপনাকেও, জেনে নিন

First Published 10, Jun 2020, 1:44 PM

জ্যোতিষশাস্ত্রের মতে, জাতক বা জাতিকার রাশি তাঁর ব্যক্তিত্ব সম্পর্কে জানতে সাহায্য করে। একইভাবে কোনও ব্যক্তির আচরণ এবং তাঁর চরিত্রের বৈশিষ্ট্য নির্ভর করে সেই ব্যক্তির জন্ম সময়, কাল বা জন্ম মাসের উপর। একজন মানুষ সম্পর্কে অনেক কিছুই বলে দেওয়া সম্ভব তার রাশির বিষয়ে জ্ঞান থাকলে। মানুষের পরিচয় প্রকাশ পায় তার স্বভাবেই। তাই জ্যোতিষশাস্ত্র মতে, কোন রাশির স্বভাব কেমন তাও যেমন অনুমান করা সম্ভব। পাশাপাশি কোন রাশির কোন স্বভাবের ফলে আপনি বিপদে পড়তে পারেন জেনে নিয়ে সতর্ক হোন।

<p>মেষ ও বৃষ রাশি- অত্যন্ত স্বাধীনচেতা প্রকৃতির। সমস্যা থেকে গা বাঁচিয়ে চলতে এরা পছন্দ করেন। তবে সম্পর্কের বিষয়ে এরা নিজেদের জোড় খাটাতেই বেশি পছন্দ করে। মাঝে মাঝে আবার অবসাদেও ভোগেন। এদের এই স্বাধীনচেতা প্রকৃতি মাঝে মাঝে বুমেরাং হয়ে যায়।</p>

মেষ ও বৃষ রাশি- অত্যন্ত স্বাধীনচেতা প্রকৃতির। সমস্যা থেকে গা বাঁচিয়ে চলতে এরা পছন্দ করেন। তবে সম্পর্কের বিষয়ে এরা নিজেদের জোড় খাটাতেই বেশি পছন্দ করে। মাঝে মাঝে আবার অবসাদেও ভোগেন। এদের এই স্বাধীনচেতা প্রকৃতি মাঝে মাঝে বুমেরাং হয়ে যায়।

<p>মিথুন কর্কট রাশি- মিথুন রাশি কখন কী করবেন আর কখন কী করবেন না তা তারা নিজেরাও ঠিক বলতে পারবেন না। এদের মত প্রতি সময়ে বদলে যায়। পাশাপাশি কর্কট রাশি অপরের কাজের উপর ভীষণ ভাবে নির্ভরশীল। অপরের দ্বারা উদ্ভুদ্ধ হয়ে এরা সিদ্ধান্ত নেন যা সমস্যা সৃষ্টি করতে পার।</p>

মিথুন কর্কট রাশি- মিথুন রাশি কখন কী করবেন আর কখন কী করবেন না তা তারা নিজেরাও ঠিক বলতে পারবেন না। এদের মত প্রতি সময়ে বদলে যায়। পাশাপাশি কর্কট রাশি অপরের কাজের উপর ভীষণ ভাবে নির্ভরশীল। অপরের দ্বারা উদ্ভুদ্ধ হয়ে এরা সিদ্ধান্ত নেন যা সমস্যা সৃষ্টি করতে পার।

<p>সিংহ ও কন্যা রাশি- এই দুই রাশি প্রবল অলস। কোনও কঠোর পরিশ্রম এদের দ্বারা সম্ভব নয়। আর এই অলসতার কারণেই কর্মজীবনে এদের প্রবল সমস্যায় পড়তে হয়। পাশাপাশি কন্যা রাশি সমালোচনা করতে খুব ভালোবাসেন। যার ফলে এদের মাঝে মধ্যেই সমস্যায় পড়তে হয়।</p>

সিংহ ও কন্যা রাশি- এই দুই রাশি প্রবল অলস। কোনও কঠোর পরিশ্রম এদের দ্বারা সম্ভব নয়। আর এই অলসতার কারণেই কর্মজীবনে এদের প্রবল সমস্যায় পড়তে হয়। পাশাপাশি কন্যা রাশি সমালোচনা করতে খুব ভালোবাসেন। যার ফলে এদের মাঝে মধ্যেই সমস্যায় পড়তে হয়।

<p>তুলা ও বৃশ্চিক রাশি- এই দুই রাশির ক্ষেত্রে একটি বিষয় একেবারে এক। এরা যে কোনও সিদ্ধান্ত নিয়ে নেন সহজেই কিন্তু কোন সময়ে তা কাজে লাগাবেন এই বিষয় স্থির করে উঠতে কালঘাম ছুটে যায়। ফলে অনেক সময় সঠিক সিন্ধান্ত নেওয়ার পরেও তা কাজে দেয়না সঠিক সময়ে তা কাজে লাগানো হয় নি বলে। পাশাপাশি বৃশ্চিক রাশির জাতক জাতিকারা অত্যন্ত আগ্রাসী। ফলে সঙ্গে থাকা মানুষগুলোকে প্রায়ই সমস্যায় পড়তে হয়।</p>

তুলা ও বৃশ্চিক রাশি- এই দুই রাশির ক্ষেত্রে একটি বিষয় একেবারে এক। এরা যে কোনও সিদ্ধান্ত নিয়ে নেন সহজেই কিন্তু কোন সময়ে তা কাজে লাগাবেন এই বিষয় স্থির করে উঠতে কালঘাম ছুটে যায়। ফলে অনেক সময় সঠিক সিন্ধান্ত নেওয়ার পরেও তা কাজে দেয়না সঠিক সময়ে তা কাজে লাগানো হয় নি বলে। পাশাপাশি বৃশ্চিক রাশির জাতক জাতিকারা অত্যন্ত আগ্রাসী। ফলে সঙ্গে থাকা মানুষগুলোকে প্রায়ই সমস্যায় পড়তে হয়।

<p>ধনু ও মকর রাশি- ধনু ও মকর রাশির জাতক জাতিকারা অত্যন্ত জেদি। এদের জেদ এতটাই বেশি যে নিজেদের ক্ষতি হবে জেনেও জেদ বশত সেই কাজ করেন। তার পরে মাথা ঠান্ডা হয়ে গেলেই অনুশোচনা করতে থাকেন। এই স্বভাব প্রায়ই কাছে থাকা মানুষগুলোকে বিপদের মুখে ঠেলে দেয়। পাশাপাশি মকর রাশির বিরক্তির জেরে জন্মায় নানান সমস্যা তো রয়েছেই।</p>

ধনু ও মকর রাশি- ধনু ও মকর রাশির জাতক জাতিকারা অত্যন্ত জেদি। এদের জেদ এতটাই বেশি যে নিজেদের ক্ষতি হবে জেনেও জেদ বশত সেই কাজ করেন। তার পরে মাথা ঠান্ডা হয়ে গেলেই অনুশোচনা করতে থাকেন। এই স্বভাব প্রায়ই কাছে থাকা মানুষগুলোকে বিপদের মুখে ঠেলে দেয়। পাশাপাশি মকর রাশির বিরক্তির জেরে জন্মায় নানান সমস্যা তো রয়েছেই।

<p>কুম্ভ ও মীন রাশি- এই দুই রাশির জাতক জাতিকারা কারণে অকারণে রেগে যান। তারা নিজেরাও মাঝে মাঝে ভুলে যান ঠিক কোন কারণে তাদের এই রাগ। তবে এদের বহিঃপ্রকাশ এতটাই কম যে, সেটা অপরের কাছে বিরক্তির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। এরা কিছুতেই নিজেদের সমস্যার কথা মুখ ফুটে বলতে পারেনা ফলে সঙ্গে থাকা মানুষগুলোকে বিপদে পড়তে হয়।</p>

কুম্ভ ও মীন রাশি- এই দুই রাশির জাতক জাতিকারা কারণে অকারণে রেগে যান। তারা নিজেরাও মাঝে মাঝে ভুলে যান ঠিক কোন কারণে তাদের এই রাগ। তবে এদের বহিঃপ্রকাশ এতটাই কম যে, সেটা অপরের কাছে বিরক্তির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। এরা কিছুতেই নিজেদের সমস্যার কথা মুখ ফুটে বলতে পারেনা ফলে সঙ্গে থাকা মানুষগুলোকে বিপদে পড়তে হয়।

loader