প্রতি শনিবারে ঠাকুর ঘরে এই নিয়ম আপনার জীবনে আনতে পারে সুখ ও সমৃদ্ধির ছোঁয়া

First Published 20, Jun 2020, 12:37 PM

প্রতিটি মানুষের চাহিদা যেন তার সংসার ভরা থাকে সুখ ও সমৃদ্ধিতে। শাস্ত্র মতে, মানব জীবনে কর্মফল অনুযায়ী ব্যক্তি তাঁর জীবন ভোগ করেন। তবে অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় আর্থিক কোনও সমস্যা না থাকা সত্ত্বেও অনেকেই অযাচিত কিছু সমস্যায় বার বার জড়িয়ে পরেন। যার ফলে দুর্বিসহ হয়ে ওঠে জীবন যাপন। তাই সেই সকল ছোটখাটো সমস্যা কাটিয়ে সংসার সুখ ও সমৃদ্ধিতে ভরে তুলতে প্রতি শনিবারে ঠাকুর ঘরের মেনে চলা উচিত কিছু নিয়ম। 

<p>শনিবারে সকালে ও সন্ধ্যায় ঠাকুর ঘরে ধূপ ও ধূনো জ্বালতে হবে। </p>

শনিবারে সকালে ও সন্ধ্যায় ঠাকুর ঘরে ধূপ ও ধূনো জ্বালতে হবে। 

<p>পুজোর শেষে ঘন্টা বাজান। কারন ঘন্টার শব্দে ঘরের নেগেটিভ শক্তি দূর হয়ে যায়। </p>

পুজোর শেষে ঘন্টা বাজান। কারন ঘন্টার শব্দে ঘরের নেগেটিভ শক্তি দূর হয়ে যায়। 

<p>শনিবারে আগের দিনের ফুল দিয়ে কখনই ঠাকুরকে দেওয়া উচিৎ নয়। </p>

শনিবারে আগের দিনের ফুল দিয়ে কখনই ঠাকুরকে দেওয়া উচিৎ নয়। 

<p>পুজো দেওয়ার সময় সব সময় টাটকা ফুল ও ফলের ব্যবহার করুন। </p>

পুজো দেওয়ার সময় সব সময় টাটকা ফুল ও ফলের ব্যবহার করুন। 

<p>শনিবারে পুজোর সময় শুকনো তুলসী পাতা কখনোই ব্যবহার করা উচিৎ নয়। </p>

শনিবারে পুজোর সময় শুকনো তুলসী পাতা কখনোই ব্যবহার করা উচিৎ নয়। 

<p>শাস্ত্র মতে, গঙ্গাজল পবিত্র বলে সেগুলি অনেক দিন যাবৎ অবধি পুজোর ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যেতে পারে।  </p>

শাস্ত্র মতে, গঙ্গাজল পবিত্র বলে সেগুলি অনেক দিন যাবৎ অবধি পুজোর ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যেতে পারে।  

<p>শনিবারে সন্ধ্যার পুজো হওয়ার পর পরিস্কার কাপড়ে ঠাকুরের স্থান আবৃত করে রাখুন।</p>

শনিবারে সন্ধ্যার পুজো হওয়ার পর পরিস্কার কাপড়ে ঠাকুরের স্থান আবৃত করে রাখুন।

loader