আরাধ্যাকে সব সময় আগলে রাখেন ঐশ্বর্য, কারণ খোলসা করলেন নিজেই

First Published 12, Jun 2020, 7:00 PM

স্টারকিড মানেই ছোট থেকে লাইম লাইট থাকে তাঁদের ওপর। একের পর এক তারকার সন্তানেরা প্রত্যহ খবরের শিরোনামে জায়গা করে নিচ্ছে। আর সেই স্টারকিড যদি হয় অমিতাভ বচ্চনের নাতনি তাহলে তো বলাই বাহুল্য। সর্বত্রই আরাধ্যাকে দেখলে এগিয়ে আসে শয়ে শয়ে ক্যামেরা। 

<p>বাড়ির বাইরে হোক বা কোনও পারিবারিক অনুষ্ঠানে ক্যামেরায় পোজ দিতে হলেই আরাধ্যা ছুটে চলে যায় মায়ের কাছে। </p>

বাড়ির বাইরে হোক বা কোনও পারিবারিক অনুষ্ঠানে ক্যামেরায় পোজ দিতে হলেই আরাধ্যা ছুটে চলে যায় মায়ের কাছে। 

<p>কিংবা চোখে পড়ে ঐশ্বর্যেই এক হাতে আরাধ্যাকে ধরে রেখেছেন নিজের কাছে। কিন্তু নিজের মেয়েকে প্রতিমুহূর্তে তিনি কেন আগলে রাখেন!</p>

কিংবা চোখে পড়ে ঐশ্বর্যেই এক হাতে আরাধ্যাকে ধরে রেখেছেন নিজের কাছে। কিন্তু নিজের মেয়েকে প্রতিমুহূর্তে তিনি কেন আগলে রাখেন!

<p>প্রশ্ন করায় সাফ উত্তর দিয়েছিলেন ঐশ্বর্য। জানিয়েছিলেন. স্টারকিড মানেই ছোট থেকে লাইম লাইটে। আরাধ্যার ক্ষেত্রে তার ব্যতিক্রম হয়নি। </p>

প্রশ্ন করায় সাফ উত্তর দিয়েছিলেন ঐশ্বর্য। জানিয়েছিলেন. স্টারকিড মানেই ছোট থেকে লাইম লাইটে। আরাধ্যার ক্ষেত্রে তার ব্যতিক্রম হয়নি। 

<p>সময়ের সঙ্গে সঙ্গে ক্যামেরাতে পোজ দেওয়া ওর অভ্যাস হয়ে গিয়েছে। কিন্তু প্রথম থেকে এই বিষয়টা ছিল না। আরাধ্যাকে দেখলেই ক্যামেরা নিয়ে সকলে এগিয়ে আসত। </p>

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে ক্যামেরাতে পোজ দেওয়া ওর অভ্যাস হয়ে গিয়েছে। কিন্তু প্রথম থেকে এই বিষয়টা ছিল না। আরাধ্যাকে দেখলেই ক্যামেরা নিয়ে সকলে এগিয়ে আসত। 

<p>এই পরিবেশে মানিয়ে নিতে আরাধ্যার সময় লাগে। আর একজন সেলিব্রিটির থেকেও আগে আমি একজন মা- জানান বচ্চন বধু। ফলে তাঁর দ্বায়িত্ব আরাধ্যাকে আগলে রাখা। </p>

এই পরিবেশে মানিয়ে নিতে আরাধ্যার সময় লাগে। আর একজন সেলিব্রিটির থেকেও আগে আমি একজন মা- জানান বচ্চন বধু। ফলে তাঁর দ্বায়িত্ব আরাধ্যাকে আগলে রাখা। 

<p>সেই জায়গা থেকেই আরাধ্যাকে তিনি পাশে রাখেন। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আরাধ্যার অভ্যাস হয়ে যায় এই পরিস্থিতি। ভয় কেটে যায় অনেকটাই। </p>

সেই জায়গা থেকেই আরাধ্যাকে তিনি পাশে রাখেন। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আরাধ্যার অভ্যাস হয়ে যায় এই পরিস্থিতি। ভয় কেটে যায় অনেকটাই। 

<p>এখন আরাধ্যা অনেক বেশি ক্যামেরা দেখে স্বাচ্ছন্দ বোধ করে। একবার ঐশ্বর্যের সঙ্গে আরাধ্যা আসছিল গল্প করতে করতে। </p>

এখন আরাধ্যা অনেক বেশি ক্যামেরা দেখে স্বাচ্ছন্দ বোধ করে। একবার ঐশ্বর্যের সঙ্গে আরাধ্যা আসছিল গল্প করতে করতে। 

<p>হঠাৎ ক্যামেরা দেখে ভয় পেয়ে যায় আরাধ্যা। হাত শক্ত করে পেছনে দাঁড়িয়ে পড়ে। কিন্তু ঐশ্বর্য ভয় কাটাতে  তারমধ্যেই টানতে টানতে নিয়ে আসেন, তিনি মনে করেন এই সময়টা ঐশ্বর্যে প্রয়োজন আরাধ্যার। তাই আগলে রাখেন। </p>

হঠাৎ ক্যামেরা দেখে ভয় পেয়ে যায় আরাধ্যা। হাত শক্ত করে পেছনে দাঁড়িয়ে পড়ে। কিন্তু ঐশ্বর্য ভয় কাটাতে  তারমধ্যেই টানতে টানতে নিয়ে আসেন, তিনি মনে করেন এই সময়টা ঐশ্বর্যে প্রয়োজন আরাধ্যার। তাই আগলে রাখেন। 

loader