রাজ কাপুর ও দিলীপ কুমারের আদি বাড়ির দাম স্থির করল পাক-সরকার, কোন ভিলার দাম উঠল কত

First Published Dec 11, 2020, 9:04 AM IST

রাজ কাপুর ও দিলীপ কুমারের আদি বাড়ি, যার পরতে-পরতে ছড়িয়ে রয়েছে এই দুই পরিবারের ঐতিহ্য, ইতিহাস। আজ তা ভেঙে পড়ার পরিস্থিতি, ঋষি কাপুর চেয়েছিলেন সেখানে একবার গিয়ে থাকতে, শেষ ইচ্ছে পূরণের আগেই চলে যেতে হয় তাঁকে। কিন্তু বলিউডের এই দুই স্তম্ভকে এভাবে নষ্ট হতে দেওয়া যায় না, তাই এবার তা কিনে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল পাক-সরকার। 

<p style="text-align: justify;">দিলীপ কুমারের জন্মদিনের ঠিক আগেই এমনই ঘোষনা করা হল পেশওয়ার সরকারের পক্ষ থেকে। কিনে নেওয়া হবে এই ভিলা।&nbsp;</p>

দিলীপ কুমারের জন্মদিনের ঠিক আগেই এমনই ঘোষনা করা হল পেশওয়ার সরকারের পক্ষ থেকে। কিনে নেওয়া হবে এই ভিলা। 

<p>ঋষি কাপুর নিজে বহুবার গিয়েছেন সেই বাড়ি দেখতে, তবে চেয়েছিলেন মৃত্যুর আগে শেষবার দেখার। কিন্তু সেই স্বপ্ন পূরণ হয়নি।&nbsp;</p>

ঋষি কাপুর নিজে বহুবার গিয়েছেন সেই বাড়ি দেখতে, তবে চেয়েছিলেন মৃত্যুর আগে শেষবার দেখার। কিন্তু সেই স্বপ্ন পূরণ হয়নি। 

<p>তবে এই বাড়ি সারিয়ে তুলতে ঠিক যত টাকা লাগবে, তা খরচ করার সামর্থ এখন কোথায়। দেখভালের অভাবে নষ্ট হচ্ছে পৈতৃক বাড়ি।&nbsp;</p>

তবে এই বাড়ি সারিয়ে তুলতে ঠিক যত টাকা লাগবে, তা খরচ করার সামর্থ এখন কোথায়। দেখভালের অভাবে নষ্ট হচ্ছে পৈতৃক বাড়ি। 

<p>তাই এবার সেই বাড়িকে কিনে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাক সরকার। শহরের বুকে বিশাল দুই বাড়ি ভগ্ন অবস্থায় ধুঁকছে।</p>

তাই এবার সেই বাড়িকে কিনে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাক সরকার। শহরের বুকে বিশাল দুই বাড়ি ভগ্ন অবস্থায় ধুঁকছে।

<p>বিপজ্জনক বাড়ি হিসেবে এখনও শহরজুড়ে দাঁড়িয়ে আছে এই দুই ভিলা। একটি চার মহলা একটি ছয় মহলা।&nbsp;</p>

বিপজ্জনক বাড়ি হিসেবে এখনও শহরজুড়ে দাঁড়িয়ে আছে এই দুই ভিলা। একটি চার মহলা একটি ছয় মহলা। 

<p style="text-align: justify;">দিলীপ কুমারের বাড়ির দাম উঠেছে ৮০ লক্ষ ৫৬,০০০ টাকা। রাজ কাপুরের বাড়ির দাম উঠল দেড় কোটি।&nbsp;</p>

দিলীপ কুমারের বাড়ির দাম উঠেছে ৮০ লক্ষ ৫৬,০০০ টাকা। রাজ কাপুরের বাড়ির দাম উঠল দেড় কোটি। 

<p style="text-align: justify;">আর্কিওলজিক্যাল ডিপার্টমেন্ট থেকে অনুরোধ করা হয়েছে যাতে এই দাম দুকোটি রাখা হয়। কারণ এর সঙ্গে কোটি কোটি ভারতীয়ের আবেগ জড়িয়ে।&nbsp;</p>

আর্কিওলজিক্যাল ডিপার্টমেন্ট থেকে অনুরোধ করা হয়েছে যাতে এই দাম দুকোটি রাখা হয়। কারণ এর সঙ্গে কোটি কোটি ভারতীয়ের আবেগ জড়িয়ে। 

<p style="text-align: justify;">দুটি বাড়ির মধ্যে একটি নির্মাণ হয়েছিল ১৯১৮ ও ১৯২২ সালে। কিন্তু দীর্ঘ দিন তা দেখা শোনার অভাবে আজ ভগ্নস্তুপে পরিণত হওয়ার পথে।&nbsp;</p>

দুটি বাড়ির মধ্যে একটি নির্মাণ হয়েছিল ১৯১৮ ও ১৯২২ সালে। কিন্তু দীর্ঘ দিন তা দেখা শোনার অভাবে আজ ভগ্নস্তুপে পরিণত হওয়ার পথে। 

Today's Poll

একসঙ্গে কতজন প্লেয়ারের সঙ্গে খেলতে পছন্দ করেন