অনস্ক্রিনে হৃতিকের থেকে বড় লাগে ঐশ্বর্যকে, এমন মন্তব্যে বিতর্ক তৈরি করেন রাকেশ রোশন

First Published 29, May 2020, 3:43 PM

'ধুম টু'র সিজলিং কেমিস্ট্রি, 'যোধা আকবর'-এ স্বর্গ ভুলিয়ে দেওয়ার মত এক জুটি। ঐশ্বর্য রাই বচ্চন এবং হৃত্বিক রোশনের জুটিতে মাতোয়ারা হয়েছিল সিনেপ্রেমীরা। কয়েনের একবারে এপিঠ ওপিঠের চরিত্রগুলি ছিল দুটো ছবির। ধুম টু ছবিতে তাঁদের একসঙ্গে দেখা পর সিনেমা হল থেকে বেরিয়ে কেবল একটাই কথা ছিল সকলের, পর্দায় ঐশ্বর্য-হৃত্বিক ছাড়া আর কারও দিকে চোখই যাচ্ছে না। তাঁদের রসায়ন ছিল একেবারে টপ নচ। অন্যদিকে যোধা আকবর-এও একই ব্যাপার। ঐতিহাসিক চরিত্রে দুজনকে দেখার পর দর্শকরা বারে বারে তাঁদের অনস্ক্রিন জুটি হিসেবে দেখতে চেয়েছিল। তবে ঠিক এর উল্টোটা ভেবে বসেছিল রাকেশ রোশন। তাঁর মতে ঐশ্বর্যকে দেখতে হৃত্বিকের থেকে বেশ বড় লাগে। তাই অনস্ক্রিন জুটি হিসেবে পরিচালক তথা অভিনেতা একেবারেই ঐশ্বর্য-হৃত্বিককে একসঙ্গে দেখতে চাননি। 

<p>এক সাক্ষাৎকারে রাকেশ রোশন জানিয়েছিলেন, ঐশ্বর্যকে, হৃত্বিকের তুলনায় বেশ বয়স্ক লাগে। দুজনকে একসঙ্গে কাস্ট করাটা খুব একটা বুদ্ধিমানের বিষয় নয় বলেই ধারণা হয়েছিল তাঁর। </p>

এক সাক্ষাৎকারে রাকেশ রোশন জানিয়েছিলেন, ঐশ্বর্যকে, হৃত্বিকের তুলনায় বেশ বয়স্ক লাগে। দুজনকে একসঙ্গে কাস্ট করাটা খুব একটা বুদ্ধিমানের বিষয় নয় বলেই ধারণা হয়েছিল তাঁর। 

<p>দুটি ছবিতে ধুন্ধুমার পারফমেন্সের পর, সিনেপ্রেমীরা তাঁদের অত্যন্ত পছন্দ করেছিল। যেখানে পাব্লিক রিভিউই শেষ কথা সেখানে এমন কেন মনে হয়েছিল রাকেশ রোশনের। </p>

দুটি ছবিতে ধুন্ধুমার পারফমেন্সের পর, সিনেপ্রেমীরা তাঁদের অত্যন্ত পছন্দ করেছিল। যেখানে পাব্লিক রিভিউই শেষ কথা সেখানে এমন কেন মনে হয়েছিল রাকেশ রোশনের। 

<p>এ কথা নিজেও বোঝেননি ঐশ্বর্য। বরং রাকেশ রোশনের কথায় খানিক অবাক হয় তিনি বলেছিলেন, "রাকেশ রোশন ভাবে আমায় হৃত্বিকের পাশে বয়স্ক লাগে, এটা শুনে বেশ অবাক হলাম। এদিকে উনি আমায় নিজের হোম প্রোডাকশনের প্রতিটি কাজের প্রস্তাব নিয়ে এসেছিলেন।"</p>

এ কথা নিজেও বোঝেননি ঐশ্বর্য। বরং রাকেশ রোশনের কথায় খানিক অবাক হয় তিনি বলেছিলেন, "রাকেশ রোশন ভাবে আমায় হৃত্বিকের পাশে বয়স্ক লাগে, এটা শুনে বেশ অবাক হলাম। এদিকে উনি আমায় নিজের হোম প্রোডাকশনের প্রতিটি কাজের প্রস্তাব নিয়ে এসেছিলেন।"

<p>ঐশ্বর্যের এই জবাবে যে সমস্যা খানিক দেখা দিয়েছিল তা বুঝতে অসুবিধে হয়নি কারও। রাকেশ রোশন এবং ঐশ্বর্যের মধ্যে তেমন পেশাগত ছাড়া তেমন ব্যক্তিগত সম্পর্ক ছিল না বললেই চলে। তবে রাকেশ রোশনের এই মন্তব্যের পর দূরত্ব কিছুটা বেড়েই যায়।</p>

ঐশ্বর্যের এই জবাবে যে সমস্যা খানিক দেখা দিয়েছিল তা বুঝতে অসুবিধে হয়নি কারও। রাকেশ রোশন এবং ঐশ্বর্যের মধ্যে তেমন পেশাগত ছাড়া তেমন ব্যক্তিগত সম্পর্ক ছিল না বললেই চলে। তবে রাকেশ রোশনের এই মন্তব্যের পর দূরত্ব কিছুটা বেড়েই যায়।

<p>কেবল বাবাই নয়, ছেলেও ঐশ্বর্যের খুঁত বের করার জন্য প্রস্তুত ছিলেন। রিও ডি জিনেরিওতে চলেছিল ধুম টু ছবির কিছু অংশের শ্যুটিং। সেখানে শ্যুট চলাকালীন হৃত্বিকের ঐশ্বর্যের প্রতি ভাবনা-চিন্তায় আসে বিপুল বদল। </p>

কেবল বাবাই নয়, ছেলেও ঐশ্বর্যের খুঁত বের করার জন্য প্রস্তুত ছিলেন। রিও ডি জিনেরিওতে চলেছিল ধুম টু ছবির কিছু অংশের শ্যুটিং। সেখানে শ্যুট চলাকালীন হৃত্বিকের ঐশ্বর্যের প্রতি ভাবনা-চিন্তায় আসে বিপুল বদল। 

<p>এই ছবিতে কাজ করার আগে তিনি ভাবতেন, বিউটি প্যাজেন্ট থেকে আসা অতি সুন্দরী একজন মহিলা হয়তো অভিনয়ের দিক থেকে নিজের তেমন প্রতিভা দেখাতে পারবেন না। অধিকাংশ সময় সৌন্দর্যই প্রতিভাকে  কেড়ে নেয়।</p>

এই ছবিতে কাজ করার আগে তিনি ভাবতেন, বিউটি প্যাজেন্ট থেকে আসা অতি সুন্দরী একজন মহিলা হয়তো অভিনয়ের দিক থেকে নিজের তেমন প্রতিভা দেখাতে পারবেন না। অধিকাংশ সময় সৌন্দর্যই প্রতিভাকে  কেড়ে নেয়।

<p>কিন্তু এ ভাবনাকে একেবারে ভুল হিসেবে প্রমাণ করেন ঐশ্বর্য। ধুম টু ছবিতে ঐশ্বর্যের কাজের প্রতি অদম্য টান এবং ডেডিকেশন দেখে অবাক হয়ে গিয়েছিলেন হৃত্বিক। </p>

কিন্তু এ ভাবনাকে একেবারে ভুল হিসেবে প্রমাণ করেন ঐশ্বর্য। ধুম টু ছবিতে ঐশ্বর্যের কাজের প্রতি অদম্য টান এবং ডেডিকেশন দেখে অবাক হয়ে গিয়েছিলেন হৃত্বিক। 

<p>অভিনেতা স্বীকার করতে বাধ্য হন যে তিনি সম্পূ্ণ ভুল ভেবেছিলেন। "আমায় স্বীকার করতেই হবে যে আমি ভুল ধারণা নিয়ে এতদিন এগিয়ে যাচ্ছিলাম। নিজেকে বোকার মত মনে হচ্ছে আমার।"</p>

অভিনেতা স্বীকার করতে বাধ্য হন যে তিনি সম্পূ্ণ ভুল ভেবেছিলেন। "আমায় স্বীকার করতেই হবে যে আমি ভুল ধারণা নিয়ে এতদিন এগিয়ে যাচ্ছিলাম। নিজেকে বোকার মত মনে হচ্ছে আমার।"

<p>তিনি আরও বলেন, "আমি ভাবতাম, রূপ মাঝে মধ্যে গুণকে ছাপিয়ে যায়, তেমনটাই হয়তো ঘটবে ঐশ্বর্যের ক্ষেত্রে। কিন্তু ওঁকে এত নিখুঁতভাবে কাজ করতে দেখে আমি বাকরুদ্ধ। একজনের মধ্যে রূপের পাশাপাশিও যে এমন প্রতিভা থাকতে পারে, তা আমার জানা ছিল না।"</p>

তিনি আরও বলেন, "আমি ভাবতাম, রূপ মাঝে মধ্যে গুণকে ছাপিয়ে যায়, তেমনটাই হয়তো ঘটবে ঐশ্বর্যের ক্ষেত্রে। কিন্তু ওঁকে এত নিখুঁতভাবে কাজ করতে দেখে আমি বাকরুদ্ধ। একজনের মধ্যে রূপের পাশাপাশিও যে এমন প্রতিভা থাকতে পারে, তা আমার জানা ছিল না।"

<p>ব্রাজিলের শ্যুটিংয়ের পর হৃত্বিকের ভাবনায়ে আসে আমূল পরিবর্তন, তবে রাকেশ রোশনের ভাবনায় আর পরিবর্তন এসেছে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ আছে।  </p>

ব্রাজিলের শ্যুটিংয়ের পর হৃত্বিকের ভাবনায়ে আসে আমূল পরিবর্তন, তবে রাকেশ রোশনের ভাবনায় আর পরিবর্তন এসেছে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ আছে।  

<p>'ধুম টু', 'যোধা আকবর', 'গুজারিশ' এই তিনটি ভিন্ন ধারার ছবিতে কাজ করার পর দর্শকদের তাঁদের প্রতি আশা কয়েক গুণ বেড়ে গিয়েছিল। বারে বারে তাঁদের সিনেপর্দায় দেখার ইচ্ছেপ্রকাশ করেছিল কয়েক লক্ষ ভক্ত।</p>

'ধুম টু', 'যোধা আকবর', 'গুজারিশ' এই তিনটি ভিন্ন ধারার ছবিতে কাজ করার পর দর্শকদের তাঁদের প্রতি আশা কয়েক গুণ বেড়ে গিয়েছিল। বারে বারে তাঁদের সিনেপর্দায় দেখার ইচ্ছেপ্রকাশ করেছিল কয়েক লক্ষ ভক্ত।

<p>তাহলে কি রাকেশ রোশনে নিজের ভাবনায় পরিবর্তন আনেননি। এই ধারণার জেরেই কি আর ঐশ্বর্য-হৃত্বিককে একসঙ্গে কোনও ছবিতে দেখা যায়নি।</p>

তাহলে কি রাকেশ রোশনে নিজের ভাবনায় পরিবর্তন আনেননি। এই ধারণার জেরেই কি আর ঐশ্বর্য-হৃত্বিককে একসঙ্গে কোনও ছবিতে দেখা যায়নি।

loader