এখন আরও সহজ হল ব্যাঙ্কিং পরিষেবা, ICICI ভারতে প্রথম লঞ্চ করল iMobile Pay পেমেন্ট পরিষেবা

First Published Dec 9, 2020, 3:19 PM IST

‘iMobile Pay’-র ব্যবহারকারীরা যে কোন ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট, পেমেন্ট অ্যাপ বা ডিজিটাল ওয়ালেটেও টাকা পাঠাতে পারবেন। এই অ্যাপ যে কোন ইউ পি আই (ইউনিফায়েড পেমেন্টস ইন্টারফেস) আই ডি অথবা ব্যবসাকে টাকা দেওয়ার সুযোগ দেয়, বিল মেটানো এবং অনলাইন রিচার্জ করার সুযোগ দেয়। আবার সেভিংস অ্যাকাউন্ট, লগ্নি, ধার নেওয়া, ক্রেডিট কার্ড, গিফট কার্ড, ট্র্যাভেল কার্ড এবং আরো অনেক তাৎক্ষণিক ব্যাঙ্কিং পরিষেবার সুবিধাও জোগায়।  আই সি আই সি আই ব্যাঙ্ক আজ ঘোষণা করল যে তাদের অত্যাধুনিক মোবাইল ব্যাঙ্কিং অ্যাপ ‘iMobile’ কে এমন একটা অ্যাপে পরিণত করা হয়েছে, যা যে কোন ব্যাঙ্কের গ্রাহকদেরই পেমেন্ট ও ব্যাঙ্কিং পরিষেবা জোগাবে। 

<p>‘iMobile Pay’-র আরেকটা উল্লেখযোগ্য বৈশিষ্ট্য হল ‘পে টু কন্ট্যাক্টস’। অর্থাৎ এই অ্যাপ ব্যবহারকারী তাঁর ফোন বুকে থাকা ব্যক্তিদের আই সি আই সি আই ব্যাঙ্কের ইউপিআই আইডি নেটওয়ার্কে অথবা অন্য পেমেন্ট অ্যাপ বা ডিজিটাল ওয়ালেটে ইউপিআই আইডি থাকলে তা এমনিতেই দেখতে পাবেন।&nbsp;</p>

‘iMobile Pay’-র আরেকটা উল্লেখযোগ্য বৈশিষ্ট্য হল ‘পে টু কন্ট্যাক্টস’। অর্থাৎ এই অ্যাপ ব্যবহারকারী তাঁর ফোন বুকে থাকা ব্যক্তিদের আই সি আই সি আই ব্যাঙ্কের ইউপিআই আইডি নেটওয়ার্কে অথবা অন্য পেমেন্ট অ্যাপ বা ডিজিটাল ওয়ালেটে ইউপিআই আইডি থাকলে তা এমনিতেই দেখতে পাবেন। 

<p>এই অনন্য বৈশিষ্ট্য ব্যবহারকারীদের জন্য একটা গুরুত্বপূর্ণ সুবিধা। তাঁদের আর কারোর ইউপিআই আইডি মনে রাখতে হবে না এবং সহজেই সমস্ত পেমেন্ট অ্যাপ আর ডিজিটাল ওয়ালেটে টাকা পাঠাতে পারবেন।</p>

এই অনন্য বৈশিষ্ট্য ব্যবহারকারীদের জন্য একটা গুরুত্বপূর্ণ সুবিধা। তাঁদের আর কারোর ইউপিআই আইডি মনে রাখতে হবে না এবং সহজেই সমস্ত পেমেন্ট অ্যাপ আর ডিজিটাল ওয়ালেটে টাকা পাঠাতে পারবেন।

<p>ভারতে এত সুবিধাজনক অ্যাপ এই প্রথম। মোবাইল ব্যাঙ্কিং অ্যাপগুলো এতদিন নিজ নিজ ব্যাঙ্কের গ্রাহকদের মধ্যেই আটকে ছিল। ‘iMobile Pay’ সেই গন্ডিটাকে বড় করে দিল।&nbsp;<br />
&nbsp;</p>

ভারতে এত সুবিধাজনক অ্যাপ এই প্রথম। মোবাইল ব্যাঙ্কিং অ্যাপগুলো এতদিন নিজ নিজ ব্যাঙ্কের গ্রাহকদের মধ্যেই আটকে ছিল। ‘iMobile Pay’ সেই গন্ডিটাকে বড় করে দিল। 
 

<p>একই সঙ্গে ‘iMobile Pay’ একাধিক অ্যাপ ব্যবহার করার প্রয়োজনও দূর করল, কারণ এই অ্যাপের মাধ্যমে গ্রাহকরা সবরকম লেনদেন চালাতে পারবেন। ফলে গ্রাহকরা তাঁদের একাধিক ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট এই অ্যাপের সাথে যুক্ত করার যথেষ্ট কারণও খুঁজে পাবেন।</p>

একই সঙ্গে ‘iMobile Pay’ একাধিক অ্যাপ ব্যবহার করার প্রয়োজনও দূর করল, কারণ এই অ্যাপের মাধ্যমে গ্রাহকরা সবরকম লেনদেন চালাতে পারবেন। ফলে গ্রাহকরা তাঁদের একাধিক ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট এই অ্যাপের সাথে যুক্ত করার যথেষ্ট কারণও খুঁজে পাবেন।

<p>iMobile Pay’ চালু করার জন্য দেশের যে কোন ব্যাঙ্কের গ্রাহক অ্যাপটা ডাউনলোড করতে পারেন, তৎক্ষণাৎ তাঁর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টগুলো যুক্ত করতে পারেন এবং একটা ইউপিআই আইডি (যা স্রেফ তাঁর মোবাইল নম্বর; উদাহরণ xxxxxx1234.imb@icici) তৈরি করতে পারেন। তাহলেই সবকটা সুযোগ সুবিধা পাবেন।</p>

iMobile Pay’ চালু করার জন্য দেশের যে কোন ব্যাঙ্কের গ্রাহক অ্যাপটা ডাউনলোড করতে পারেন, তৎক্ষণাৎ তাঁর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টগুলো যুক্ত করতে পারেন এবং একটা ইউপিআই আইডি (যা স্রেফ তাঁর মোবাইল নম্বর; উদাহরণ xxxxxx1234.imb@icici) তৈরি করতে পারেন। তাহলেই সবকটা সুযোগ সুবিধা পাবেন।

<p>এই উদ্যোগ সম্বন্ধে শ্রী অনুপ বাগচি, এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর, আই সি আই সি আই ব্যাঙ্ক বললেন, “আই সি আই সি আই ব্যাঙ্ক সবসময় পথ দেখানোর মত নতুন জিনিস চালু করার ব্যাপারে সামনের সারিতে থেকেছে।&nbsp;<br />
&nbsp;</p>

এই উদ্যোগ সম্বন্ধে শ্রী অনুপ বাগচি, এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর, আই সি আই সি আই ব্যাঙ্ক বললেন, “আই সি আই সি আই ব্যাঙ্ক সবসময় পথ দেখানোর মত নতুন জিনিস চালু করার ব্যাপারে সামনের সারিতে থেকেছে। 
 

<p>সেই জিনিসগুলো ভারতে ডিজিটাল ব্যাঙ্কিং যেভাবে চলে, তার রূপান্তর ঘটানোর ব্যাপারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। এই সমৃদ্ধ ঐতিহ্যের সাথে তাল মিলিয়ে আমরা ২০০৮-এ দেশের প্রথম মোবাইল ব্যাঙ্কিং অ্যাপ ‘iMobile’ চালু করেছিলাম।</p>

সেই জিনিসগুলো ভারতে ডিজিটাল ব্যাঙ্কিং যেভাবে চলে, তার রূপান্তর ঘটানোর ব্যাপারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। এই সমৃদ্ধ ঐতিহ্যের সাথে তাল মিলিয়ে আমরা ২০০৮-এ দেশের প্রথম মোবাইল ব্যাঙ্কিং অ্যাপ ‘iMobile’ চালু করেছিলাম।

<p>অ্যাপটা ব্যবহার করতে শুরু করার সহজ ধাপ- ডাউনলোড: গুগল প্লে স্টোর থেকে ‘iMobile Pay’ অ্যাপটা ডাউনলোড করুন, খুলুন এবং চার অঙ্কের লগ-ইন পিন সেট আপ করুন। আঙুলের ছাপ ব্যবহার করে লগ ইন করার বিকল্পও আছে। দয়া করে মনে রাখুন, যে অ্যাপটা শিগগির আইওএস ডিভাইসের জন্যও পাওয়া যাবে।</p>

অ্যাপটা ব্যবহার করতে শুরু করার সহজ ধাপ- ডাউনলোড: গুগল প্লে স্টোর থেকে ‘iMobile Pay’ অ্যাপটা ডাউনলোড করুন, খুলুন এবং চার অঙ্কের লগ-ইন পিন সেট আপ করুন। আঙুলের ছাপ ব্যবহার করে লগ ইন করার বিকল্পও আছে। দয়া করে মনে রাখুন, যে অ্যাপটা শিগগির আইওএস ডিভাইসের জন্যও পাওয়া যাবে।

<p>অ্যাকাউন্ট&nbsp;যুক্ত করুন: ওয়েলকাম স্ক্রিনে ‘লিঙ্ক অ্যাকাউন্ট’-এ আঙুল ছোঁয়ান এবং যে কোন ব্যাঙ্কের সেভিংস অ্যাকাউন্ট যুক্ত করার জন্য প্রয়োজনীয় তথ্যাদি সরবরাহ করুন। একাধিক ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টও যুক্ত করতে পারেন।</p>

অ্যাকাউন্ট যুক্ত করুন: ওয়েলকাম স্ক্রিনে ‘লিঙ্ক অ্যাকাউন্ট’-এ আঙুল ছোঁয়ান এবং যে কোন ব্যাঙ্কের সেভিংস অ্যাকাউন্ট যুক্ত করার জন্য প্রয়োজনীয় তথ্যাদি সরবরাহ করুন। একাধিক ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টও যুক্ত করতে পারেন।

<p>উপিআই আইডি তৈরি করুন: অ্যাকাউন্ট (গুলো) যুক্ত করা হয়ে গেলে একটা ইউপিআই আইডি তৈরি হবে, যা দিয়ে লেনদেন শুরু করা যেতে পারে। এই ইউপিআই আইডি যুক্ত করা সবকটা ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের জন্যই এক থাকবে। লেনদেনের সময় ব্যবহারকারী স্রেফ কোন একটা অ্যাকাউন্ট বেছে নেবেন।</p>

উপিআই আইডি তৈরি করুন: অ্যাকাউন্ট (গুলো) যুক্ত করা হয়ে গেলে একটা ইউপিআই আইডি তৈরি হবে, যা দিয়ে লেনদেন শুরু করা যেতে পারে। এই ইউপিআই আইডি যুক্ত করা সবকটা ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের জন্যই এক থাকবে। লেনদেনের সময় ব্যবহারকারী স্রেফ কোন একটা অ্যাকাউন্ট বেছে নেবেন।

Today's Poll

একসঙ্গে কতজন প্লেয়ারের সঙ্গে খেলতে পছন্দ করেন