আমেরিকায় রক্ষে পাচ্ছেন না বসবাসরত ভারতীয়রাও, দেশটিতে মৃত্যু মিছিল ৬০ হাজার ছাড়ানোর আশঙ্কা

First Published 9, Apr 2020, 9:21 AM

বিশ্বে এখনও করোনার নতুন এপিসেন্টার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। প্রতিদিনউ বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত দেশটিতে করোনার বলি হয়েছেন ১৪,৬০০ জন। মৃত্যু মিছিলে আমেরিকার সামনে কেবল রয়েছে ইতালি । ইতালিতে বর্তমানে করোনা সংক্রমণে মৃতের সংখ্যা ১৭,৬৬৯ এবং স্পেনে মৃতের সংখ্যা ১৪,৫৫৫। পরিস্থিতি এমন চলতে থাকলে আগামী দিনে সংখ্যাটা ৬০ হাজার ছাড়িয়ে যাবে বলেই আশঙ্কা করা হচ্ছে। 

মৃত্যু মিছিলে আবার রেকর্ড গড়ল আমেরিকা। দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃতের সংখ্যা ১,৯০০ বেশি। এর সঙ্গেই রেকর্ড গড়ল দেশটি। পরপর ২ দিন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে কোভিড ১৯ রোগে মৃতের সংখ্যা ২ হাজারের কাছাকাছি।

মৃত্যু মিছিলে আবার রেকর্ড গড়ল আমেরিকা। দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃতের সংখ্যা ১,৯০০ বেশি। এর সঙ্গেই রেকর্ড গড়ল দেশটি। পরপর ২ দিন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে কোভিড ১৯ রোগে মৃতের সংখ্যা ২ হাজারের কাছাকাছি।

পরিস্থিতি সামাল দিতে ইউরোপের দেশগুলি লকডাউনের সময় বাড়িয়ে দিচ্ছে। গত ৯ মার্চ থেকে লকডাউন চলছে ইতালিতে। স্পেনে ১৪ মার্চ থেকে চলছে লকডাউন। আমেরিকাতেও বর্তমানে ৯৪ শতাংশ মানুষ গৃহবন্দি হয়ে রয়েছেন।

পরিস্থিতি সামাল দিতে ইউরোপের দেশগুলি লকডাউনের সময় বাড়িয়ে দিচ্ছে। গত ৯ মার্চ থেকে লকডাউন চলছে ইতালিতে। স্পেনে ১৪ মার্চ থেকে চলছে লকডাউন। আমেরিকাতেও বর্তমানে ৯৪ শতাংশ মানুষ গৃহবন্দি হয়ে রয়েছেন।

বর্তমানে আমেরিকায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। সংখ্যাটা ৪ লক্ষ ৩০ হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে। এর মাঝে ফ্রান্সেও আক্রান্তের সংখ্যআ ১ লক্ষ ছুঁয়ে ফেলল।

বর্তমানে আমেরিকায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। সংখ্যাটা ৪ লক্ষ ৩০ হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে। এর মাঝে ফ্রান্সেও আক্রান্তের সংখ্যআ ১ লক্ষ ছুঁয়ে ফেলল।

রেকর্ড গড়ল ব্রিটিশ যুক্তরাজ্যও। দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রমণে মৃত্যু হয়য়েছে ৯৩৮ জনের। ব্রিটেনে একদিনের নিরিখে এটা সর্বোচ্চ। যার ফলে ব্রিটেনে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭,০৯৭।

রেকর্ড গড়ল ব্রিটিশ যুক্তরাজ্যও। দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রমণে মৃত্যু হয়য়েছে ৯৩৮ জনের। ব্রিটেনে একদিনের নিরিখে এটা সর্বোচ্চ। যার ফলে ব্রিটেনে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭,০৯৭।

আমেরিকায় সবচেয়ে বেশি করোনা সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে নিউইয়র্কে। গত ২৪ ঘণ্টায় এই শহরে করোনা সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে ৭৭৯ জনের।

আমেরিকায় সবচেয়ে বেশি করোনা সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে নিউইয়র্কে। গত ২৪ ঘণ্টায় এই শহরে করোনা সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে ৭৭৯ জনের।

বিশেষজ্ঞরা আশঙ্কা করছিলেন আমেরিকায় করোনা সংক্রমণে ১ লক্ষ থেকে ২ লক্ষ লোকের মৃত্যু হতে পারে। তবে নতুন সমীক্ষায় সংখ্যাটা ৬০ হাজারের আশেপাশে থাকবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

বিশেষজ্ঞরা আশঙ্কা করছিলেন আমেরিকায় করোনা সংক্রমণে ১ লক্ষ থেকে ২ লক্ষ লোকের মৃত্যু হতে পারে। তবে নতুন সমীক্ষায় সংখ্যাটা ৬০ হাজারের আশেপাশে থাকবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

মার্কিন মুলুকে করোনার বলি এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি হয়েছে আফ্রিকান আমেরিকানরা। তবে আমেরিকায় বসবাসরত ভারতীয়দের মধ্যেও এই রোগের সংক্রমণ ধীরে ধীরে বাড়ছে। এখনও পর্যন্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ১১ জন ভারতীয় কোভিড ১৯ রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন।

মার্কিন মুলুকে করোনার বলি এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি হয়েছে আফ্রিকান আমেরিকানরা। তবে আমেরিকায় বসবাসরত ভারতীয়দের মধ্যেও এই রোগের সংক্রমণ ধীরে ধীরে বাড়ছে। এখনও পর্যন্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ১১ জন ভারতীয় কোভিড ১৯ রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন।

ম্যালেরিয়ার ওষুধ হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন দিয়েই মূলত আমেরিকায় চিকিৎসা হচ্ছে করোনা আক্রান্তদের। এই অবস্থায় নিষেধাজ্ঞা উঠিয়ে সেদেশে এই ওষুধ সরবরাহের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারত সরকার।

ম্যালেরিয়ার ওষুধ হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন দিয়েই মূলত আমেরিকায় চিকিৎসা হচ্ছে করোনা আক্রান্তদের। এই অবস্থায় নিষেধাজ্ঞা উঠিয়ে সেদেশে এই ওষুধ সরবরাহের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারত সরকার।

এই সংকটময় মুহুর্তে ভারত ওষুধ পাঠানোয় মোদীকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ভারতীয়দের এই সাহায্য আমেরিকাবাসী কখনও ভুলবে না বলে জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

এই সংকটময় মুহুর্তে ভারত ওষুধ পাঠানোয় মোদীকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ভারতীয়দের এই সাহায্য আমেরিকাবাসী কখনও ভুলবে না বলে জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

করোনা সংক্রমণে এখনও পর্যন্ত আমেরিকায় মৃত্যু হয়েছে ১১ জন ভারতীয়র। মৃতরা সকলেই পুরুষ বলে জানা যাচ্ছে। এদের মধ্যে ১০ জনই নিউইয়র্ক ও নিউ জার্সির বাসিন্দা। তাঁদের মধ্যে আবার ৪ জন ছিলেন নিউইয়র্কের ট্যাক্সি চালক।  বর্তমানে আমেরিকায় কোভিড ১৯ পজিটিভ ভারতীয়র  সংখ্যা ১৬।

করোনা সংক্রমণে এখনও পর্যন্ত আমেরিকায় মৃত্যু হয়েছে ১১ জন ভারতীয়র। মৃতরা সকলেই পুরুষ বলে জানা যাচ্ছে। এদের মধ্যে ১০ জনই নিউইয়র্ক ও নিউ জার্সির বাসিন্দা। তাঁদের মধ্যে আবার ৪ জন ছিলেন নিউইয়র্কের ট্যাক্সি চালক। বর্তমানে আমেরিকায় কোভিড ১৯ পজিটিভ ভারতীয়র সংখ্যা ১৬।

আমেরিকায় করোনার এপিসেন্টার নিউইয়র্কে বর্তমানে করোনা আক্রান্ত ১ লক্ষ ৩৮ হাজারের বেশি মানুষ। প্রাণ হারিয়েছেন ৬ হাজারের বেশি।

আমেরিকায় করোনার এপিসেন্টার নিউইয়র্কে বর্তমানে করোনা আক্রান্ত ১ লক্ষ ৩৮ হাজারের বেশি মানুষ। প্রাণ হারিয়েছেন ৬ হাজারের বেশি।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আরেক শহর নিউ জার্সিতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৪৮ হাজার। প্রাণ হারিয়েছেন ১,৫০০ জন।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আরেক শহর নিউ জার্সিতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৪৮ হাজার। প্রাণ হারিয়েছেন ১,৫০০ জন।

loader