ভারত বনাম নিউজিল্যান্ড - চার প্রধান তারকা সংঘাত, যা প্রভাব ফেলবেই ম্যাচের ফলাফলে

First Published 9, Jul 2019, 7:37 AM IST

মঙ্গলবার ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে বিশ্বকাপ ২০১৯-এর প্রথম সেমিফাইনালে মুখোমুখি ভারত ও নিউজিল্যান্ড। বিশ্বকাপের ফাইনালে ওঠার লড়াই যে আকর্ষণীয় হবে সে তো বলাই বাহুল্য। সেই রোমাঞ্চকে আরও বাড়িয়ে দিতে পারে দুই দলের ক্রিকেটারদের ব্য়াট-বলে পরস্পর পরস্পরকে চাপিয়ে যাওয়ার ব্যক্তিগত লড়াইও। দেই দলেই তো তারকার অভাব নেই। বিরাট কোহলি, জসপ্রীত বুমরা, কেইন উইলিয়ামসন, ট্রেন্ট বোল্ট - প্রত্যেকেই আধুনিক যুগের বিশ্ব ক্রিকেটের এক-একটি বড় নাম। আর তারকাদের এই ছোট্ট ছোট্ট লড়াইগুলোই কিন্তু সেমিফাইনাল যুদ্ধের ফলাফল নির্ধারণ করে দিতে পারে।

 

নিঃসন্দেহে রোহিত শর্মাই এই মুহূর্তে ভারতের ব্য়াটিং-এর প্রধান ব্যক্তি। তাঁর ব্যাট চললে ভারতের ঘরে বড় রান আসা প্রায় নিশ্চিত। অন্য দিকে শুরুর ওভারগুলিতে ট্রেন্ট বোল্টই কিউই বোলিং-এর সেরা বাজি। বল সামান্য নড়াচড়া করা শুরু করলেই তিনি কি করতে পারেন, তার স্বাদ চলতি অন্তত দুইবার পেয়েছে ভারত। ভারতের ইনিংসের শুরুতে এই দুই তারকার মধ্যে টানটান প্রতিদ্বন্দ্বিতা চলবে।

নিঃসন্দেহে রোহিত শর্মাই এই মুহূর্তে ভারতের ব্য়াটিং-এর প্রধান ব্যক্তি। তাঁর ব্যাট চললে ভারতের ঘরে বড় রান আসা প্রায় নিশ্চিত। অন্য দিকে শুরুর ওভারগুলিতে ট্রেন্ট বোল্টই কিউই বোলিং-এর সেরা বাজি। বল সামান্য নড়াচড়া করা শুরু করলেই তিনি কি করতে পারেন, তার স্বাদ চলতি অন্তত দুইবার পেয়েছে ভারত। ভারতের ইনিংসের শুরুতে এই দুই তারকার মধ্যে টানটান প্রতিদ্বন্দ্বিতা চলবে।

বিশ্বকাপে কিউই ওপেনাররা এতটাই খারাপ খেলছেন, যে প্রতি ম্য়াচেই প্রায় উইলিয়ামসনকে প্রথম ১০ ওভারের ম্ধ্যেই ব্যাট করতে নামতে হচ্ছে। আর এই সময়েই প্রথম স্পেল করে থাকেন বুম বুম বুমরা। আধুনিক ক্রিকেটের ব্যাটিং ফ্যাব ফোরের অন্য়তম উইলিয়ামসনকে যদি অল্পরানে ফিরিয়ে দেন বুমরা, বারত কিন্তু অনেকটাই এগিয়ে যাবে জয়ের দিকে।

বিশ্বকাপে কিউই ওপেনাররা এতটাই খারাপ খেলছেন, যে প্রতি ম্য়াচেই প্রায় উইলিয়ামসনকে প্রথম ১০ ওভারের ম্ধ্যেই ব্যাট করতে নামতে হচ্ছে। আর এই সময়েই প্রথম স্পেল করে থাকেন বুম বুম বুমরা। আধুনিক ক্রিকেটের ব্যাটিং ফ্যাব ফোরের অন্য়তম উইলিয়ামসনকে যদি অল্পরানে ফিরিয়ে দেন বুমরা, বারত কিন্তু অনেকটাই এগিয়ে যাবে জয়ের দিকে।

সেমিফাইনালে শামিকে দলে অবশ্যই চাই - এই কথা স্বয়ং সচিন তেন্ডুলকর বলেছেন। ৪ ম্য়াচে ১৪ উইকেট - যে কোনও প্রতিযোগিতায় কোনও বোলারের পক্ষে স্বপ্নের পরিসংখ্য়ান। তবে তিনি কিন্তু ইংল্য়ান্ড ম্য়াচে অনেক রান দিয়ে ফেলেছিলেন। অন্যদিকে রস টেলরের বিশ্বকাপটা খুব ভাল যায়নি। কিন্তু তাঁর বিপুল অভিজ্ঞতাই নকআউটে তাঁকে বিপজ্জনক করে তুলেছে। শামি কিন্তু আবার মাঝের স্পেলেই সবচেয়ে ভয়ঙ্কর।

সেমিফাইনালে শামিকে দলে অবশ্যই চাই - এই কথা স্বয়ং সচিন তেন্ডুলকর বলেছেন। ৪ ম্য়াচে ১৪ উইকেট - যে কোনও প্রতিযোগিতায় কোনও বোলারের পক্ষে স্বপ্নের পরিসংখ্য়ান। তবে তিনি কিন্তু ইংল্য়ান্ড ম্য়াচে অনেক রান দিয়ে ফেলেছিলেন। অন্যদিকে রস টেলরের বিশ্বকাপটা খুব ভাল যায়নি। কিন্তু তাঁর বিপুল অভিজ্ঞতাই নকআউটে তাঁকে বিপজ্জনক করে তুলেছে। শামি কিন্তু আবার মাঝের স্পেলেই সবচেয়ে ভয়ঙ্কর।

চলতি বিশ্বকাপে কারাপ খেলছেন বিরাট এই কথা বলা যাবে না, কিন্তু প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেননি এখনও পর্যন্ত। যে কোনও বড় ক্রিকেটারের মতোই নকআউট স্তরে তিনি জ্বলে উঠবেন - ক্রিকেট বিশ্ব এরকমই মনে করছে। অন্যদিকে আইপিএল-এ সেভাবে নিজেকে মেলে ধরতে না পারলেও চলতি বিশ্বকাপে লকি ফার্গুসন কিন্তু কিউইদের সফলতম বোলার। এক ম্য়াচের বিশ্রামের পর তিনি কিন্তু আরও তেড়েফুরে নামবেন। কিন্তু বিরাট-শিকার কি করতে পারবেন?

চলতি বিশ্বকাপে কারাপ খেলছেন বিরাট এই কথা বলা যাবে না, কিন্তু প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেননি এখনও পর্যন্ত। যে কোনও বড় ক্রিকেটারের মতোই নকআউট স্তরে তিনি জ্বলে উঠবেন - ক্রিকেট বিশ্ব এরকমই মনে করছে। অন্যদিকে আইপিএল-এ সেভাবে নিজেকে মেলে ধরতে না পারলেও চলতি বিশ্বকাপে লকি ফার্গুসন কিন্তু কিউইদের সফলতম বোলার। এক ম্য়াচের বিশ্রামের পর তিনি কিন্তু আরও তেড়েফুরে নামবেন। কিন্তু বিরাট-শিকার কি করতে পারবেন?

loader