ফ্লফি হ্যাট মাথায় ব্যাটিং, ক্রিকেট মাঠের ফ্যাশন থেকে বিপ্লবের এক ঝলক

First Published 12, Nov 2019, 1:30 PM IST

ক্রিকেট মানেই এক কথায় ফ্যাশন নিয়ে মাতামাতি। এমনকি আজকাল ক্রিকেট প্রতিযোগিতা গুলোতে বিশেষ করে ব্যবস্থা থাকে ফ্যাশন নিয়ে মাতামাতি করার জায়গা। ভালো ক্রিকেটার বেছে নেওয়ার পাশাপাশি বর্তমানে টুর্নামেন্ট কমিটি গুলো বেছে নেন স্টাইলিশ ক্রিকেটারদেরও। ইতিহাসের পাতা উলটে দেখতে গেলে বিশেষ করে টুপি নিয়ে আগেও ক্রিকেট মাঠে নজর কেড়েছেন ভারতীয় ক্রিকেটার থেকে শুরু করে অন্যান্য দেশের ক্রিকেটাররা। সাধারণ টুপি মাথায় তো অনেকেই মাঠে নেমে নজড় কেড়েছেন তবে গোল টুপি ও ফ্লফি হ্যাট পরেও ক্রিকেট মাঠে নজর কেড়েছেন বেশ কিছু প্রতিযোগিরা। গাভাসকর থেকে শুরু করে মিতালি রাজের এই ফ্লফি হ্যাটের রহস্য।

ফ্লফি হ্যাট মানেই এক কথায় বাংলা ভাষায় বলা হয় গোল টুপি। সূর্যের তাপ থেকে মাথা বাচানোর জন্য বেশ কিছু ক্রিকেটাররাই এই হ্যাট পরে মাঠে নামতেন। যাঁর মধ্যে অন্যতম হল রিচি রিচার্ডসন। ১৯৮৩ সালে নিজের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের কেরিয়ার শুরু করেছিলেন ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটার রিচি। আর প্রথম থেকেই তাঁর পড়নে ছিল ফ্লফি হ্যাট।

ফ্লফি হ্যাট মানেই এক কথায় বাংলা ভাষায় বলা হয় গোল টুপি। সূর্যের তাপ থেকে মাথা বাচানোর জন্য বেশ কিছু ক্রিকেটাররাই এই হ্যাট পরে মাঠে নামতেন। যাঁর মধ্যে অন্যতম হল রিচি রিচার্ডসন। ১৯৮৩ সালে নিজের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের কেরিয়ার শুরু করেছিলেন ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটার রিচি। আর প্রথম থেকেই তাঁর পড়নে ছিল ফ্লফি হ্যাট।

ইংল্যান্ডের ক্রিকেটার জ্যাক রাসেল। ক্রিকেট কেরিয়ারের শুরু থেকেই গোল টুপিকেই এক কথায় ভরসা করে মাঠে নামতেন ইংল্যান্ড ক্রিকেটার। তারপর ইংল্যান্ডের নীল জার্সি গায়েও ফ্লফি হ্যাট পরেই দেখা যেত এই ক্রিকেটারকে।

ইংল্যান্ডের ক্রিকেটার জ্যাক রাসেল। ক্রিকেট কেরিয়ারের শুরু থেকেই গোল টুপিকেই এক কথায় ভরসা করে মাঠে নামতেন ইংল্যান্ড ক্রিকেটার। তারপর ইংল্যান্ডের নীল জার্সি গায়েও ফ্লফি হ্যাট পরেই দেখা যেত এই ক্রিকেটারকে।

১৯৯৬ সালে ইউএই দলের অধিনায়ক ছিলেন সুলতান জারাওয়ানি। পেস বোলার থেকে শুরু করে স্পিনার হেলমেট নিয়ে মাঠে ব্যাট করতে না নামলেও এই ক্রিকেটারকে সব সময় দেখা যেত ফ্লফি হ্যাটে। ব্যাট ও ফিল্ডিংয়ে এই ক্রিকেটারের পড়নে থাকতো ফ্লফি হ্যাট।

১৯৯৬ সালে ইউএই দলের অধিনায়ক ছিলেন সুলতান জারাওয়ানি। পেস বোলার থেকে শুরু করে স্পিনার হেলমেট নিয়ে মাঠে ব্যাট করতে না নামলেও এই ক্রিকেটারকে সব সময় দেখা যেত ফ্লফি হ্যাটে। ব্যাট ও ফিল্ডিংয়ে এই ক্রিকেটারের পড়নে থাকতো ফ্লফি হ্যাট।

বল হাতে ভেলকি দেখিয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার স্পিনার শেন ওয়ার্ন। একই সঙ্গে মাঠের বাইরে তাঁর গল্প বেশ রোমাঞ্চকর। সেই ডানহাতি লেগ স্পিনারের পড়নেও সব সময় থাকতো ফ্লফি হ্যাট। আর এই ফ্লফি হ্যাটই ছিল অজি স্পিনারের ফেভারিট। এমনটাও জানিয়েছেন ওয়ার্ন।

বল হাতে ভেলকি দেখিয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার স্পিনার শেন ওয়ার্ন। একই সঙ্গে মাঠের বাইরে তাঁর গল্প বেশ রোমাঞ্চকর। সেই ডানহাতি লেগ স্পিনারের পড়নেও সব সময় থাকতো ফ্লফি হ্যাট। আর এই ফ্লফি হ্যাটই ছিল অজি স্পিনারের ফেভারিট। এমনটাও জানিয়েছেন ওয়ার্ন।

ভারতীয় ক্রিকেটের লিটিল মাস্টার বলা হতো মুম্বইয়ের ব্যাটসম্যান সুনীল গাভাসকরকে। ব্যাট হাতে ভারতের হতে অন্যতম ভরসা ছিলেন গাভাসকর। আর সেই সঙ্গে এই ভারতীয় ব্যাটসম্যানেরও ফেভারিট ছিল ফ্লফি হ্যাট। গোল টুপি পরেই ব্যাট করতে নামতেন গাভাসকর। সবার চেয়ে একটু আলাদা ভাবেই দেখা যেত এই ভারতীয়কে।

ভারতীয় ক্রিকেটের লিটিল মাস্টার বলা হতো মুম্বইয়ের ব্যাটসম্যান সুনীল গাভাসকরকে। ব্যাট হাতে ভারতের হতে অন্যতম ভরসা ছিলেন গাভাসকর। আর সেই সঙ্গে এই ভারতীয় ব্যাটসম্যানেরও ফেভারিট ছিল ফ্লফি হ্যাট। গোল টুপি পরেই ব্যাট করতে নামতেন গাভাসকর। সবার চেয়ে একটু আলাদা ভাবেই দেখা যেত এই ভারতীয়কে।

পুরুষ ক্রিকেটারদের পাশাপাশি এই মুহূর্তে ক্রিকেট মাঠে সক্রিয় ভূমিকা পালন করেন মহিলা ক্রিকেটাররাও। আর তাঁর মধ্যেই রয়েছেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মিতালি রাজ। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের শুরু থেকেই মিতালিকে দেখা যায় এই বেশে। মাথায় গোল টুপি পরেই ব্যাট করেন মিতালি। একই সঙ্গে ফিল্ডিংয়ের সময়ও মিতালির মাথায় থাকেই এই হ্যাট।

পুরুষ ক্রিকেটারদের পাশাপাশি এই মুহূর্তে ক্রিকেট মাঠে সক্রিয় ভূমিকা পালন করেন মহিলা ক্রিকেটাররাও। আর তাঁর মধ্যেই রয়েছেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মিতালি রাজ। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের শুরু থেকেই মিতালিকে দেখা যায় এই বেশে। মাথায় গোল টুপি পরেই ব্যাট করেন মিতালি। একই সঙ্গে ফিল্ডিংয়ের সময়ও মিতালির মাথায় থাকেই এই হ্যাট।

loader