বাঙালিদের সঙ্গে প্রবল মিল এই অভিনেত্রীর, তাঁর গোপন বিয়ে নিয়ে তোলপাড় চলচ্চিত্র জগত

First Published 22, Mar 2020, 12:07 AM IST

ফুল ফুটুক বা নাই ফুটুক, আজই বসন্ত- অনেকটা এমনই গোছরের ভাব আনা যায় অমলা পাল-এর ক্ষেত্রে। কারণ তাঁর নাম ও পদবি। দুটোর সঙ্গে বাঙালিদের বহু মিল। তাঁর  বংশ পরম্পরার কথা জানতে গেলে অবশ্য বাঙালিত্বের হদিস পাওয়া যায় না। যে সব বাঙালি দক্ষিণ ভারতের শহরগুলিতে দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করছে এবং দক্ষিণ ভারতীয় ছবির সঙ্গে এঁদের মধ্যে যারা পরিচিত তাঁরা সকলেই অমলা পালের নাম জানেন। আর অমলার নাম এবং পদবি-তে বাঙালিত্বের ছোঁয়া পান। তাই এঁদের অনেকেরই বিশ্বাস অমলা একজন বাঙালি কন্যা। বলতে  গেলে ফুল না ফুটলেও যেমন বসন্ত বলে তাকে বিবেচিত করা হয়, তেমনি অমলা বাঙালি হলেন বা না হলে, তাতে কিছু যায় আসে না কারোর। তবে, হ্যাঁ, বাঙালি হলেও হতে পারে এমনটা ভাবা যেতেই পারে। এহেন অমলা চমকে দিয়েছেন সকলকে তাঁর গোপন বিয়ে-কে প্রকাশ্যে এনে। 

কয়েক সপ্তাহ আগেই প্রেমিক ভাবনিন্দর সিং-এর সঙ্গে অমলার এক ঘনিষ্ঠ ছবি প্রকাশ্যে এসেছিল। এই নিয়ে তোলপাড় হয়েছিল ইন্টারনেট। কারণ ছবিটা অমলা ও ভাবনিন্দরের চরম ব্যক্তিগত। এহেন অমলা ফের একবার বিয়ে করলেন।

কয়েক সপ্তাহ আগেই প্রেমিক ভাবনিন্দর সিং-এর সঙ্গে অমলার এক ঘনিষ্ঠ ছবি প্রকাশ্যে এসেছিল। এই নিয়ে তোলপাড় হয়েছিল ইন্টারনেট। কারণ ছবিটা অমলা ও ভাবনিন্দরের চরম ব্যক্তিগত। এহেন অমলা ফের একবার বিয়ে করলেন।

অমলা তাঁর বিয়ের খবর এক্কেবারে ফাঁস হতে দেননি। সব মিটে যাওয়ার পরে স্বামী ভাবনিন্দর ইনস্টাগ্রামে ছবি পোস্ট করতেই সামনে আসে বিষয়টি। জানা যায় গোপনে চারহাত এক করেছেন অমলা ও ভাবনিন্দর। ছবি পোস্ট করার পর ভাবনিন্দর লেখেন- 'ওয়েডিং পিকস#থ্রোব্যাক(সিক)'। এই ছবিগুলি ভাইরাল হতেই তা ডিলিট করে দেন ভাবনিন্দর।

অমলা তাঁর বিয়ের খবর এক্কেবারে ফাঁস হতে দেননি। সব মিটে যাওয়ার পরে স্বামী ভাবনিন্দর ইনস্টাগ্রামে ছবি পোস্ট করতেই সামনে আসে বিষয়টি। জানা যায় গোপনে চারহাত এক করেছেন অমলা ও ভাবনিন্দর। ছবি পোস্ট করার পর ভাবনিন্দর লেখেন- 'ওয়েডিং পিকস#থ্রোব্যাক(সিক)'। এই ছবিগুলি ভাইরাল হতেই তা ডিলিট করে দেন ভাবনিন্দর।

ভাবনিন্দর অবশ্য ততক্ষণে অনেকটাই দেরি করে ফেলেছিলেন। কারণ, নেটিজেনদের দৌলতে সেই সব ছবি তখন ছড়িয়ে পড়েছে নেট দুনিয়ায়। এমনকী অমলার বহু ফ্যান পেজেও সেগুলি আপলোড হয়ে যায়। সূত্রের খবর এই ছবিগুলি ভাইরাল হতেই অমলা নিজের ঘনিষ্ঠ মহলে স্বীকার করেন যে এটা একটা গোপন বিয়ে। যার কথা কেউ জানে না। আর সেই কারণেই তাঁরা প্রকাশ্যে তাঁদের মধ্যে সম্পর্কের কথা স্বীকার করেননি বলেই নাকি জানিয়েছেন অমলা।

ভাবনিন্দর অবশ্য ততক্ষণে অনেকটাই দেরি করে ফেলেছিলেন। কারণ, নেটিজেনদের দৌলতে সেই সব ছবি তখন ছড়িয়ে পড়েছে নেট দুনিয়ায়। এমনকী অমলার বহু ফ্যান পেজেও সেগুলি আপলোড হয়ে যায়। সূত্রের খবর এই ছবিগুলি ভাইরাল হতেই অমলা নিজের ঘনিষ্ঠ মহলে স্বীকার করেন যে এটা একটা গোপন বিয়ে। যার কথা কেউ জানে না। আর সেই কারণেই তাঁরা প্রকাশ্যে তাঁদের মধ্যে সম্পর্কের কথা স্বীকার করেননি বলেই নাকি জানিয়েছেন অমলা।

দীর্ঘদিন ধরেই অমলা ও ভাবনিন্দর সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন বলে খবর। কম করেও এই সম্পর্কের বয়স কয়েক বছর বলেই মনে করা হচ্ছে। বর্তমানে দুজনেই মুম্বইয়ে লিভ-ইন রিলেশনে আছেন বলেও গুঞ্জন।

দীর্ঘদিন ধরেই অমলা ও ভাবনিন্দর সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন বলে খবর। কম করেও এই সম্পর্কের বয়স কয়েক বছর বলেই মনে করা হচ্ছে। বর্তমানে দুজনেই মুম্বইয়ে লিভ-ইন রিলেশনে আছেন বলেও গুঞ্জন।

তবে তাঁর জীবনে এক স্পেশাল মানুষ যে আছে তা একবার ছবির প্রচারে গিয়ে স্বীকার করেছিলেন অমলা। জানিয়েছিলেন তাঁর কাজের সাফল্য তিনি একটা মানুষকে উৎসর্গ করতে চান যে তাঁকে এই রাস্তায় নিয়ে এসেছে। এমন ভালোবাসা একমাত্র মা-ই দিতে পারে। কিন্তু, তাঁর মনের মানুষটির কাছ থেকে যে এত প্রবল ভালোবাসা পাবেন তা নাকি কল্পনাও করতে পারেননি অমলা।

তবে তাঁর জীবনে এক স্পেশাল মানুষ যে আছে তা একবার ছবির প্রচারে গিয়ে স্বীকার করেছিলেন অমলা। জানিয়েছিলেন তাঁর কাজের সাফল্য তিনি একটা মানুষকে উৎসর্গ করতে চান যে তাঁকে এই রাস্তায় নিয়ে এসেছে। এমন ভালোবাসা একমাত্র মা-ই দিতে পারে। কিন্তু, তাঁর মনের মানুষটির কাছ থেকে যে এত প্রবল ভালোবাসা পাবেন তা নাকি কল্পনাও করতে পারেননি অমলা।

কোচির মেয়ে অমলা। তিনি একটি স্ক্রিস্টান পরিবারের প্রতিনিধিত্ব করেন। কলেজে পড়ার সময় মডেলিং শুরু করেছিলেন। মডেলিং-এর পোর্টফোলিও পৌঁছেছিলো ছবির পরিচালকের হাতে। সেখানে ডাক পেয়ে অডিসন দিয়ে অভিনেত্রী হিসাবে নির্বাচিত হয়েছিলেন অমলা।

কোচির মেয়ে অমলা। তিনি একটি স্ক্রিস্টান পরিবারের প্রতিনিধিত্ব করেন। কলেজে পড়ার সময় মডেলিং শুরু করেছিলেন। মডেলিং-এর পোর্টফোলিও পৌঁছেছিলো ছবির পরিচালকের হাতে। সেখানে ডাক পেয়ে অডিসন দিয়ে অভিনেত্রী হিসাবে নির্বাচিত হয়েছিলেন অমলা।

পড়াশোনায় মেধাবী অমলার-র সিনেমায় নামাটা পছন্দ করেননি তাঁর বাবা। প্রায় সম্পর্ক ত্যাগ করেছিলেন তিনি। অমলা অবশ্য নিজের ইচ্ছেকে ঝুঁকতে দেননি। ২০০৯ সালে তিনি দক্ষিণী ছবি-তে অভিষেক ঘটান। এরপর বহু ছবি-তে অভিনয় করেছেন অমলা।

পড়াশোনায় মেধাবী অমলার-র সিনেমায় নামাটা পছন্দ করেননি তাঁর বাবা। প্রায় সম্পর্ক ত্যাগ করেছিলেন তিনি। অমলা অবশ্য নিজের ইচ্ছেকে ঝুঁকতে দেননি। ২০০৯ সালে তিনি দক্ষিণী ছবি-তে অভিষেক ঘটান। এরপর বহু ছবি-তে অভিনয় করেছেন অমলা।

২০১৪ সালে অমলা চেন্নাইয়ে তামিল ছবির পরিচালক ও প্রোযোজক এএল বিজয়-কে বিয়ে করেন। কিন্তু দাম্পর্ত্যের বয়স এক বছর পূরণ হতে না হয়তেই সম্পর্কে ঘূণ ধরে। এরপর আস্তে আস্তে স্বামীর ঘর ছাড়েন অমলা। বিবাহ বিচ্ছেদ হতে সময় লাগেনি। ২০১৭ সালে পাকাপাকিভাবে বিচ্ছেদ ঘটে এই সম্পর্কের।

২০১৪ সালে অমলা চেন্নাইয়ে তামিল ছবির পরিচালক ও প্রোযোজক এএল বিজয়-কে বিয়ে করেন। কিন্তু দাম্পর্ত্যের বয়স এক বছর পূরণ হতে না হয়তেই সম্পর্কে ঘূণ ধরে। এরপর আস্তে আস্তে স্বামীর ঘর ছাড়েন অমলা। বিবাহ বিচ্ছেদ হতে সময় লাগেনি। ২০১৭ সালে পাকাপাকিভাবে বিচ্ছেদ ঘটে এই সম্পর্কের।

অমলার বর্তমান স্বামী ভাবনিন্দরের পোস্টে নেটিজেনরা অন্য ধরনের ঘটনাার গন্ধ পাচ্ছেন। অনেকেই মনে করছেন অমলা ও ভাবনিন্দর বহু বছর আগেই গোপনে বিয়েটা সেরেছিলেন। বিবাহ বিচ্ছেদের মামলার নিস্পত্তি না হওয়ায় তা প্রকাশ্যে আনতে চাননি অমলা।

অমলার বর্তমান স্বামী ভাবনিন্দরের পোস্টে নেটিজেনরা অন্য ধরনের ঘটনাার গন্ধ পাচ্ছেন। অনেকেই মনে করছেন অমলা ও ভাবনিন্দর বহু বছর আগেই গোপনে বিয়েটা সেরেছিলেন। বিবাহ বিচ্ছেদের মামলার নিস্পত্তি না হওয়ায় তা প্রকাশ্যে আনতে চাননি অমলা।

তবে সূত্রের খবর অমলা ও ভাবনিন্দরের বিয়ের এই ছবি বেশি পুরাতন নয়। কিন্তু কেন বিয়ের কথা লুকিয়ে রেখেছিলেন অমলা ও ভাবনিন্দর, তার কোনও উত্তর পাওয়া যায়নি।

তবে সূত্রের খবর অমলা ও ভাবনিন্দরের বিয়ের এই ছবি বেশি পুরাতন নয়। কিন্তু কেন বিয়ের কথা লুকিয়ে রেখেছিলেন অমলা ও ভাবনিন্দর, তার কোনও উত্তর পাওয়া যায়নি।

loader