মেসির ব্যক্তিগত জীবনের কিছু মূহুর্ত, যা বরাবর ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়

First Published 7, Apr 2020, 12:19 PM

করোনা ভাইরাসের জেরে গৃহবন্দি ক্রীড়া ব্যক্তিত্বরা। পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন লিও মেসিও। আতঙ্কের মাঝে দেখে নেওয়া যাক মেসির পরিবারের সঙ্গে কাটানো কিছু মন ভালো করা মূহুর্ত। যা বার বার মন জয় করেছে মেসি অনুগামীদের।
 

আধুনিক ফুটবলের যাদুকর তিনি। ভেঙেছেন একের পর এক রেকর্ড। মাত্র ৩২ বছর বয়সে ৬টি ব্যালন ডি-অর জিতেছেন লিও মেসি। যা এখনও পর্যন্ত সর্বাধিক। খেলার অবসরে পরিবারের সঙ্গেই সময় কাটাতে পছন্দ করেন মেসি।

আধুনিক ফুটবলের যাদুকর তিনি। ভেঙেছেন একের পর এক রেকর্ড। মাত্র ৩২ বছর বয়সে ৬টি ব্যালন ডি-অর জিতেছেন লিও মেসি। যা এখনও পর্যন্ত সর্বাধিক। খেলার অবসরে পরিবারের সঙ্গেই সময় কাটাতে পছন্দ করেন মেসি।

বর্তমানে তিন সন্তান নিয়ে সুখের পরিবার মেসির। ফুটবল থেকে বিশ্রাম পেলেই পরিবারকে নিয়ে বেরিয়ে যান ঘুরতে। মাঠে পারফেক্ট প্লেয়ারের পাশাপাশি স্বামী ও বাবা হিসেবেও পারফেক্ট লিও।

বর্তমানে তিন সন্তান নিয়ে সুখের পরিবার মেসির। ফুটবল থেকে বিশ্রাম পেলেই পরিবারকে নিয়ে বেরিয়ে যান ঘুরতে। মাঠে পারফেক্ট প্লেয়ারের পাশাপাশি স্বামী ও বাবা হিসেবেও পারফেক্ট লিও।

একনিষ্ঠ মনোভাবের জন্যই ৩২ বছরের এই খেলোয়ার আজ নিজেকে এই পর্যায়ে নিয়ে গিয়েছেন। সহধর্মিনী আন্তলিনা রকুজোর তার সাফল্যের অন্যতম চাবিকাঠি বলে বারবার স্বাকীর করেছেন মেসি। ১৯৯৬ সাল থেকেই আন্তলিনা রকুজোর সঙ্গে আলাপ মেসির।

একনিষ্ঠ মনোভাবের জন্যই ৩২ বছরের এই খেলোয়ার আজ নিজেকে এই পর্যায়ে নিয়ে গিয়েছেন। সহধর্মিনী আন্তলিনা রকুজোর তার সাফল্যের অন্যতম চাবিকাঠি বলে বারবার স্বাকীর করেছেন মেসি। ১৯৯৬ সাল থেকেই আন্তলিনা রকুজোর সঙ্গে আলাপ মেসির।

বিয়ের আগে থেকেই বান্ধবীর সঙ্গে নিবিড় সম্পর্ক মেসির। মেসির দুটি সন্তানের জন্মও হয় বিয়ের আগে। বিয়ের পিঁড়িতে বসার আগে থেকেই সুখী দাম্পত্য জীবন কাটাতেন লিও।

বিয়ের আগে থেকেই বান্ধবীর সঙ্গে নিবিড় সম্পর্ক মেসির। মেসির দুটি সন্তানের জন্মও হয় বিয়ের আগে। বিয়ের পিঁড়িতে বসার আগে থেকেই সুখী দাম্পত্য জীবন কাটাতেন লিও।

বিয়ের আগেই বান্ধবী আন্তলিনা রকুজোর সঙ্গে একান্তে সময় কাটাতে ভালবাসেন লিও মেসি। ঠাসা ফুটবল কর্মসূচির বাইরে সময় পেলেই বেরিয়ে পড়তেন বান্ধবীকে নিয়ে। যেই ছবি বার বার ভাইরাল হয়েছে সোশাল মিডিয়ায়।

বিয়ের আগেই বান্ধবী আন্তলিনা রকুজোর সঙ্গে একান্তে সময় কাটাতে ভালবাসেন লিও মেসি। ঠাসা ফুটবল কর্মসূচির বাইরে সময় পেলেই বেরিয়ে পড়তেন বান্ধবীকে নিয়ে। যেই ছবি বার বার ভাইরাল হয়েছে সোশাল মিডিয়ায়।

সমুদ্র তটে ঘুরে বেড়ানো মেসির বরাবরই খুব প্রিয়। তাই যখনই সময় পেয়েছেন বান্ধবীকে নিয়ে বেরিয়ে পড়েন পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তের সমুদ্র তটে।

সমুদ্র তটে ঘুরে বেড়ানো মেসির বরাবরই খুব প্রিয়। তাই যখনই সময় পেয়েছেন বান্ধবীকে নিয়ে বেরিয়ে পড়েন পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তের সমুদ্র তটে।

দীর্ঘ সময় প্রেমের পর ২০১৭ সালের ৩০ জুন বান্ধবী আন্তলিনা রকুজোকে বিয়ে করেন মেসি। জাঁকজমক পূর্ণ বিবাহ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিশ্বের তাবড় তাবড় প্লেয়াররা। বিয়ের সময় মেসি ও তার বান্ধবীর চুম্বনের ছবি এখনও ঝড় তোলে সোশাল মিডিয়ায়।

দীর্ঘ সময় প্রেমের পর ২০১৭ সালের ৩০ জুন বান্ধবী আন্তলিনা রকুজোকে বিয়ে করেন মেসি। জাঁকজমক পূর্ণ বিবাহ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিশ্বের তাবড় তাবড় প্লেয়াররা। বিয়ের সময় মেসি ও তার বান্ধবীর চুম্বনের ছবি এখনও ঝড় তোলে সোশাল মিডিয়ায়।

বিয়ের পরও স্ত্রীকে নিয়ে একাধিক জায়গায় হানিমুনে যান লিও মেসি। সঙ্গে তাদের দুই সন্তনকেও নিয়ে যায়। হানিমুনে একান্ত অবস্থায় মেসি ও তার ছবি স্ত্রীর ছবি ভাইরাল হয় সোশাল মিডিয়ায়।

বিয়ের পরও স্ত্রীকে নিয়ে একাধিক জায়গায় হানিমুনে যান লিও মেসি। সঙ্গে তাদের দুই সন্তনকেও নিয়ে যায়। হানিমুনে একান্ত অবস্থায় মেসি ও তার ছবি স্ত্রীর ছবি ভাইরাল হয় সোশাল মিডিয়ায়।

বাড়িতে ফুটবল নিয়ে খুব  একটা আলোচনা করেন না মেসি। স্ত্রী ও পরিবারকে সময় দেন তখন। পরিবার মেসিকে যা দিয়েছে তা কোনও ট্রফির থেকেও বেশি বলে জানিয়েছেন মেসি।

বাড়িতে ফুটবল নিয়ে খুব একটা আলোচনা করেন না মেসি। স্ত্রী ও পরিবারকে সময় দেন তখন। পরিবার মেসিকে যা দিয়েছে তা কোনও ট্রফির থেকেও বেশি বলে জানিয়েছেন মেসি।

আগামী দিনেও এই ভাবেই সুখে দিন কাটুক মেসি ও তার পরিবারের জীবন। ফুটবল জীবনেও আসে যেন আরও সাফল্য। শুভকামনা বিশ্ব জুড়ে থাকা কোটি কোটি মেসি অনুগামীদের।

আগামী দিনেও এই ভাবেই সুখে দিন কাটুক মেসি ও তার পরিবারের জীবন। ফুটবল জীবনেও আসে যেন আরও সাফল্য। শুভকামনা বিশ্ব জুড়ে থাকা কোটি কোটি মেসি অনুগামীদের।

করোনা ভাইরাস নিয়েও বার্তা দিয়েছেন লিওনেল মেসি। স্বাস্থ্য সবার আগে বলে জানিয়েছেন এল এম টেন। এই পরিস্থিতে সকলকে দায়িত্বজ্ঞান সম্পন্ন হওয়ার আবেদন। সকলকে ঘরের থাকার পরামর্শ লিওর।  করোনা মোকাবিলায় ইতিমধ্যেই এক মিলিয়ন ইউরো দান করেছেন বার্সেলোনার তারকা ফরওয়ার্ড।

করোনা ভাইরাস নিয়েও বার্তা দিয়েছেন লিওনেল মেসি। স্বাস্থ্য সবার আগে বলে জানিয়েছেন এল এম টেন। এই পরিস্থিতে সকলকে দায়িত্বজ্ঞান সম্পন্ন হওয়ার আবেদন। সকলকে ঘরের থাকার পরামর্শ লিওর। করোনা মোকাবিলায় ইতিমধ্যেই এক মিলিয়ন ইউরো দান করেছেন বার্সেলোনার তারকা ফরওয়ার্ড।

loader