প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে গ্রিন টিতে যুক্ত করুন এই উপাদানগুলি, মিলবে অনেক সুবিধা

First Published 10, Sep 2020, 2:45 PM

গ্রিন টি তার অগণিত স্বাস্থ্য সুবিধার কারণে অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি পানীয়। এতে প্রচুর অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট রয়েছে। যা দুর্দান্ত ডিটক্স পানীয় হিসেবে কাজ করে। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে গ্রিন টিতে প্রচুর পরিমাণে পলিফেনল রয়েছে। এটি আমাদের দেহে বহু সমস্যা দূর করে সতেজ রাখতে সাহায্য করে। নিয়মিত গ্রিন টি পানের ফলে হজমশক্তি বৃদ্ধি পায়, ওজন কমাতে, কোলেস্টেরলের ভারসাম্য বজায় রাখতে এবং স্ট্যামিনা প্রতিরোধ শক্তিশালী করতে কাজ করতে সক্ষম। পলিফেনল এবং ফ্ল্যাভোনয়েডের কারণে গ্রিন টি প্রদাহ, সর্দি- ঠান্ডা এবং ফ্লু থেকে রক্ষা করে।

<p><strong>গ্রীনটিতে দারচিনি ও হলুদ এর উপকারিতা-</strong></p>

<p>স্বাস্থ্যকর চা তৈরির টিপসগুলির মধ্যে দারুচিনি ও হলুদ জাতীয় মশলা যুক্ত করার পরামর্শ দেয় বিশেষজ্ঞরা। হলুদ-দারুচিনি মিশিয়ে গ্রিন টি সেবন করে দ্রুত ওজন হ্রাস করে হজম ও বিপাকীয় ক্ষমতা বাড়ানোয় সাহায্য করে।&nbsp;</p>

গ্রীনটিতে দারচিনি ও হলুদ এর উপকারিতা-

স্বাস্থ্যকর চা তৈরির টিপসগুলির মধ্যে দারুচিনি ও হলুদ জাতীয় মশলা যুক্ত করার পরামর্শ দেয় বিশেষজ্ঞরা। হলুদ-দারুচিনি মিশিয়ে গ্রিন টি সেবন করে দ্রুত ওজন হ্রাস করে হজম ও বিপাকীয় ক্ষমতা বাড়ানোয় সাহায্য করে। 

<p><strong>হলুদের স্বাস্থ্য উপকারীতা-</strong></p>

<p>হলুদে পাওয়া কারকুমিন স্বাস্থ্যের পক্ষে উপকারী। এটি অ্যান্টি-অক্সিডেন্টস, অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি এবং নিরাময়ের বৈশিষ্ট্যে পূর্ণ। ডায়েটে দেশীয় মশলা অন্তর্ভুক্ত করা প্রতিরোধ-স্বাস্থ্যকে শক্তিশালী করে এবং সর্দি সহ ফ্লু নিরাময় সাহায্য করে। লিভারকে ডিটক্স করে তোলে।<br />
&nbsp;</p>

হলুদের স্বাস্থ্য উপকারীতা-

হলুদে পাওয়া কারকুমিন স্বাস্থ্যের পক্ষে উপকারী। এটি অ্যান্টি-অক্সিডেন্টস, অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি এবং নিরাময়ের বৈশিষ্ট্যে পূর্ণ। ডায়েটে দেশীয় মশলা অন্তর্ভুক্ত করা প্রতিরোধ-স্বাস্থ্যকে শক্তিশালী করে এবং সর্দি সহ ফ্লু নিরাময় সাহায্য করে। লিভারকে ডিটক্স করে তোলে।
 

<p><strong>দারুচিনির স্বাস্থ্য উপকারিতা</strong></p>

<p>এই সাধারণ রান্নাঘরের মশালা ঐতিহ্যবাহী ঔষুধের তালিকায় বরাবরা নিজের জায়গা করে রেখেছে। দারুচিনি কোষের ক্ষতিকারী অংশ থেকে দেহকে রক্ষা করে। এগুলি ছাড়াও ঘরোয়া মশলা সংক্রমণ, ওজন হ্রাস এবং ডায়াবেটিসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সহায়ক বলে প্রমাণিত হয়। কিছু ক্ষেত্রে ব্যথা উপশমকারী হিসাবেও কাজ করে।</p>

দারুচিনির স্বাস্থ্য উপকারিতা

এই সাধারণ রান্নাঘরের মশালা ঐতিহ্যবাহী ঔষুধের তালিকায় বরাবরা নিজের জায়গা করে রেখেছে। দারুচিনি কোষের ক্ষতিকারী অংশ থেকে দেহকে রক্ষা করে। এগুলি ছাড়াও ঘরোয়া মশলা সংক্রমণ, ওজন হ্রাস এবং ডায়াবেটিসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সহায়ক বলে প্রমাণিত হয়। কিছু ক্ষেত্রে ব্যথা উপশমকারী হিসাবেও কাজ করে।

<p><strong>হলুদ-দারুচিনি-সবুজ চা এর উপকরণ&nbsp;</strong></p>

<p>১.৫ চামচ গ্রিন টি পাতা, এক তৃতীয়াংশ চা চামচ দারুচিনি গুঁড়ো, এক তৃতীয়াংশ হলুদের গুঁড়ো, স্বাদ অনুযায়ী দুটি পুদিনা পাতা এবং মধু, দেড় কাপ জল।</p>

হলুদ-দারুচিনি-সবুজ চা এর উপকরণ 

১.৫ চামচ গ্রিন টি পাতা, এক তৃতীয়াংশ চা চামচ দারুচিনি গুঁড়ো, এক তৃতীয়াংশ হলুদের গুঁড়ো, স্বাদ অনুযায়ী দুটি পুদিনা পাতা এবং মধু, দেড় কাপ জল।

<p>প্রথমে জল ভালভাবে গরম করে নিয়ে, আঁচ বন্ধ করে তাতে গ্রিন টি পাতা এবং পুদিনা পাতা দিয়ে দিন। ঢাকনাটি বন্ধ করে ৫-৬ মিনিটের জন্য রেখে দিন।</p>

প্রথমে জল ভালভাবে গরম করে নিয়ে, আঁচ বন্ধ করে তাতে গ্রিন টি পাতা এবং পুদিনা পাতা দিয়ে দিন। ঢাকনাটি বন্ধ করে ৫-৬ মিনিটের জন্য রেখে দিন।

<p>এরপর কাপে ঢেলে নিয়ে কিছুটা মধু দিয়ে মিশিয়ে নিয়ে তারপরে চা পান করুন।</p>

এরপর কাপে ঢেলে নিয়ে কিছুটা মধু দিয়ে মিশিয়ে নিয়ে তারপরে চা পান করুন।

loader