ইনসোমনিয়া থেকে ফ্যাট বার্নিং, মাত্র ৭ দিনেই ম্যাজিক দেখাবে ডিটক্স ডায়েট

First Published 5, Sep 2020, 1:35 PM

প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় যদি ব্যালেন্স মেনে চলেন, তা হলে ডিটক্স ডায়েট করার কোনও প্রয়োজন থাকে না। ডিটক্স ডায়েট-এর মাধ্যমে শরীরের অতিরিক্ত টক্সিন বা বর্জ্য নদার্থ শরীর থেকে টেনে বের করে দেয়। এই পক্রিয়াকে বলা হয়  ডিটক্সিফিকেশন। তাই প্রতিদিনের ডায়েটে যথাযথ মাত্রায় প্রোটিন, ভিটামিন, মিনারেল, কার্বোহাইড্রেট থাকলে আপনি এমনিই সুস্থ থাকবেন।  টক্সিন মূলত,ঘাম বা মল-মূত্র ত্যাগের মাধ্যমে শরীর থেকে নির্গত হয়। তবে যদি শরীর যথেষ্ট পরিমানে বিশ্রাম না পায়, ভালো ঘুম না হয় তবে শরীর চনমনে রাখতে এই ডিটক্স ডায়েট ট্রাই করে দেখতে পারেন।

<p>ডিটক্স ডায়েট যে শুধু ওজন কমাতে সাহায্য করে তা একেবারেই নয়। ত্বক থেকে শুরু করে চুলের যাবতীয় সমস্যা সমাধানে সাহায্য করে ডিটক্স ডায়েট। তবে এই ডায়েট হল লিকুইড ডায়েট। জেনে নেওয়া যাক কি ভাবে মেনে চলবেন এই ডায়েট।</p>

ডিটক্স ডায়েট যে শুধু ওজন কমাতে সাহায্য করে তা একেবারেই নয়। ত্বক থেকে শুরু করে চুলের যাবতীয় সমস্যা সমাধানে সাহায্য করে ডিটক্স ডায়েট। তবে এই ডায়েট হল লিকুইড ডায়েট। জেনে নেওয়া যাক কি ভাবে মেনে চলবেন এই ডায়েট।

<p>ডিটক্স ডায়েট লিক্যুয়িড ডায়েট হলেও, এই ডায়েটে খাদ্য তালিকায় থাকে শাকসবজি ও ফল। ডালের স্যুপ বা যে কোনও ক্লিয়ার স্যুপও রাখতে পারেন এই ডায়েটে। তবে এই ডায়েটে থাকাকালীন একেবারে চিনি, ডেয়ারি প্রডাক্ট ও কার্বোহাইড্রেট &nbsp;থেকে।</p>

ডিটক্স ডায়েট লিক্যুয়িড ডায়েট হলেও, এই ডায়েটে খাদ্য তালিকায় থাকে শাকসবজি ও ফল। ডালের স্যুপ বা যে কোনও ক্লিয়ার স্যুপও রাখতে পারেন এই ডায়েটে। তবে এই ডায়েটে থাকাকালীন একেবারে চিনি, ডেয়ারি প্রডাক্ট ও কার্বোহাইড্রেট  থেকে।

<p>এই ডায়েট দুই থেকে তিন দিনের বেশি করা যাবে না। না হলে উল্টো ফল হতে পারে। শরীরের যে সব টক্সিন বেরিয়ে যেতে পারে না, এই ডায়েটে সেই সব বর্জ্য শরীরের থেকে নির্গত করতে সাহায্য করে।</p>

এই ডায়েট দুই থেকে তিন দিনের বেশি করা যাবে না। না হলে উল্টো ফল হতে পারে। শরীরের যে সব টক্সিন বেরিয়ে যেতে পারে না, এই ডায়েটে সেই সব বর্জ্য শরীরের থেকে নির্গত করতে সাহায্য করে।

<p>এই ডায়েটে থাকাকালীন লিক্যুয়িড হিসেবে বেছে নিন টাটকা ফল এবং সবজির জুস বা স্মুদি। সেই সঙ্গে গ্রীন টি রাখতেই পারেন। এই চা শরীর ডিটক্সিফাই রাখতে সাহায্য করে।&nbsp;</p>

এই ডায়েটে থাকাকালীন লিক্যুয়িড হিসেবে বেছে নিন টাটকা ফল এবং সবজির জুস বা স্মুদি। সেই সঙ্গে গ্রীন টি রাখতেই পারেন। এই চা শরীর ডিটক্সিফাই রাখতে সাহায্য করে। 

<p>এই ডায়েটে থাকাকালীন জলের বদলে পান করুন সল্টেড ওয়াটার বা লেমন ওয়াটার। সেই সঙ্গে অবশ্যই করতে হবে যোগ বা এক্সারসাইজ। বিশেষজ্ঞদের মতে, এই ডায়েটে থাকলে আরও বেশি এনার্জেটিক এবং কাজে ফোকাসড থাকা যায়।</p>

এই ডায়েটে থাকাকালীন জলের বদলে পান করুন সল্টেড ওয়াটার বা লেমন ওয়াটার। সেই সঙ্গে অবশ্যই করতে হবে যোগ বা এক্সারসাইজ। বিশেষজ্ঞদের মতে, এই ডায়েটে থাকলে আরও বেশি এনার্জেটিক এবং কাজে ফোকাসড থাকা যায়।

<p>ডিটক্স ডায়েটে থাকলে লেপ্টিন লেভেল সার্কুলেশন, বিএমআই, ইনসুলিন রেজিস্ট্যান্স, বডি ফ্যাট পার্সেন্টেজ-এর মত বিষয়গুলিতে তাৎক্ষণিকভাবে তফাৎটা চোখে পড়ার মত। বেশ কিছু ক্ষেত্রেই এই ডায়েটে থাকার প্রথম দিকেই দ্রুত ওজন কম যাওয়ার ঘটনাও ঘটেছে।<br />
&nbsp;</p>

ডিটক্স ডায়েটে থাকলে লেপ্টিন লেভেল সার্কুলেশন, বিএমআই, ইনসুলিন রেজিস্ট্যান্স, বডি ফ্যাট পার্সেন্টেজ-এর মত বিষয়গুলিতে তাৎক্ষণিকভাবে তফাৎটা চোখে পড়ার মত। বেশ কিছু ক্ষেত্রেই এই ডায়েটে থাকার প্রথম দিকেই দ্রুত ওজন কম যাওয়ার ঘটনাও ঘটেছে।
 

<p>এই ডায়েটে থাকার উপকারিতা হল, স্ট্রেসের কারণে যাদের রাতে ঘুম কম হয়, এই ডায়েটে থাকলে সেই সমস্যার সমাধান হয় সহজেই। ডিটক্স ডায়েট রাতের ঘুম গাঢ় করে, ফলে শরীর চনমনে থাকে। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাল বৃদ্ধি পায়। ওবেসিটি, ফ্যাটিগ, হজম সংক্রান্ত সমস্যার সমাধান হয় সহজেই। শরীরে এন্টিঅক্সিডেন্ট এর যোগান বাড়িয়ে তোলে।&nbsp;</p>

এই ডায়েটে থাকার উপকারিতা হল, স্ট্রেসের কারণে যাদের রাতে ঘুম কম হয়, এই ডায়েটে থাকলে সেই সমস্যার সমাধান হয় সহজেই। ডিটক্স ডায়েট রাতের ঘুম গাঢ় করে, ফলে শরীর চনমনে থাকে। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাল বৃদ্ধি পায়। ওবেসিটি, ফ্যাটিগ, হজম সংক্রান্ত সমস্যার সমাধান হয় সহজেই। শরীরে এন্টিঅক্সিডেন্ট এর যোগান বাড়িয়ে তোলে। 

loader