লাদেখে চিনের ওপর নজরদারী বাড়াতে মরিয়া ভারত, আমেরিকার থেকে অস্ত্রবাহী ড্রোন কেনার পরিকল্পনা

First Published 29, Sep 2020, 4:22 PM

পূর্ব লাদাখ সেক্টরে উত্তেজনা কমার আপাতত কোনও সম্ভাবনা নেই। এই পরিস্থিতিতে দেশীয় প্রতিরক্ষা বাহিনীর শক্তি বাড়িতে তুলতে আরও তৎপর হচ্ছে ভারত। ভারতের সেনাবাহিনীর হাতে থাকা ইসরাইয়েলি হেরনকে আরও উন্নত করতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের থেকে অস্ত্রযুক্ত এমকিউ-৯বি স্কাই গার্ডিয়ান ড্রোন সংগ্রহ করার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। 
 

<p><strong>ভারত আরও ২২টি এমকিউ -৯বি স্কাই গার্ডিয়ান ড্রোন সংগ্রহ করতে চায়। পূর্ব লাদাখে চিনের সঙ্গে ক্রমবর্ধমান উত্তাপের পরিপ্রেক্ষিতে এই ড্রোনগুলি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা গ্রহণ করতে পারে বলেই মনে করছেন প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞরা।&nbsp;</strong><br />
&nbsp;</p>

ভারত আরও ২২টি এমকিউ -৯বি স্কাই গার্ডিয়ান ড্রোন সংগ্রহ করতে চায়। পূর্ব লাদাখে চিনের সঙ্গে ক্রমবর্ধমান উত্তাপের পরিপ্রেক্ষিতে এই ড্রোনগুলি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা গ্রহণ করতে পারে বলেই মনে করছেন প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞরা। 
 

<p><strong>আর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের থেকেই এই ড্রোনগুলি কেনার পরিকল্পনা নেওয়া হতে পারে।এই ড্রোনগুলির মাধ্যমে নজরদারী বাড়ানোর পাশাপাশি পরিধিও বাড়ানো যাবে।</strong></p>

আর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের থেকেই এই ড্রোনগুলি কেনার পরিকল্পনা নেওয়া হতে পারে।এই ড্রোনগুলির মাধ্যমে নজরদারী বাড়ানোর পাশাপাশি পরিধিও বাড়ানো যাবে।

<p><strong>পাশাপাশি ভারতের হাতে থাকা ইসরায়েলি হেরন উপগ্রহ যোগাযোগের ক্ষমতায় উন্নীত করার পরিকল্পাও নেওয়া হয়েছে। &nbsp;</strong><br />
&nbsp;</p>

পাশাপাশি ভারতের হাতে থাকা ইসরায়েলি হেরন উপগ্রহ যোগাযোগের ক্ষমতায় উন্নীত করার পরিকল্পাও নেওয়া হয়েছে।  
 

<p><strong>প্রতিরক্ষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থাকেই উৎসহ দেওয়া হয়েছে কৌশলগত ড্রোন আর অ্যান্টি ড্রোন তৈরির করার জন্য। সরকারি সংস্থার পাশাপাশি বিসরকারি ক্ষেত্রেও এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।&nbsp;</strong><br />
&nbsp;</p>

প্রতিরক্ষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থাকেই উৎসহ দেওয়া হয়েছে কৌশলগত ড্রোন আর অ্যান্টি ড্রোন তৈরির করার জন্য। সরকারি সংস্থার পাশাপাশি বিসরকারি ক্ষেত্রেও এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। 
 

<p><strong>ইতিমধ্যেই বিষয়টি নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। সূত্রের খবর ট্রাম্প প্রশাসন সর্বশেষ সশস্ত্র ড্রোন প্রযুক্তি সরবরাহ করতে রাজি হয়েছে।&nbsp;</strong></p>

ইতিমধ্যেই বিষয়টি নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। সূত্রের খবর ট্রাম্প প্রশাসন সর্বশেষ সশস্ত্র ড্রোন প্রযুক্তি সরবরাহ করতে রাজি হয়েছে। 

<p><strong>এমকিউ-৯বি ড্রোনগুলি অস্ত্র নির্মাণকারী সংস্থা জেনারেল অ্যাটমিক্স তৈরি করে।&nbsp;</strong><br />
&nbsp;</p>

এমকিউ-৯বি ড্রোনগুলি অস্ত্র নির্মাণকারী সংস্থা জেনারেল অ্যাটমিক্স তৈরি করে। 
 

<p><strong>এই ড্রোনগুলির বিশেষত্ব হল এটি ৪০ হাজার ফুট উঁচুতে উড়তে পারে। ৪০ ঘণ্টা পর্যন্ত উড়তে সক্ষম হয়। অস্ত্র নিয়ে এগুলি উড়তে পারে।&nbsp;</strong><br />
&nbsp;</p>

এই ড্রোনগুলির বিশেষত্ব হল এটি ৪০ হাজার ফুট উঁচুতে উড়তে পারে। ৪০ ঘণ্টা পর্যন্ত উড়তে সক্ষম হয়। অস্ত্র নিয়ে এগুলি উড়তে পারে। 
 

<p><strong>একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে এই ড্রোনগুলি এয়ার টু সারফেস অর্থাৎ বাতাল থেকে মাটিতে লক্ষ্য করে মিসাইল বা লেজার গাউডেড বোমা ফেলতে পারে। প্রায় আড়াই টনেরও বেশি অস্ত্র বহন করতে সক্ষম।&nbsp;</strong><br />
&nbsp;</p>

একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে এই ড্রোনগুলি এয়ার টু সারফেস অর্থাৎ বাতাল থেকে মাটিতে লক্ষ্য করে মিসাইল বা লেজার গাউডেড বোমা ফেলতে পারে। প্রায় আড়াই টনেরও বেশি অস্ত্র বহন করতে সক্ষম। 
 

loader