প্যাংগং-এ শক্তি বাড়াচ্ছে ভারত, দেখেনিন কোথায় কোথায় আবস্থান করছে ভারতীয় সেনা

First Published 3, Sep 2020, 6:23 PM

প্যাংগং লেক নিয়ে এখনও বিবাদমান ভারতীয় ও চিনা সেনা জওয়ানরা। প্যাংগং লেক রক্ষায় রীতিমত কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে ভারতীয় সেনা জাওয়ানরা। উত্তর ও দক্ষিণ তীরে শক্ত ঘাঁটি তৈরি করে অবস্থান করছে। কিন্তু তারপরেও চিনের পিপিলস লিবারেশন আর্মির জওয়ানদের সরিয়ে দিতে সক্ষম হয়নি চার নম্বর ফিঙ্গার এলাকা থেকে। প্যাংগংএর এই এলাকায় দীর্ঘদিন ধরেই শক্তপোক্ত ঘাঁটি তৈরি করে অবস্থান করে রয়েছে চিনা সেনা। আর চিনের এই একগুঁয়ে মনোভাবের জন্যই সীমান্ত উত্তেজনা কিছুতেই হ্রাস পাচ্ছে না। কারণ প্যাংগং এলাকায় প্রায় বন্ধ রয়েছে সেনা সরোনার কাজ। 
 

<p><strong>শনিবার থেকে আবার নতুন করে উত্তপ্ত হয়েছে পূর্ব লাদাখ সীমান্ত। চিনা সেনা ভারতীয় সেনাদের লক্ষ্য করে উস্কানিমূলক আচরণ করে বলে অভিযোগ তুলেছে ভারত। সেনা সূত্রের খবর প্যাংগং সংলগ্ন ভারতীয় বাহিনীদের রীতিমত চ্যালেঞ্জ জানিয়েছিলেন চিনা সেনা।&nbsp;</strong></p>

শনিবার থেকে আবার নতুন করে উত্তপ্ত হয়েছে পূর্ব লাদাখ সীমান্ত। চিনা সেনা ভারতীয় সেনাদের লক্ষ্য করে উস্কানিমূলক আচরণ করে বলে অভিযোগ তুলেছে ভারত। সেনা সূত্রের খবর প্যাংগং সংলগ্ন ভারতীয় বাহিনীদের রীতিমত চ্যালেঞ্জ জানিয়েছিলেন চিনা সেনা। 

<p><strong>চিনের এই প্ররোচনা মূলক আচরণ প্রতিহত করার পাশাপাশি প্যাংগং লেক সংলগ্ন এলাকায় নিজেদের অবস্থান আরও শক্তপোক্ত করে ভারত।&nbsp;</strong></p>

চিনের এই প্ররোচনা মূলক আচরণ প্রতিহত করার পাশাপাশি প্যাংগং লেক সংলগ্ন এলাকায় নিজেদের অবস্থান আরও শক্তপোক্ত করে ভারত। 

<p><strong>সেনা বাহিনী সূত্রে খবর প্যাংগং লেকের উত্তর ও দক্ষিণ দুই তীরেই আধিপত্য বিস্তার করেছে ভারত। পাশাপাশি দুটি তীরেই কৌশলগত উঁচু এলাকাগুলিতে আধিপত্য বিস্তার করেছে ভারত।&nbsp;</strong></p>

সেনা বাহিনী সূত্রে খবর প্যাংগং লেকের উত্তর ও দক্ষিণ দুই তীরেই আধিপত্য বিস্তার করেছে ভারত। পাশাপাশি দুটি তীরেই কৌশলগত উঁচু এলাকাগুলিতে আধিপত্য বিস্তার করেছে ভারত। 

<p><strong>&nbsp;কিন্তু এখনও পর্যন্ত চিনা সেনা ৪ নম্বর ফিঙ্গারের রিজলাইনের শীর্ষে অবস্থান করে রয়েছে। কিন্তু ওই এলাকায় আধিপত্য বিস্তারের জন্য পিলিসল লিবারেশন আর্মির ওপর চাপ বাড়াচ্ছেন ভারত।&nbsp;</strong><br />
&nbsp;</p>

 কিন্তু এখনও পর্যন্ত চিনা সেনা ৪ নম্বর ফিঙ্গারের রিজলাইনের শীর্ষে অবস্থান করে রয়েছে। কিন্তু ওই এলাকায় আধিপত্য বিস্তারের জন্য পিলিসল লিবারেশন আর্মির ওপর চাপ বাড়াচ্ছেন ভারত। 
 

<p><strong>ভারত-চিন সীমান্ত উত্তেজনার জট আটকে রয়েছে প্যাংগং লেক এলাকায়। কারণ এই এলাকায় ক্রমশই নিজেদের শক্তিবৃদ্ধি করে আসছিল লাল ফৌজ। পাশাপাশি ফিঙ্গার ৪ নিয়ে সামরিক ও কূটনৈতিক বৈঠকেও অনড় মনোভাব দেখিয়ে আসছিল চিন। এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে শনিবার রাতের পর ওই এলাকায় শক্তি বাড়িয়েছে ভারত।&nbsp;</strong><br />
&nbsp;</p>

ভারত-চিন সীমান্ত উত্তেজনার জট আটকে রয়েছে প্যাংগং লেক এলাকায়। কারণ এই এলাকায় ক্রমশই নিজেদের শক্তিবৃদ্ধি করে আসছিল লাল ফৌজ। পাশাপাশি ফিঙ্গার ৪ নিয়ে সামরিক ও কূটনৈতিক বৈঠকেও অনড় মনোভাব দেখিয়ে আসছিল চিন। এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে শনিবার রাতের পর ওই এলাকায় শক্তি বাড়িয়েছে ভারত। 
 

<p><strong>প্যাংগং-এর দক্ষিণ তীরে নতুন যে স্থান নিয়ে সমস্যা তৈরি হয়েছিল সেখানেও ভারত শক্তি বাড়িয়েছে। পাসাপাশি ভারতীয় সেনাবাহিনী সুবিধেজনক অবস্থানে ছিল বলেও দাবি করেছেন এক সেনা কর্তা।&nbsp;</strong><br />
&nbsp;</p>

প্যাংগং-এর দক্ষিণ তীরে নতুন যে স্থান নিয়ে সমস্যা তৈরি হয়েছিল সেখানেও ভারত শক্তি বাড়িয়েছে। পাসাপাশি ভারতীয় সেনাবাহিনী সুবিধেজনক অবস্থানে ছিল বলেও দাবি করেছেন এক সেনা কর্তা। 
 

<p><strong>&nbsp;সেনা সূত্রে খবর ভারতীয় সেনা বাহিনী মালদো গ্যারিসন ও স্পেনগুর গ্যাপে আধিপত্য বিস্তার করেছে। আর এই দুটি এলাকায় কিছুটা হলেও চিনা বাহিনী পিছিয়ে পড়েছে বলে সেনা সূত্র দাবি করা হয়েছে।&nbsp;</strong><br />
&nbsp;</p>

 সেনা সূত্রে খবর ভারতীয় সেনা বাহিনী মালদো গ্যারিসন ও স্পেনগুর গ্যাপে আধিপত্য বিস্তার করেছে। আর এই দুটি এলাকায় কিছুটা হলেও চিনা বাহিনী পিছিয়ে পড়েছে বলে সেনা সূত্র দাবি করা হয়েছে। 
 

<p><strong>&nbsp;সেনা সূত্রে খবর ফিঙ্গার ৪-এ আধিপত্য বিস্তারের জন্য স্পেঙ্গুর গ্যাপের উঁচু এলাকাগুলিতে আধিপত্য় বজায় রাখা অত্যান্ত জরুরি ।&nbsp;</strong></p>

 সেনা সূত্রে খবর ফিঙ্গার ৪-এ আধিপত্য বিস্তারের জন্য স্পেঙ্গুর গ্যাপের উঁচু এলাকাগুলিতে আধিপত্য় বজায় রাখা অত্যান্ত জরুরি । 

<p><strong>রেচিন লায় ভারতীয় সেনার আধিপত্য বিস্তার করেছে। যা খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলেই দাবি করেছেন এক সমর বিশেষজ্ঞ। তবে এই এলাকায় ভারতীয় সেনা বাহিনীর শক্তি বৃদ্ধি নিয়ে ইতিমধ্যেই আপত্তি তুলেছে চিন।&nbsp;</strong></p>

রেচিন লায় ভারতীয় সেনার আধিপত্য বিস্তার করেছে। যা খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলেই দাবি করেছেন এক সমর বিশেষজ্ঞ। তবে এই এলাকায় ভারতীয় সেনা বাহিনীর শক্তি বৃদ্ধি নিয়ে ইতিমধ্যেই আপত্তি তুলেছে চিন। 

<p><strong>ভারতীয় সেনা বাহিনীর অবস্থান অবস্থান খুবই সন্তোষজনক। কারণ যেসব জায়গায় ভারতীয় সেনা বাহিনী শক্ত ঘাঁটি তৈরি করেছে সেইসব এলাকাগুলি থেকে চিনা সেনার ওপর খুব ভালোভাবে নজরদারী চালানো যাবে। একই সঙ্গে দেখা যাবে ফিঙ্গার ফোরএ চিনা সেনার অবস্থানও।&nbsp;</strong></p>

ভারতীয় সেনা বাহিনীর অবস্থান অবস্থান খুবই সন্তোষজনক। কারণ যেসব জায়গায় ভারতীয় সেনা বাহিনী শক্ত ঘাঁটি তৈরি করেছে সেইসব এলাকাগুলি থেকে চিনা সেনার ওপর খুব ভালোভাবে নজরদারী চালানো যাবে। একই সঙ্গে দেখা যাবে ফিঙ্গার ফোরএ চিনা সেনার অবস্থানও। 

loader