রাজকীয় সাজে সাজছে অযোধ্যা, ১০৪ কোটি খরচ করে রাম মন্দিরের আদলেই তৈরি হচ্ছে স্টেশন, উদ্বোধন আগামী বছরেই

First Published 3, Aug 2020, 2:45 PM

রাম মন্দিরের ভূমি পূজনের আয়োজন চলছে জোর কদমে। এর মধ্যেই কে ভারতীয় রেলওয়ে  বড় ঘোষণা করে ফেলল। হুবহু রাম মন্দিরের আদলেই হবে অযোধ্যার নতুন সেই। ২০২১ সালের জুন মাসের মধ্যে স্টেশনের প্রথম পর্যায়ের কাজ শেষ করার টার্গেট নেওয়া হয়েছে।
 

<p><br />
<strong>রাম মন্দিরের মত অযোধ্যার &nbsp;রেল স্টেশন নিয়েও চলছে এক বিশেষ আয়োজন। অত্যাধুনিক সুযোগ-সুবিধা সহকারে নতুন রূপে সজ্জিত হতে চলেছে অযোধ্যা রেল স্টেশন।</strong></p>


রাম মন্দিরের মত অযোধ্যার  রেল স্টেশন নিয়েও চলছে এক বিশেষ আয়োজন। অত্যাধুনিক সুযোগ-সুবিধা সহকারে নতুন রূপে সজ্জিত হতে চলেছে অযোধ্যা রেল স্টেশন।

<p><strong>এই নতুন রেল স্টেশনের বিশেষত্ব হল, এটি তৈরি হচ্ছে হুবহু রাম মন্দিরের আদলেই। অর্থাৎ রাম মন্দিরের একটি ছোট ঝলক দেখা যাবে স্টেশন চত্বরেই।&nbsp;</strong></p>

এই নতুন রেল স্টেশনের বিশেষত্ব হল, এটি তৈরি হচ্ছে হুবহু রাম মন্দিরের আদলেই। অর্থাৎ রাম মন্দিরের একটি ছোট ঝলক দেখা যাবে স্টেশন চত্বরেই। 

<p><strong>স্টেশন নির্মানের কাজের প্রথম পর্যায় &nbsp;২০২১ সালের জুন মাসের মধ্যে সম্পন্ন করার টার্গেট নেওয়া হয়েছে।</strong></p>

স্টেশন নির্মানের কাজের প্রথম পর্যায়  ২০২১ সালের জুন মাসের মধ্যে সম্পন্ন করার টার্গেট নেওয়া হয়েছে।

<p><strong>স্টেশন নির্মানের বিষয়ে উত্তর রেলওয়ের ব্যবস্থাপক রাজীব চৌধুরী জানিয়েছেন, ২০১৭-২০১৮ সালেই এই স্টেশন নির্মানের সম্মতি পাওয়া গিয়েছিল। প্রথম পর্যায়ে ১ এবং ২ নং প্ল্যাটফর্ম, বারান্দা, সিঁড়ি ও প্যাসেজের কাজ সম্পন্ন করা হবে।</strong></p>

স্টেশন নির্মানের বিষয়ে উত্তর রেলওয়ের ব্যবস্থাপক রাজীব চৌধুরী জানিয়েছেন, ২০১৭-২০১৮ সালেই এই স্টেশন নির্মানের সম্মতি পাওয়া গিয়েছিল। প্রথম পর্যায়ে ১ এবং ২ নং প্ল্যাটফর্ম, বারান্দা, সিঁড়ি ও প্যাসেজের কাজ সম্পন্ন করা হবে।

<p><strong>সম্পূর্ণ কাজ সম্পন্ন করতে প্রায় ১০৪ কোটি টাকা খরচা হবে। সেই সঙ্গে ভগবান রামের পবিত্রতা এবং গুরুত্বকে সামনে রেখে রাম মন্দিরের ন্যায় গম্বুজ, শিখর, স্তম্ভ নির্মান করা হবে।</strong></p>

সম্পূর্ণ কাজ সম্পন্ন করতে প্রায় ১০৪ কোটি টাকা খরচা হবে। সেই সঙ্গে ভগবান রামের পবিত্রতা এবং গুরুত্বকে সামনে রেখে রাম মন্দিরের ন্যায় গম্বুজ, শিখর, স্তম্ভ নির্মান করা হবে।

<p>স্টেশনে &nbsp;যাত্রী সুবিধার্থে থাকছে অত্যাধুনিক সুযোগ সুবিধাও। মন্দিরের আদলে স্টেশন নির্মাণের পাশাপাশি তাতে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত শৌচাগার, টিকিট প্রদানের জানালা বৃদ্ধি, যাত্রি প্রতিক্ষালয়, ফুটওভার ব্রিজ, ফুড প্লাজা, দোকান ইত্যাদি আরও নানান রকমের সুবিধা থাকবে।&nbsp;</p>

স্টেশনে  যাত্রী সুবিধার্থে থাকছে অত্যাধুনিক সুযোগ সুবিধাও। মন্দিরের আদলে স্টেশন নির্মাণের পাশাপাশি তাতে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত শৌচাগার, টিকিট প্রদানের জানালা বৃদ্ধি, যাত্রি প্রতিক্ষালয়, ফুটওভার ব্রিজ, ফুড প্লাজা, দোকান ইত্যাদি আরও নানান রকমের সুবিধা থাকবে। 

<p><strong>এছাড়া স্টেশনে থাকবে পর্যটক কেন্দ্র. ট্যাক্সি বুথ, শিশু বিহার, ভিআইপি লাউঞ্জ, সেমিনার হল ও ভিআইপি অতিথি নিবাস।</strong><br />
&nbsp;</p>

এছাড়া স্টেশনে থাকবে পর্যটক কেন্দ্র. ট্যাক্সি বুথ, শিশু বিহার, ভিআইপি লাউঞ্জ, সেমিনার হল ও ভিআইপি অতিথি নিবাস।
 

<p><strong>রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল টুইট করে জানিয়েছেন, ‘নতুন রূপে রাম মন্দিরকে দেখতে অসংখ্য ভক্ত এখানে আসবে। তাই তাঁদের সুধার্থেই এই ব্যবস্থা করা হচ্ছে’।</strong></p>

রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল টুইট করে জানিয়েছেন, ‘নতুন রূপে রাম মন্দিরকে দেখতে অসংখ্য ভক্ত এখানে আসবে। তাই তাঁদের সুধার্থেই এই ব্যবস্থা করা হচ্ছে’।

<p><strong>ভবনের নির্মাণ করছে রেলওয়ের রাইটস । দুই পর্যায়ে চলবে নির্মাণ, প্রথম পর্যায়ে ১,২ ও ৩ নম্বর প্ল্যাটফর্মের উন্নয়ন হবে, বর্তমান স্টেশন চত্বরের পরিকাঠামোর উন্নতি হবে, উন্নতি হবে হোল্ডিং এলাকারও। দ্বিতীয় পর্যায়ে তৈরি হবে নতুন স্টেশন ভবন, অন্যান্য সুযোগ সুবিধে।</strong></p>

ভবনের নির্মাণ করছে রেলওয়ের রাইটস । দুই পর্যায়ে চলবে নির্মাণ, প্রথম পর্যায়ে ১,২ ও ৩ নম্বর প্ল্যাটফর্মের উন্নয়ন হবে, বর্তমান স্টেশন চত্বরের পরিকাঠামোর উন্নতি হবে, উন্নতি হবে হোল্ডিং এলাকারও। দ্বিতীয় পর্যায়ে তৈরি হবে নতুন স্টেশন ভবন, অন্যান্য সুযোগ সুবিধে।

<p><strong>এদিকে স্টেশনের পাশাপাশি অযোধ্যা বাইপাসের সৌন্দর্যায়নের কাজও সেরে ফেলতে চাইছে উত্তরপ্রদেশ সরকার।</strong></p>

এদিকে স্টেশনের পাশাপাশি অযোধ্যা বাইপাসের সৌন্দর্যায়নের কাজও সেরে ফেলতে চাইছে উত্তরপ্রদেশ সরকার।

<p><strong>সেজন্য, বাইপাসে তৈরি হবে ছোট একটি ফোয়ারা, বসানো হবে ভগবান হনুমানজির মূর্তি। ছোট একটি ফুলের বাগানও থাকবে সেখানে। এনএইচএআই এর জন্য ৫৫ কোটি টাকার বাজেট বরাদ্দ করেছে সোন্দর্যায়ন ও নির্মাণ কাজের জন্য।&nbsp;</strong></p>

সেজন্য, বাইপাসে তৈরি হবে ছোট একটি ফোয়ারা, বসানো হবে ভগবান হনুমানজির মূর্তি। ছোট একটি ফুলের বাগানও থাকবে সেখানে। এনএইচএআই এর জন্য ৫৫ কোটি টাকার বাজেট বরাদ্দ করেছে সোন্দর্যায়ন ও নির্মাণ কাজের জন্য। 

<p><br />
<strong>অযোধ্যা বাইপাসের কাজ হবে ২টি ভাগে, সৌন্দর্যায়ন ও নির্মাণ। ১৬ কিমি পর্যন্ত বিস্তৃত এই বাইপাসের সৌন্দর্যায়নে অনেক সুন্দর সুন্দর জিনিস থাকবে। এর পাশাপাশি অযোধ্যায় অন্যান্য রাস্তার কাজও শুরু হয়ে গিয়েছে। রাম-জানকি মার্গ, ৮৪ কোশি পরিক্রমা মার্গ সহ অন্যান্য রাস্তাগুলির উন্নয়নও অযোধ্যা ও তার আশেপাশে ধর্মীয় পর্যটন ও অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড বাড়ানোর জন্য সরকারের পরিকল্পনার অংশ হবে।</strong></p>


অযোধ্যা বাইপাসের কাজ হবে ২টি ভাগে, সৌন্দর্যায়ন ও নির্মাণ। ১৬ কিমি পর্যন্ত বিস্তৃত এই বাইপাসের সৌন্দর্যায়নে অনেক সুন্দর সুন্দর জিনিস থাকবে। এর পাশাপাশি অযোধ্যায় অন্যান্য রাস্তার কাজও শুরু হয়ে গিয়েছে। রাম-জানকি মার্গ, ৮৪ কোশি পরিক্রমা মার্গ সহ অন্যান্য রাস্তাগুলির উন্নয়নও অযোধ্যা ও তার আশেপাশে ধর্মীয় পর্যটন ও অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড বাড়ানোর জন্য সরকারের পরিকল্পনার অংশ হবে।

loader