110

উইকিপিডিয়া বলছে তাঁর বয়স ৫৪ বছর। কিন্তু এখনও টগবগে যুবকের মত ফিট মিলিন্দ সোমন। আর তা নিয়ে মজা করতে ছাড়লেন না দেশের প্রধানমন্ত্রীও। 

Subscribe to get breaking news alerts

210

মিলিন্দকে প্রধানমন্ত্রী জিজ্ঞেসই করে বসলেন, আপনার বয়স ইন্টরনেটে যা বলা হয়, সেটা কী সত্যিই।

310

প্রধানমন্ত্রী মিলিন্দ সোমেনের মায়েরও প্রশংসা করেছেন। বলেছেন মিলিন্দের মায়ের ফিটনেস ভিডিওটি তিনি ৫ বার দেখে ফেলেছেন।
 

410

প্রধানমন্ত্রীর প্রশ্নের উত্তরে মিলিন্দ জানান, অনেক লোক আমাকে জিজ্ঞাসা করে যে আপনার বয়স ৫৫  বছর এবং আপনি এখনও ১০০ কিলোমিটার  দৌঁড়তে পারেন। সেটা কীভাবে সম্ভব।

510

 ২০১২ সালে দিল্লি থেকে মুম্বই পর্যন্ত দৌঁড়েছিলেন, সেই স্মৃতিচারণ করেন মিলিন্দ। আর এই ক্ষেত্রেই টেনে আনেন নিজের মায়ের প্রসঙ্গ।  ৮১ বছর বয়সী তাঁর মা এখনও ফিট থাকলে, তিনি কেন পারবেন না সেই কথাই বলেন মিলিন্দ

610

মিলিন্দের কাছে তাঁর মা উদাহরণ। এই প্রসঙ্গে গ্রামের মহিলাদের দীর্ঘ পথ হেঁটে জল আনার কথাও মনে করিয়ে দিয়েছেন সুপার মডেল। 

710

মিলিন্দ সোমান ফিট ইন্ডিয়া  আন্দোলনের প্রশংসা করেছেন। মিলিন্দ সোমান জানান তাঁর মা  দৌড়ানোর সময় এখনও জুতোও পরেন না।

810

প্রধানমন্ত্রী মোদীও স্বাস্থ্য এবং ফিটনেস সম্পর্কিত অনেকগুলি জিনিস দেশবাসীর সঙ্গে ভাগ করে নেন। তিনি বলেন, করোনার যুগে তিনি সপ্তাহে একবার তার মায়ের সাথে কথা বলার চেষ্টা করেন। তিনি যখনই ফোন করেন, মা জিজ্ঞাসা করেন, "হলুদ খান কি না?"

910

প্রধানমন্ত্রী  মিলিন্দ সোমানের মায়ের ফিটনেসের প্রংশসা করেন। মিলিন্দের মায়ের ভাইরা হওয়া ভিডিওটি তিনি পাঁচবার দেখেছেন বলে জানান। 

1010

নিজের জন্মদিনে পুশআপস করছিলেন মিলিন্দের মা। প্রধানমন্ত্রী মিলিন্দের মাকে একটি বিশেষ শুভেচ্ছা বার্তাও পাঠিয়েছিলেন।