২০২৪ সালের মধ্যে আমেরিকাকে টপকে বিশ্বের শীর্ষ অর্থনীতির দেশ হবে চিন, জানেন ভারত থাকবে কত নম্বরে

First Published 27, Jul 2020, 5:52 PM

বিশ্বব্যাঙ্ক আর আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল দীর্ঘদিন ধরেই পূর্বাভাস দিচ্ছে যে অর্থনীতির ক্ষেত্রে  যুক্তরাষ্ট্রকে টেক্কা দেবে চিন। জানা যাচ্ছে সেই দিন আর নাকি বেশি দেরি নেই।  ২০২৪ সালের মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্রকে টপকে বিশ্বের শীর্ষ অর্থনীতির দেশ হবে চিন। তবে পিছিয়ে থাকবে না ভারতও। তৃতীয় স্থানে উঠে আসবে আমাদের দেশ।

<p><strong>বিশ্বব্যাঙ্ক আর আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের সুরেই এবার গলা মেলাল বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরাম। তাদের পূর্বাভাস, &nbsp;২০২৪ সালেই যুক্তরাষ্ট্রকে টপকে বিশ্বের শীর্ষ অর্থনীতির দেশ হবে বর্তমানে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ চিন।</strong></p>

বিশ্বব্যাঙ্ক আর আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের সুরেই এবার গলা মেলাল বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরাম। তাদের পূর্বাভাস,  ২০২৪ সালেই যুক্তরাষ্ট্রকে টপকে বিশ্বের শীর্ষ অর্থনীতির দেশ হবে বর্তমানে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ চিন।

<p><br />
<strong>এই তালিকায় যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান হবে দ্বিতীয়, ভারত থাকবে তৃতীয় অবস্থানে।&nbsp;</strong></p>


এই তালিকায় যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান হবে দ্বিতীয়, ভারত থাকবে তৃতীয় অবস্থানে। 

<p><strong>পূর্বাভাস বলছে ইউরোপের পাওয়ার হাউস হিসেবে পরিচিত দেশগুলোর অর্থনৈতিক অবস্থা ২০২৪ সালেও খুব একটা ইতিবাচক অবস্থায় থাকবে না।</strong><br />
&nbsp;</p>

পূর্বাভাস বলছে ইউরোপের পাওয়ার হাউস হিসেবে পরিচিত দেশগুলোর অর্থনৈতিক অবস্থা ২০২৪ সালেও খুব একটা ইতিবাচক অবস্থায় থাকবে না।
 

<p><strong>এই সময় এশিয়ার ৫ টি &nbsp;দেশের জিডিপি &nbsp;বৃদ্ধিও &nbsp;শীর্ষ অবস্থানে থাকবে। এর মধ্যে পঞ্চম অবস্থানে থাকবে ইন্দোনেশিয়া। জাপানের অবস্থান থাকবে চতুর্থ আর রাশিয়া থাকবে ষষ্ঠ অবস্থানে।</strong></p>

এই সময় এশিয়ার ৫ টি  দেশের জিডিপি  বৃদ্ধিও  শীর্ষ অবস্থানে থাকবে। এর মধ্যে পঞ্চম অবস্থানে থাকবে ইন্দোনেশিয়া। জাপানের অবস্থান থাকবে চতুর্থ আর রাশিয়া থাকবে ষষ্ঠ অবস্থানে।

<p><strong>&nbsp;দুই ঋণদাতা সংস্থার পূর্বাভাসের ওপর ভিত্তি করে এমন তথ্য দিয়েছে বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরাম। সংস্থাটির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‌১৯৯০ সাল থেকেই অর্থনৈতিক দিক দিয়ে স্থিতিশীল অবস্থানে আছে চিন।</strong></p>

 দুই ঋণদাতা সংস্থার পূর্বাভাসের ওপর ভিত্তি করে এমন তথ্য দিয়েছে বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরাম। সংস্থাটির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‌১৯৯০ সাল থেকেই অর্থনৈতিক দিক দিয়ে স্থিতিশীল অবস্থানে আছে চিন।

<p><strong>বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরাম বলছে, চিন জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে শক্তিশালী ভূমিকা রাখছে। শ্রমশক্তি তৈরিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া ও ফিলিপিন্স। এশিয়ার মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানিগুলোও বিশ্ববাজারে নিজেদের অবস্থান করে নিয়েছে। তবে এশিয়ার উন্নয়নশীল অর্থনীতির পথে বাধা হতে পারে গ্রাম ও শহর অঞ্চলের উন্নয়নের পার্থক্য, প্রাকৃতিক বিপর্যয় ও সুশাসনের অভাব।</strong></p>

বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরাম বলছে, চিন জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে শক্তিশালী ভূমিকা রাখছে। শ্রমশক্তি তৈরিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া ও ফিলিপিন্স। এশিয়ার মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানিগুলোও বিশ্ববাজারে নিজেদের অবস্থান করে নিয়েছে। তবে এশিয়ার উন্নয়নশীল অর্থনীতির পথে বাধা হতে পারে গ্রাম ও শহর অঞ্চলের উন্নয়নের পার্থক্য, প্রাকৃতিক বিপর্যয় ও সুশাসনের অভাব।

<p><strong>১৯৯২ সাল থেকে এখন পর্যন্ত বিশ্বের শীর্ষ অর্থনীতির দেশের শিরোপা পেয়ে আসছে &nbsp;যুক্তরাষ্ট্র। ১৯৯২ সালে চিনের অবস্থান ছিলো দশম।</strong></p>

১৯৯২ সাল থেকে এখন পর্যন্ত বিশ্বের শীর্ষ অর্থনীতির দেশের শিরোপা পেয়ে আসছে  যুক্তরাষ্ট্র। ১৯৯২ সালে চিনের অবস্থান ছিলো দশম।

<p><strong>২০২৪ সালে আন্তর্জাতিক অর্থনীতির এই দৌঁড়ে ভারত পৌঁছাতে পারে তৃতীয় স্থানে। যেখানে ১৯৯২ সাল কিংবা ২০০৮ সালের তালিকায় শীর্ষ ১০ দেশের মধ্যে ভারতের নামই ছিলো না।</strong></p>

২০২৪ সালে আন্তর্জাতিক অর্থনীতির এই দৌঁড়ে ভারত পৌঁছাতে পারে তৃতীয় স্থানে। যেখানে ১৯৯২ সাল কিংবা ২০০৮ সালের তালিকায় শীর্ষ ১০ দেশের মধ্যে ভারতের নামই ছিলো না।

<p><strong>২০২৪ সালে শীর্ষ দশের তালিকায় ওপরের দিকে যুক্তরাষ্ট্র ছাড়া বাকি সব দেশই থাকবে এশিয়ার। তালিকার নিচের অবস্থানে থাকবে ইউরোপের দেশগুলো। অষ্টম অবস্থানে থাকবে লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল, এমনটাই পূর্বাভাস বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের।&nbsp;</strong></p>

২০২৪ সালে শীর্ষ দশের তালিকায় ওপরের দিকে যুক্তরাষ্ট্র ছাড়া বাকি সব দেশই থাকবে এশিয়ার। তালিকার নিচের অবস্থানে থাকবে ইউরোপের দেশগুলো। অষ্টম অবস্থানে থাকবে লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল, এমনটাই পূর্বাভাস বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের। 

loader