করোনা মহামারির কোপে মানসিক রোগীরাও, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সমীক্ষার রিপোর্টে উদ্বেগ

First Published 5, Oct 2020, 12:46 PM

করেনাভাইরাসের কারণে ব্যহত হয়েছে মানসিক স্বাস্থ্যপরিষেবা। ১৩০ টি দেশে সমীক্ষা চালিয়েছিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। সেখানে দেখা যাচ্ছে ৯৩ শতাংশ দেশেই ব্যাহত হয়েছে মানসিক স্বাস্থ্য সেবা। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এই সার্ভে রিপোর্ট প্রকাশিত হল ১০ অক্টোবর সংস্থা আয়োজিত মেন্টাল হেলফ ফর বিগ ইভেন্ট নামের একটি অনুষ্ঠানের আগে। আর এই রিপোর্ট নিয়ে রীতিমত উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। 
 

<p><strong>&nbsp;বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সমীক্ষায় দেখা গেছে প্রায় ৬০ শতাংশ মানুষই মহামারির কারণে মানসিক স্বাস্থ্য পরিষেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। যাদের মধ্যে রয়েছে ৭২ শতাংশই শিশু আর কিশোর কিশোরী। ৭০ শতাংশ বয়স্কো মানুষ বঞ্চিত হচ্ছে &nbsp;এই পরিষেবা থেকে।&nbsp;</strong><br />
&nbsp;</p>

 বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সমীক্ষায় দেখা গেছে প্রায় ৬০ শতাংশ মানুষই মহামারির কারণে মানসিক স্বাস্থ্য পরিষেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। যাদের মধ্যে রয়েছে ৭২ শতাংশই শিশু আর কিশোর কিশোরী। ৭০ শতাংশ বয়স্কো মানুষ বঞ্চিত হচ্ছে  এই পরিষেবা থেকে। 
 

<p><strong>সমীক্ষায় বলা হয়েছে ৬৭ শতাংশ ক্ষেত্রে বাধা পেয়েছে কাউন্সিলিং আর সাইকোথেরাপি। আউটডোর চিকিৎসা বাধা পেয়েছে ৪৫ শতাংশ ক্ষেত্রে।&nbsp;</strong></p>

সমীক্ষায় বলা হয়েছে ৬৭ শতাংশ ক্ষেত্রে বাধা পেয়েছে কাউন্সিলিং আর সাইকোথেরাপি। আউটডোর চিকিৎসা বাধা পেয়েছে ৪৫ শতাংশ ক্ষেত্রে। 

<p><strong>৩৫ শতাংশ ক্ষেত্রে দেখা গেছে বাধা পেয়েছে জরুরি পরিষেবা। যার মধ্যে রয়েছে দীর্ঘদিন ধরে আক্রান্ত রোগীরাও।&nbsp;</strong><br />
&nbsp;</p>

৩৫ শতাংশ ক্ষেত্রে দেখা গেছে বাধা পেয়েছে জরুরি পরিষেবা। যার মধ্যে রয়েছে দীর্ঘদিন ধরে আক্রান্ত রোগীরাও। 
 

<p><strong>সমীক্ষায় বলা হয়েছে ৩০ শতাংশ ক্ষেত্রে মানসিক আর স্নায়বিক রোগীরা সমস্যার সম্মুখীন হয়েছেন মহামারির কারণে।&nbsp;</strong><br />
&nbsp;</p>

সমীক্ষায় বলা হয়েছে ৩০ শতাংশ ক্ষেত্রে মানসিক আর স্নায়বিক রোগীরা সমস্যার সম্মুখীন হয়েছেন মহামারির কারণে। 
 

<p><strong>প্রায় তিন চতুর্থাংশ স্কুল আর কর্মক্ষেত্রের মানসিক স্বাস্থ্য পরিষেবার কাজ ব্যাহত হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ৭৮-৭৫ শতাংশ মানুষ।&nbsp;</strong><br />
&nbsp;</p>

প্রায় তিন চতুর্থাংশ স্কুল আর কর্মক্ষেত্রের মানসিক স্বাস্থ্য পরিষেবার কাজ ব্যাহত হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ৭৮-৭৫ শতাংশ মানুষ। 
 

<p><strong>করোনাভাইরাসের &nbsp;মহামারিকালে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বিশ্বের ১৩০ টি দেশে &nbsp;সমীক্ষা চালিয়েছিল। আর তাতেই দেখা গেছে করোনাভাইরাসের কারণে রীতিমত ক্ষতি গ্রস্ত হয়েছে মানসিক স্বাস্থ্যা পরিষেবা।&nbsp;</strong></p>

করোনাভাইরাসের  মহামারিকালে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বিশ্বের ১৩০ টি দেশে  সমীক্ষা চালিয়েছিল। আর তাতেই দেখা গেছে করোনাভাইরাসের কারণে রীতিমত ক্ষতি গ্রস্ত হয়েছে মানসিক স্বাস্থ্যা পরিষেবা। 

<p style="text-align: justify;"><strong>বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার হিসেব অনুযায়ী উচ্চ আয়ের দেশগুলি ৮০ শতাংশ ক্ষেত্রে আর মধ্য আয়ের দেশগুলি ৫০ শতাংশ ক্ষেত্রে টেলি টেলি থেরাপি মোতায়েন করেছে।&nbsp;</strong></p>

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার হিসেব অনুযায়ী উচ্চ আয়ের দেশগুলি ৮০ শতাংশ ক্ষেত্রে আর মধ্য আয়ের দেশগুলি ৫০ শতাংশ ক্ষেত্রে টেলি টেলি থেরাপি মোতায়েন করেছে। 

<p><strong>বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থ্যা করোনাভাইরাসের সংক্রমণের মধ্যেই জরুরি পরিষেবা চালু করার বিষয়ে সংশ্লিষ্টদেশগুলিকে নির্দেশ দিয়েছ।&nbsp;</strong></p>

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থ্যা করোনাভাইরাসের সংক্রমণের মধ্যেই জরুরি পরিষেবা চালু করার বিষয়ে সংশ্লিষ্টদেশগুলিকে নির্দেশ দিয়েছ। 

<p style="text-align: justify;"><strong>যদিও দেশগুলি জানিয়েছে মানসিক স্বাস্থ্য পরিষেবার জন্য আরও অর্থের প্রয়োজন রয়েছে বলেও জানিয়েছে।&nbsp;</strong></p>

যদিও দেশগুলি জানিয়েছে মানসিক স্বাস্থ্য পরিষেবার জন্য আরও অর্থের প্রয়োজন রয়েছে বলেও জানিয়েছে। 

<p><strong>বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পক্ষ থেকে জানান হয়েছে জাতীয় স্বাস্থ্য বাজেটের ২ শতাংশ ব্যয় করা যথেষ্ট নয়। তবে আন্তর্জাতিক ফান্ড আরও বাড়ানোর পরিকল্পনা গ্রহণ করার চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে বলেও জানান হয়েছে।&nbsp;</strong></p>

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পক্ষ থেকে জানান হয়েছে জাতীয় স্বাস্থ্য বাজেটের ২ শতাংশ ব্যয় করা যথেষ্ট নয়। তবে আন্তর্জাতিক ফান্ড আরও বাড়ানোর পরিকল্পনা গ্রহণ করার চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে বলেও জানান হয়েছে। 

loader