কী এমন হল যে জল এল কিম জং উনের চোখে, ক্ষমাও চাইলেন উত্তর কোরিয়ার প্রধান

First Published 13, Oct 2020, 6:27 PM

উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন ওয়ার্কাস পার্টির প্রতিষ্ঠার ৭৫তম  বার্ষিকীতে একদম অন্য কিম জং উনকে দেখা গেল। জীবনে এই প্রথমবার তিনি দেশের নাগরিকদের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেন। আর সেই সেই তাঁর চোখে জলও ছিল বলে জানিয়েছে উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যম। প্রতিপক্ষ প্রতিবেশী দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে সম্পর্ক ভালো করার কথাও বলেছিলেন তিনি। 
 

<p><strong>উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন ওয়ার্কস পার্টির ৭৫ তম বার্ষিকী উদযাপনের অনুষ্ঠানে প্রকাশে এসেছিলেন দেশের রাষ্ট্র নায়ক কিম জং উন। আর সেই অনুষ্ঠানে সম্পূর্ণ অন্যরূপে তিনি ধরা দিলেন।&nbsp;</strong></p>

উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন ওয়ার্কস পার্টির ৭৫ তম বার্ষিকী উদযাপনের অনুষ্ঠানে প্রকাশে এসেছিলেন দেশের রাষ্ট্র নায়ক কিম জং উন। আর সেই অনুষ্ঠানে সম্পূর্ণ অন্যরূপে তিনি ধরা দিলেন। 

<p><strong>কিম জং উন এদিন সরাসরি নিজের অসাফল্যের জন্য দেশের নাগরিকদের কাছে ক্ষমাপ্রার্থনা করেন। তিনি বলেন নাগরিকদের জীবনে উন্নয়নের হাওয়া আনতে তিনি ব্যর্থ হয়েছে।&nbsp;</strong></p>

কিম জং উন এদিন সরাসরি নিজের অসাফল্যের জন্য দেশের নাগরিকদের কাছে ক্ষমাপ্রার্থনা করেন। তিনি বলেন নাগরিকদের জীবনে উন্নয়নের হাওয়া আনতে তিনি ব্যর্থ হয়েছে। 

<p><strong>এই অনুষ্ঠানে দেশের সেনাবাহিনীর ত্যাগ আর শৌর্য্যের জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি।&nbsp;</strong></p>

এই অনুষ্ঠানে দেশের সেনাবাহিনীর ত্যাগ আর শৌর্য্যের জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি। 

<p><strong>&nbsp;শনিবারের সেই অনুষ্ঠানেই কিম জং উন বলেছিলেন দেশের মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়নি এই জন্য তিনি কৃতজ্ঞ। কিন্তু বিশ্ব জুড়ে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণেই দেশের উন্নয়ন স্তব্ধ হয়ে গেছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।&nbsp;</strong></p>

 শনিবারের সেই অনুষ্ঠানেই কিম জং উন বলেছিলেন দেশের মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়নি এই জন্য তিনি কৃতজ্ঞ। কিন্তু বিশ্ব জুড়ে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণেই দেশের উন্নয়ন স্তব্ধ হয়ে গেছে বলেও জানিয়েছেন তিনি। 

<p><strong>কিম জংএর উপস্থিতিতে এই অনুষ্ঠানটি রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যমে সম্প্রচারিত হয়। সেই সময়ই তাঁকে দেখা যায় আবেগপ্রবণ হয়ে যেতে। পাশাপাশি চশমা খুলে দুই একবার চোখও মোছেন তিনি।একটি বিদেশী সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে অনুষ্ঠানে কিমকে কাঁদতে দেখা গেছে।&nbsp;</strong></p>

কিম জংএর উপস্থিতিতে এই অনুষ্ঠানটি রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যমে সম্প্রচারিত হয়। সেই সময়ই তাঁকে দেখা যায় আবেগপ্রবণ হয়ে যেতে। পাশাপাশি চশমা খুলে দুই একবার চোখও মোছেন তিনি।একটি বিদেশী সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে অনুষ্ঠানে কিমকে কাঁদতে দেখা গেছে। 

<p><strong>স্বৈরচারী শাসক হিসেবেই বিশ্বজুড়ে পরিচিত কিম জং উন। কখনই তাঁকে আবেগ প্রবন হতে দেখা যায়নি। তাই সেই কিমই বলেছিলেন প্রচেষ্টা চালিয়েও দেশের মানুষের সমস্যা থেকে তাঁদের মুক্তি দিতে ব্যর্থ হয়েছেন। এই প্রথম জনগণের সামনে এসে নিজের হার স্বীকার করেছেন কিম।&nbsp;</strong><br />
&nbsp;</p>

স্বৈরচারী শাসক হিসেবেই বিশ্বজুড়ে পরিচিত কিম জং উন। কখনই তাঁকে আবেগ প্রবন হতে দেখা যায়নি। তাই সেই কিমই বলেছিলেন প্রচেষ্টা চালিয়েও দেশের মানুষের সমস্যা থেকে তাঁদের মুক্তি দিতে ব্যর্থ হয়েছেন। এই প্রথম জনগণের সামনে এসে নিজের হার স্বীকার করেছেন কিম। 
 

<p style="text-align: justify;"><strong>এদিনের অনুষ্ঠানে কিম জানিয়েছেন এতকিছুর পরেও তাঁর দেশের মানুষ তাঁর ওপর আস্থা রাখবেন। আর বিষয়ে তিনি রীতিমত আশাবাদী।&nbsp;</strong></p>

এদিনের অনুষ্ঠানে কিম জানিয়েছেন এতকিছুর পরেও তাঁর দেশের মানুষ তাঁর ওপর আস্থা রাখবেন। আর বিষয়ে তিনি রীতিমত আশাবাদী। 

<p><strong>&nbsp;এদিনের অনুষ্ঠানে আমেরিকা সম্পর্কে কোনও মন্তব্য করেননি। তবে সেনা প্যারে</strong></p>

 এদিনের অনুষ্ঠানে আমেরিকা সম্পর্কে কোনও মন্তব্য করেননি। তবে সেনা প্যারে

loader