সারা শরীর জুড়ে পোশাকের বদলে ট্যাটুর খেলা, ৬০০ রকমের ডিজাইনে নিজেকে সাজিয়েছেন সাহসী কন্যা

First Published 9, Sep 2020, 5:53 PM

সখ একটা বড় জিনিস। মানুষ তার সখ পূরনের জন্য সবকিছু করতে পারে। এমনকি অর্থ ব্যয় নিয়েও চিন্তা করে না। এমনই এক কন্যা অ্যাম্বার লুক। অস্ট্রেলিয়ার গোল্ড কোস্টের বাসিন্টা বছর ২৫ এই মডেল কন্যা আজকাল জোড় আলোচনায় রয়েছেন। আর থাকবেন নাই বা কেন, নিজের শরীরের ৯৮ শতাংশই ট্যাটু দিয়ে ঢেকে রেখেছেন এই সুন্দরী। সারা শরীর জুড়ে খালি ট্যাটুর খেলা। সার শরীর সূঁচে এফোড়-ওফোড় হলেও তাতে ভ্রূক্ষেপ নেই এই সাহসিনীর। গত বছরে ৬০০ টি ট্যাটু দিয়ে নিজেকে সাজিয়েছেন এই সুন্দরী। তবে এখানেই থেমে নেই মডেল কন্যার সখ, নিজের জিভটিকেও সাপের মতো দু'ফালি করেছেন। বদলেছেন চোখের মণির রঙও। আর এজন্য জলের মত খরচও করেছেন এই মেয়ে। এর জন্য এখনও পর্যন্ত জলের মত টাকা খরচ করেছেন অ্যাম্বার। লুক বদল করতে এখনও পর্যন্ত তাঁর খরচা হয়েছে ২৮ লক্ষ ৬৪ হাজার টাকা। চলুন দেখে নেওয়া যাক কীভাবে নিজেকে বদলেছেন অ্যাম্বার লুক।
 

<p><br />
<strong>অস্ট্রেলিয়ার গোল্ড কোস্টের বাসিন্দা অ্যাম্বার লুক সম্প্রতি নিজের একটি সাহসী ছবি শেয়ার করেছেন। অ্যাম্বার এখনও পর্যন্ত তার শরীরের ৯৮ শতাংশ অংশে ট্যাটু করিয়েছেন। যার জন্য ইতিমধ্যে ২৯ লক্ষ টাকা খরচ করে ফেলেছেন।&nbsp;</strong></p>


অস্ট্রেলিয়ার গোল্ড কোস্টের বাসিন্দা অ্যাম্বার লুক সম্প্রতি নিজের একটি সাহসী ছবি শেয়ার করেছেন। অ্যাম্বার এখনও পর্যন্ত তার শরীরের ৯৮ শতাংশ অংশে ট্যাটু করিয়েছেন। যার জন্য ইতিমধ্যে ২৯ লক্ষ টাকা খরচ করে ফেলেছেন। 

<p><strong>অ্যাম্বারের ট্যাটু আসক্তি এতটাই যে তিনি নিজের চোখের মণিতেও ট্যাটু করিয়েছেন। নীল রঙে পরিবর্তন করেছেন সেগুলিকে।</strong></p>

অ্যাম্বারের ট্যাটু আসক্তি এতটাই যে তিনি নিজের চোখের মণিতেও ট্যাটু করিয়েছেন। নীল রঙে পরিবর্তন করেছেন সেগুলিকে।

<p><strong>এই প্রক্রিয়া চলাকালীন অ্যাম্বার এক সপ্তাহের জন্য অন্ধ হয়ে যান। তিনি যখন এটি জানান, তখন অনেকেই তাঁর এই সখের সমালোচনা করেছিলেন। তবে এক সপ্তাহ পরে তার দৃষ্টিশক্তি ফিরে আসে।</strong></p>

এই প্রক্রিয়া চলাকালীন অ্যাম্বার এক সপ্তাহের জন্য অন্ধ হয়ে যান। তিনি যখন এটি জানান, তখন অনেকেই তাঁর এই সখের সমালোচনা করেছিলেন। তবে এক সপ্তাহ পরে তার দৃষ্টিশক্তি ফিরে আসে।

<p><strong>অ্যাম্বার নিজেকে বার্বি বলে পরিচয় দেন। মজার বিষয় ১৬ বছর বয়স পর্যন্ত তাঁর শরীরে কোনও ট্যাটু ছিল না। কিন্তু তিনি কিছু আলাদা করতে চেয়েছিলেন।</strong></p>

অ্যাম্বার নিজেকে বার্বি বলে পরিচয় দেন। মজার বিষয় ১৬ বছর বয়স পর্যন্ত তাঁর শরীরে কোনও ট্যাটু ছিল না। কিন্তু তিনি কিছু আলাদা করতে চেয়েছিলেন।

<p><strong>তিনি তার অনেকগুলি ছবি ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেছেন। যেখানে অনেকে তাঁর প্রশংসা করেছেন, আবার অনেকে তাঁর সমালোচনাও করেন। অনেকে বলে যে এটি তাঁর সখ নয় পাগলামো।</strong></p>

তিনি তার অনেকগুলি ছবি ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেছেন। যেখানে অনেকে তাঁর প্রশংসা করেছেন, আবার অনেকে তাঁর সমালোচনাও করেন। অনেকে বলে যে এটি তাঁর সখ নয় পাগলামো।

<p><strong>অ্যাম্বারের শরীরে হরেক রঙের ও নক্সার ট্যাটুও রয়েছে। তাঁর শরীরে ট্যাটুরা শান্তিতে বিশ্রাম নিচ্ছে বলে দাবি করেন এই সাহসীনি।</strong><br />
&nbsp;</p>

অ্যাম্বারের শরীরে হরেক রঙের ও নক্সার ট্যাটুও রয়েছে। তাঁর শরীরে ট্যাটুরা শান্তিতে বিশ্রাম নিচ্ছে বলে দাবি করেন এই সাহসীনি।
 

<p><strong>তবে চোখে ট্যাটু করার অভিজ্ঞতাই এখনও পর্যন্ত তার কাছে সবচেয়ে সেরা বলে জানিয়েছেন অ্যাম্বার। তিনি জানিয়েছিলেন যে এই ট্যাটুটি তৈরি করার সময় তাঁর মনে হয়েছিল যেন কেউ চোখে কাচের গুঁড়ো ঘষে দিচ্ছে।</strong></p>

তবে চোখে ট্যাটু করার অভিজ্ঞতাই এখনও পর্যন্ত তার কাছে সবচেয়ে সেরা বলে জানিয়েছেন অ্যাম্বার। তিনি জানিয়েছিলেন যে এই ট্যাটুটি তৈরি করার সময় তাঁর মনে হয়েছিল যেন কেউ চোখে কাচের গুঁড়ো ঘষে দিচ্ছে।

<p><strong>এখনও অবধি, অ্যাম্বারের দেহে ৬০০টি ট্যাটু রয়েছে। সারা শরীর জুড়ে ট্যাটু করিয়েছেন এই কন্যে। নতুন কোনও ট্যাটু করানোর জায়গা আরা নেই। তারজন্য নতুন আইডিয়া ভেবেছেন তিনি।&nbsp;</strong><br />
&nbsp;</p>

এখনও অবধি, অ্যাম্বারের দেহে ৬০০টি ট্যাটু রয়েছে। সারা শরীর জুড়ে ট্যাটু করিয়েছেন এই কন্যে। নতুন কোনও ট্যাটু করানোর জায়গা আরা নেই। তারজন্য নতুন আইডিয়া ভেবেছেন তিনি। 
 

<p><strong>অ্যাম্বারের পরিকল্পনা হ'ল তিনি তাঁর ত্বককে কালো রঙে সাজাবেন। অর্থাৎ পুরো শরীর কালো কালি দিয়ে আঁকবেন। এর পরে সেই কালো রঙের উপর সাদা রঙের কালিটিতে একটি নতুন ট্যাটু তৈরি করা হবে।</strong></p>

অ্যাম্বারের পরিকল্পনা হ'ল তিনি তাঁর ত্বককে কালো রঙে সাজাবেন। অর্থাৎ পুরো শরীর কালো কালি দিয়ে আঁকবেন। এর পরে সেই কালো রঙের উপর সাদা রঙের কালিটিতে একটি নতুন ট্যাটু তৈরি করা হবে।

<p><strong>এর বাইরে ভবিষ্যতে দ্বিতীয়বার ব্রেস্ট ইমপ্ল্যান্টের পরিকল্পনাও করছেন তিনি। তাঁর এই ক্রেজিনেল নিয়ে এখন আলোচনা চলছে। নিজের ট্যাটুর ছবি &nbsp;দিয়েই &nbsp;ইনস্টাগ্রামে কয়েক হাজার ফলোয়ার তৈরি করেছেন অ্যাম্বার।</strong></p>

এর বাইরে ভবিষ্যতে দ্বিতীয়বার ব্রেস্ট ইমপ্ল্যান্টের পরিকল্পনাও করছেন তিনি। তাঁর এই ক্রেজিনেল নিয়ে এখন আলোচনা চলছে। নিজের ট্যাটুর ছবি  দিয়েই  ইনস্টাগ্রামে কয়েক হাজার ফলোয়ার তৈরি করেছেন অ্যাম্বার।

loader