আটা-ময়দা ভুলে ডায়াবেটিস রোগীদের ডায়েটে রাখুন এই ৪ ধরনের রুটি, কমবে কোলেস্টেরলের মাত্রাও

First Published Jan 4, 2021, 2:25 PM IST

 'মাছে ভাতে বাঙালি' বাঙালির ট্যাগলাইন হলেও  হাজারো সমস্যার কারণে সকলেই এখন সচেতন। অনেক বাঙালিরাই ভাত খাওয়া কমিয়ে দিয়েছেন নানান রোগের কারণে। দুপুরের লাঞ্চে ভাত থাকলেও রাতের বেলা ভাত একেবারে নৈব নৈব চ । কারণ একটাই রোগ। ডায়াবিটিসের মতো কঠিন রোগে আক্রান্ত দেশের প্রায় ৭০ মিলিয়ন মানুষ। আর যার কারণেই সকলে সচেতন। সঠিক খাওয়াদাওয়ার পাশাপাশি সুস্থ জীবনযাপনও ডায়াবিটিসকে নিয়ন্ত্রণে আনতে সাহায্য করে। তবে আটা কিংবা ময়দার রুটি নয়,  এমন কিছু স্বাস্থ্যকর রুটি রয়েছে যা ডায়াবিটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। দেখে নিন তালিকাটি।

প্রোটিন, ও ফাইবার যুক্ত খাবার-ডায়াবিটিস রোগীরা ডায়েটে বেশি করে প্রোটিন, ও ফাইবার যুক্ত খাবার রাখুন। এবং কার্বোহাইড্রেট ও সুগারের পরিমাণ কমালে  অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে রাখা যায় ডায়াবিটিসকে।

প্রোটিন, ও ফাইবার যুক্ত খাবার-ডায়াবিটিস রোগীরা ডায়েটে বেশি করে প্রোটিন, ও ফাইবার যুক্ত খাবার রাখুন। এবং কার্বোহাইড্রেট ও সুগারের পরিমাণ কমালে অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে রাখা যায় ডায়াবিটিসকে।

রাগির রুটি-  রাগি আটায় প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকে। ফাইবার অনেকক্ষণ পেট ভর্তি রাখে।  যার ফলে বার বার খিদে পাওয়ার প্রবণতা অনেকটাই কমে যায়। এবং ডায়াবিটিও নিয়ন্ত্রণে থাকে। এই কারণেই  ডায়াবিটিস রোগীদের রাগির আটার রুটি খাওয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা।

রাগির রুটি- রাগি আটায় প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকে। ফাইবার অনেকক্ষণ পেট ভর্তি রাখে। যার ফলে বার বার খিদে পাওয়ার প্রবণতা অনেকটাই কমে যায়। এবং ডায়াবিটিও নিয়ন্ত্রণে থাকে। এই কারণেই ডায়াবিটিস রোগীদের রাগির আটার রুটি খাওয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা।

বার্লির রুটি-বহু দিন ধরেই রোগীর পথ্য হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে বার্লি । বার্লি খেলে যেমন মেটাবলিজম বৃদ্ধি পায় তেমনই নানা রোগ থেকেও মুক্তি পাওয়া যায়। ময়দা-আটা ভুলে ডায়াবিটিসের রোগীরা অনায়াসেই বার্লির রুটি খেতে পারেন।

বার্লির রুটি-বহু দিন ধরেই রোগীর পথ্য হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে বার্লি । বার্লি খেলে যেমন মেটাবলিজম বৃদ্ধি পায় তেমনই নানা রোগ থেকেও মুক্তি পাওয়া যায়। ময়দা-আটা ভুলে ডায়াবিটিসের রোগীরা অনায়াসেই বার্লির রুটি খেতে পারেন।

ছোলার আটার রুটি-  আটা রুটি মানেই খারাপ তেমনটা মোটেই নয়, ছোলার আটায় প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকে যা কোলেস্টেরল মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে। এবং ডায়াবিটিস  নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্যও ছোলার আটার রুটি ভীষণই উপকারী।

ছোলার আটার রুটি- আটা রুটি মানেই খারাপ তেমনটা মোটেই নয়, ছোলার আটায় প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকে যা কোলেস্টেরল মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে। এবং ডায়াবিটিস নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্যও ছোলার আটার রুটি ভীষণই উপকারী।

আমড়ান আটা- অ্যান্টি-ডায়াবিটিক হিসেবে দীর্ঘদিন হিসেবে পরিচিত আমড়ান আটা।  এই  আটা দিয়ে রুটি ডায়াবিটিসের রোগীদের জন্য অনেক উপকারী। এই আটার মধ্যে প্রচুর পরিমাণে মিনারেল, প্রোটিন ও ভিটামিন থাকে, যা ডায়াবিটিসের রোগীদের জন্য অনেক ভাল।

আমড়ান আটা- অ্যান্টি-ডায়াবিটিক হিসেবে দীর্ঘদিন হিসেবে পরিচিত আমড়ান আটা। এই আটা দিয়ে রুটি ডায়াবিটিসের রোগীদের জন্য অনেক উপকারী। এই আটার মধ্যে প্রচুর পরিমাণে মিনারেল, প্রোটিন ও ভিটামিন থাকে, যা ডায়াবিটিসের রোগীদের জন্য অনেক ভাল।

Today's Poll

একসঙ্গে কতজন প্লেয়ারের সঙ্গে খেলতে পছন্দ করেন