18

২০১৬ তিনি ছিলেন ইসলামাবাদের 'সানডে বাজার'-এর একজন সাধারণ চাওয়ালা। জিয়া আলি নামে স্থানীয় এক ফটোগ্রাফার নীল চোখের সেই চা বিক্রেতার একটি ছবি তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছিলেন।

 

Subscribe to get breaking news alerts

28

সেই ছবিই আরশাদ খান-এর জীবনের মোড় ঘুরিয়ে দিয়েছিল। রাতারাতি তাঁর নীল চোখ এবং সুঠাম চেহারা জন্য গোটা বিশ্বে সেই ছবি ভাইরাল হয়েছিল। পরিচিতি পেয়েছিল চায়েওয়ালা নামে।

 

38

ইন্টারনেট সেনসেশন হয়ে উঠে বিনোদন জগতে উড়ান লাগিয়েছিলেন আরশাদ খান। ভাইরাল ছবিটির মাধ্যমে বিশ্বব্যাপী খ্যাতি অর্জনের পর তিনি পরপর মডেলিং এবং অভিনয়ের প্রস্তাব পেয়েছিলেন। এখন তিনি পাকিস্তানি বিনোদন জগতে নিজের জায়গা করে নিয়েছেন বলা যায়।

 

48

সেই 'চায়েওয়ালা' ফের ইন্টারনেটে ট্রেন্ড করছেন। তিনি ফিরে গিয়েছেন তাঁর শিকড়ে। ফের ইসলামাবাদে চা বিক্রি করছেন তিনি।

 

58

তবে এবার আর কোনও রাস্তার ধারের সাধারণ চায়ের দোকান নয়, নিজের শহর ইসলামাবাদে আরশাদ খান একটি রুফটপ ক্যাফে খুলেছেন, নাম 'ক্যাফে চায়েওয়ালা রুফটপ'।

 

68

সেখানে আধুনিক স্টাইলের চায়ের সঙ্গে সঙ্গে ১৫ থেকে ২০ রকমের খাওয়ারও পাওয়া যায়। আধুনিক সাজসজ্জার মধ্যেও দেশি ছোঁয়া রয়েছে সেই কাফেতে।

 

78

অনেকেই তাঁকে ক্যাফেটির নাম 'আরশাদ খান' রাখতে বলেছিল। কিন্তু তিনি জানিয়েছেন, 'চায়েওয়ালা' তাঁর পরিচয়ের একটা অংশ। তাই ক্যাফের নাম চায়েওয়ালাই হবে।

 

88

তবে ক্যাফেতে খুললেও বিনোদন জগৎ পুরোপুরি ছেড়ে দিচ্ছেন না চায়েওয়ালা আরশাদ খান। তিনি জানিয়েছেন, টিভিতে অভিনয় করছেন এবং এই ক্যাফে - এই দুইয়ের মধ্যে তিনি ভাগাভাগি করে সময় দিতে চান।