'হাউডি মোদী' থেকে 'নমস্তে ট্রাম্প', মার্কিন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে মিশে গেল টেক্সাস থেকে গুজরাত

First Published 23, Aug 2020, 6:58 PM

মার্কিন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে এবার মিলে মিশে এক হয়ে গেল নিউইয়র্ক থেকে গুজরাট। ভারতীয় আমেরিকার ভোটারদের প্রভাবিক করতে নতুন উদ্যোগ উদ্যোগ নিয়েছেন ট্রাম্প ভিক্ট্রি ফিনান্স কমিটির। এই কমিটির চেয়ারম্যান কিম্বারলি গিলফয়েল রবিবার বলেন ভারতের সঙ্গে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক খুবই ভালো। ভারতীয় মার্কিনিদের মধ্যে ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় তুমুল জনপ্রিয়তা পেয়েছে এই ভিডিওটি। এই ভিডিওতে রয়েছে 'হাউডি মোদি' থেকে  'নমস্তে ট্রাম্প' দুটি অনুষ্ঠানের কিছু কিছু ফুটেজ। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রায় ২ মিলিয়ন ভারতীয় থাকেন। মার্কিন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে সেইসব ভারতীয়দের মন জয় করতেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর তোলা স্লোগান 'আগামী দিনে ট্রাম্প সরকার'কেই প্রচারের একটি হাতিয়ার করেছেন বলে জানিয়েছেন রাদনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। 

<p><strong>চলতি বছর ফেব্রুয়ারি মাসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ভারতে এসেছিলেন। তাঁকে বর্ণাঢ্য স্বাগত জানিয়েছিল মোদীর রাজ্য গুজরাত। আমেদাবাদের বিশাল জনসমাগমকে স্বাগত জানিয়েছিলেন মোদী ও ট্রাম্প দুই রাষ্ট্র প্রধানই। </strong><br />
 </p>

চলতি বছর ফেব্রুয়ারি মাসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ভারতে এসেছিলেন। তাঁকে বর্ণাঢ্য স্বাগত জানিয়েছিল মোদীর রাজ্য গুজরাত। আমেদাবাদের বিশাল জনসমাগমকে স্বাগত জানিয়েছিলেন মোদী ও ট্রাম্প দুই রাষ্ট্র প্রধানই। 
 

<p><strong>মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ট ট্রাম্পের এই সফরের আগেই সেদেশে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। গতবছর দ্বিতীবার দিল্লির ক্ষমতা দখলের পরই টেক্টাসে প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানিয়েছিল প্রায় ৫০ হাজার ভারতীয় বংশোদ্ভূত আমেরিকান। </strong><br />
 </p>

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ট ট্রাম্পের এই সফরের আগেই সেদেশে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। গতবছর দ্বিতীবার দিল্লির ক্ষমতা দখলের পরই টেক্টাসে প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানিয়েছিল প্রায় ৫০ হাজার ভারতীয় বংশোদ্ভূত আমেরিকান। 
 

<p><strong>মোদীর মার্কিন সফরের পাশাপাশি ট্রাম্পের ভারত সফর রীতিমত জনপ্রিয়তা পেয়েছিল। আর সেই দুটি অনুষ্ঠানকেই মার্কিন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে হাতিয়ার করতে চাইছ ট্রাম্পের প্রচার দলের সদস্যরা। </strong></p>

<p> </p>

মোদীর মার্কিন সফরের পাশাপাশি ট্রাম্পের ভারত সফর রীতিমত জনপ্রিয়তা পেয়েছিল। আর সেই দুটি অনুষ্ঠানকেই মার্কিন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে হাতিয়ার করতে চাইছ ট্রাম্পের প্রচার দলের সদস্যরা। 

 

<p><strong>টেক্সসাসের অনুষ্ঠান থেকেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আপ কি বার ট্রাম্প সরকার বলে স্লোগান তুলেছিলেন। মোদীর এই স্লোগান নিয়ে রাজনৈতিক সমালোচনা শুরু হয়েছিল। কিন্তু তা রীতিমত জনপ্রিয় হয় মার্কিন মুকুলে। আর সেই কথা মাথায় রেখেই ভারতীয়দের প্রভাবিত করতে এই পথ বলেও দাবি করা হয়েছে ট্রাম্পের প্রচার দলের পক্ষ থেকে। </strong></p>

টেক্সসাসের অনুষ্ঠান থেকেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আপ কি বার ট্রাম্প সরকার বলে স্লোগান তুলেছিলেন। মোদীর এই স্লোগান নিয়ে রাজনৈতিক সমালোচনা শুরু হয়েছিল। কিন্তু তা রীতিমত জনপ্রিয় হয় মার্কিন মুকুলে। আর সেই কথা মাথায় রেখেই ভারতীয়দের প্রভাবিত করতে এই পথ বলেও দাবি করা হয়েছে ট্রাম্পের প্রচার দলের পক্ষ থেকে। 

<p><strong>একটি পরিসংখ্য অনুযায়ী পাওয়া তথ্য বলছে ১ কোটি ২০ লক্ষ মার্কিন ভারতীয় ভোটারের বড় অংশই ডেমোক্র্যাটিক দলের সমর্থক। </strong></p>

একটি পরিসংখ্য অনুযায়ী পাওয়া তথ্য বলছে ১ কোটি ২০ লক্ষ মার্কিন ভারতীয় ভোটারের বড় অংশই ডেমোক্র্যাটিক দলের সমর্থক। 

<p><strong>ডেমোক্র্যাটদের হয়ে ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন ভারতীয় বংশোদ্ভত কমলা হ্যারিস। তাই ভারতীয়দের বেশিরভাগ ভোটই ডেমোক্র্যাটদের বাক্সে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। </strong></p>

ডেমোক্র্যাটদের হয়ে ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন ভারতীয় বংশোদ্ভত কমলা হ্যারিস। তাই ভারতীয়দের বেশিরভাগ ভোটই ডেমোক্র্যাটদের বাক্সে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। 

<p><strong>সেই ভোট আটকাতেই নতুন এই পন্থা অবলম্বন করেছে রিপাবলিকানরা। তাতে রীতিমত সাড়া পড়েছে বলেও দাবি করা হচ্ছে দলের পক্ষ থেকে। </strong></p>

সেই ভোট আটকাতেই নতুন এই পন্থা অবলম্বন করেছে রিপাবলিকানরা। তাতে রীতিমত সাড়া পড়েছে বলেও দাবি করা হচ্ছে দলের পক্ষ থেকে। 

<p><strong>মোদী ও ট্রাম্পের ভিডিও পোস্টার করার মাত্র এক ঘণ্টার মধ্যেই তা রীতিমত সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। প্রথম কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ভিউয়ারের সংখ্যা ছি ৬৬ হাজার। </strong></p>

<p> </p>

মোদী ও ট্রাম্পের ভিডিও পোস্টার করার মাত্র এক ঘণ্টার মধ্যেই তা রীতিমত সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। প্রথম কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ভিউয়ারের সংখ্যা ছি ৬৬ হাজার। 

 

<p><strong>ফোর মোর ইয়ার শিরোনামেই ১০৭ সেকেন্ডের ভিডিওটে উপস্থাপনা করা হয়েছে ডোনাল্ড ট্রাম্প ও নরেন্দ্র মোদীর ভাষণের কিছু অংশ। </strong></p>

<p> </p>

ফোর মোর ইয়ার শিরোনামেই ১০৭ সেকেন্ডের ভিডিওটে উপস্থাপনা করা হয়েছে ডোনাল্ড ট্রাম্প ও নরেন্দ্র মোদীর ভাষণের কিছু অংশ। 

 

<p><strong>আর সেই ভিডিওতে  উপস্থাপনা করা হয়েছে দুই রাষ্ট্রপ্রধানকে ঘিরে ভারতীয়দের উচ্ছাসের ছবিও। </strong></p>

আর সেই ভিডিওতে  উপস্থাপনা করা হয়েছে দুই রাষ্ট্রপ্রধানকে ঘিরে ভারতীয়দের উচ্ছাসের ছবিও। 

loader