ফের প্রেসিডেন্টের চেয়ারে বসতে হাতিয়ার মোদী, মার্কিনি ভারতীয়দের ভোট পেতে নরেন্দ্র বন্দনায় কসুর নেই ট্রাম্পের

First Published 5, Sep 2020, 9:31 AM

এগিয়ে আসছে পৃথিবীর সবচেয়ে শক্তিশালী দেশের রাষ্ট্রপতি নির্বাচন। ডেমোক্র্যাটরা ঘর গোছাতে শুরু করে দিয়েছে। মার্কিনি ভারতীয়দের ভোট দখলে কমলা হ্যারিসকে হাতিয়ের করেছে তারা। এবার ময়দানে নেমেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্পও। তিনি হাতিয়ার করেছেন খোদ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে। আমেরিকায় ২ মিলিয়ন মার্কিনি ভারতীয় ভোটার রয়েছেন। সেই কারণে মোদীর জনপ্রিয়তাকে হাতিয়ার করতে চাইছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

<p><strong>এগিয়ে আসছে আমেরিকার রাষ্ট্রপতি নির্বাচন। ট্রাম্পকে পরাস্ত করার অস্ত্রে শান দিচ্ছে ডেমোক্র্যাটরা। অন্যদিকে ক্ষমতা বজায় রাখার মরিয়া চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন ট্রাম্প। দুই শিবিরের বড় ভোট ব্যাঙ্ক মার্কিনি ভারতীয়রা। তাদের ভোট দখল করতে একের পর এক নয়া কৌশন নিয়ে চলেছেন দুই শিবির।</strong></p>

এগিয়ে আসছে আমেরিকার রাষ্ট্রপতি নির্বাচন। ট্রাম্পকে পরাস্ত করার অস্ত্রে শান দিচ্ছে ডেমোক্র্যাটরা। অন্যদিকে ক্ষমতা বজায় রাখার মরিয়া চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন ট্রাম্প। দুই শিবিরের বড় ভোট ব্যাঙ্ক মার্কিনি ভারতীয়রা। তাদের ভোট দখল করতে একের পর এক নয়া কৌশন নিয়ে চলেছেন দুই শিবির।

<p><strong>আমেরিকায় মার্কিনি ভারতীয়দের ভোট দখলে ডোনাল্ড ট্রাম্প হাতিয়ার করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে। সেই পথেই এগোচ্ছে তাঁর রণকৌশন। হাউস্টনে হাউডি মোদী সভায় যোগ দিয়ে তার ব্লু প্রিন্ট সাজিয়ে ফেলেছিলেন ট্রাম্প। তারপরে ভারত সফরে সেই ব্লু প্রিন্ট চূড়ান্ত করেছেন। প্রবাসী ভারতীয়দের মধ্যো মোদীর জনপ্রিয়তা যে এই মুহূর্তে তুঙ্গে সেকথা ভেবেই মার্কিনি ভারতীয়দের ভোট দখলে রণকৌশল ঠিক করে ফেলেছে ট্রাম্প।</strong></p>

আমেরিকায় মার্কিনি ভারতীয়দের ভোট দখলে ডোনাল্ড ট্রাম্প হাতিয়ার করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে। সেই পথেই এগোচ্ছে তাঁর রণকৌশন। হাউস্টনে হাউডি মোদী সভায় যোগ দিয়ে তার ব্লু প্রিন্ট সাজিয়ে ফেলেছিলেন ট্রাম্প। তারপরে ভারত সফরে সেই ব্লু প্রিন্ট চূড়ান্ত করেছেন। প্রবাসী ভারতীয়দের মধ্যো মোদীর জনপ্রিয়তা যে এই মুহূর্তে তুঙ্গে সেকথা ভেবেই মার্কিনি ভারতীয়দের ভোট দখলে রণকৌশল ঠিক করে ফেলেছে ট্রাম্প।

<p><strong>মোদীর হাত ধরেই মার্কিনি ভারতীয়দের মধ্যে নিজের জনপ্রিয়তা বাড়াতে অনেকটাই সফল মার্কিন প্রেসিডেন্ট। ফোর মোর ইয়ার্স নাম দিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচার শুরু করেছেন তিনি। এই ভিডিওতে মোদীর সঙ্গে ট্রাম্পের একাধিক ছবি দেওয়া হয়েছে।</strong></p>

মোদীর হাত ধরেই মার্কিনি ভারতীয়দের মধ্যে নিজের জনপ্রিয়তা বাড়াতে অনেকটাই সফল মার্কিন প্রেসিডেন্ট। ফোর মোর ইয়ার্স নাম দিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচার শুরু করেছেন তিনি। এই ভিডিওতে মোদীর সঙ্গে ট্রাম্পের একাধিক ছবি দেওয়া হয়েছে।

<p><strong>‘নরেন্দ্র মোদী আমার খুব ভালো বন্ধু। উনি দারুণ কাজ করছেন।’ ফের বন্ধুত্বের সুর শোনা গিয়েছে মার্কিন প্রসিডেন্টের গলায়।&nbsp;</strong></p>

‘নরেন্দ্র মোদী আমার খুব ভালো বন্ধু। উনি দারুণ কাজ করছেন।’ ফের বন্ধুত্বের সুর শোনা গিয়েছে মার্কিন প্রসিডেন্টের গলায়। 

<p><strong>আমেরিকার প্রসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান মুখে ট্রাম্পের আশা, তাঁর পাশে রয়েছেন নরেন্দ্র মোদী, পাশে রয়েছে আমেরিকা নিবাসী ভারতীয়রাও। এমনই আশা প্রকাশ করতে দেখা গিয়েছে তাঁকে। সেখানে তিনি স্পষ্ট বলেছেন, আমেরিকা নিবাসী ভারতীয়রা ট্রাম্পকেই ভোট দেবে।&nbsp;</strong></p>

আমেরিকার প্রসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান মুখে ট্রাম্পের আশা, তাঁর পাশে রয়েছেন নরেন্দ্র মোদী, পাশে রয়েছে আমেরিকা নিবাসী ভারতীয়রাও। এমনই আশা প্রকাশ করতে দেখা গিয়েছে তাঁকে। সেখানে তিনি স্পষ্ট বলেছেন, আমেরিকা নিবাসী ভারতীয়রা ট্রাম্পকেই ভোট দেবে। 

<p><strong>হোয়াইট হাউসের সাংবাদিক বৈঠকেও তিনি বলেন, আমাদের কাছে ভারতীয়দের সমর্থন রয়েছে। আমাদের কাছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সমর্থন রয়েছে।</strong><br />
&nbsp;</p>

হোয়াইট হাউসের সাংবাদিক বৈঠকেও তিনি বলেন, আমাদের কাছে ভারতীয়দের সমর্থন রয়েছে। আমাদের কাছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সমর্থন রয়েছে।
 

<p><strong>“ফোর মোর ইয়ার্স” শিরোনামে প্রচার ভিডিওতে &nbsp;একটি প্রশ্নের উত্তরে তাঁকে বলতে শোনা গিয়েছে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আমার খুব ভালো বন্ধু। উনি দারুণ কাজ করছেন। অনেক কঠিন পরিস্থিতিতেও দারুণ কাজ করছেন।</strong></p>

“ফোর মোর ইয়ার্স” শিরোনামে প্রচার ভিডিওতে  একটি প্রশ্নের উত্তরে তাঁকে বলতে শোনা গিয়েছে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আমার খুব ভালো বন্ধু। উনি দারুণ কাজ করছেন। অনেক কঠিন পরিস্থিতিতেও দারুণ কাজ করছেন।

<p><strong>এবার লাদাখ নিয়ে সীমান্ত সমস্যাতেও ভারতের পাশে খোলাখুলি দাঁড়াতে দেখা গেল ট্রাম্পকে। রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্পকে শুক্রবার ফের একবার বলতে শোনা গেল, পশ্চিম হিমালয় পর্বতমালার যে পার্বত্য রেঞ্জ নিয়ে ভারত ও চিনের মধ্যে বিরোধ তার নিষ্পত্তিতে &nbsp;সহায়তা করতে প্রস্তুত আমেরিকা। তিনি বলেন, "আমরা চিন ও ভারতের সাথে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার জন্য সাহায্য করতে প্রস্তুত।"</strong></p>

এবার লাদাখ নিয়ে সীমান্ত সমস্যাতেও ভারতের পাশে খোলাখুলি দাঁড়াতে দেখা গেল ট্রাম্পকে। রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্পকে শুক্রবার ফের একবার বলতে শোনা গেল, পশ্চিম হিমালয় পর্বতমালার যে পার্বত্য রেঞ্জ নিয়ে ভারত ও চিনের মধ্যে বিরোধ তার নিষ্পত্তিতে  সহায়তা করতে প্রস্তুত আমেরিকা। তিনি বলেন, "আমরা চিন ও ভারতের সাথে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার জন্য সাহায্য করতে প্রস্তুত।"

<p><strong>ভোটপ্রচারে ফের একবার &nbsp;চিনকে আক্রমণ করেছেন ট্রাম্প। তিনি বলেন, &nbsp;এই সময়ে রাশিয়ার চেয়েও চিনকে নিয়ে বেশি আলোচনা করা উচিত, কারণ যে কাজটি তারা &nbsp;করছে সেটি &nbsp;আরও খারাপ। ট্রাম্পের দাবি চিনের কারণেই বিশ্বজুড়ে ১৮৮ টি দেশে একটি ভাইরাস ধ্বংসের সৃষ্টি করেছে। বিশ্ব তা দেখে গেছে।</strong></p>

ভোটপ্রচারে ফের একবার  চিনকে আক্রমণ করেছেন ট্রাম্প। তিনি বলেন,  এই সময়ে রাশিয়ার চেয়েও চিনকে নিয়ে বেশি আলোচনা করা উচিত, কারণ যে কাজটি তারা  করছে সেটি  আরও খারাপ। ট্রাম্পের দাবি চিনের কারণেই বিশ্বজুড়ে ১৮৮ টি দেশে একটি ভাইরাস ধ্বংসের সৃষ্টি করেছে। বিশ্ব তা দেখে গেছে।

<p><strong>সীমান্তে ভারত ও চিনের মধ্যে চলমান উত্তেজনা প্রসঙ্গে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, পরিস্থিতি এখন খুব খারাপ। আমরা চিন ও ভারতকে চাপ কমাতে সাহায্য করতে সর্বদা প্রস্তুত। তিনি বলেন, আমরা দু'দেশের সাথে এই বিষয়গুলিতে কথা বলব। পুরো বিশ্ব চিনের চতুরতা সম্পর্কে বুঝতে পারছে।</strong></p>

সীমান্তে ভারত ও চিনের মধ্যে চলমান উত্তেজনা প্রসঙ্গে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, পরিস্থিতি এখন খুব খারাপ। আমরা চিন ও ভারতকে চাপ কমাতে সাহায্য করতে সর্বদা প্রস্তুত। তিনি বলেন, আমরা দু'দেশের সাথে এই বিষয়গুলিতে কথা বলব। পুরো বিশ্ব চিনের চতুরতা সম্পর্কে বুঝতে পারছে।

loader