আমেরিকায় প্রকৃত আক্রান্তের সংখ্যা ‘১০ গুণ’ বেশি, ছাড়িয়ে গিয়েছে ২ কোটির গণ্ডি

First Published 26, Jun 2020, 1:26 PM

বিশ্বে করোনা আক্রান্ত দেশগুলির মধ্যে এক নম্বরে রয়েছে আমেরিকা।  রিয়েল-টাইম ডাটা বিষয়ক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রে এখনও পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ২৫ লক্ষ ৪ হাজার ৬৭৬  জন। তবে দেশটির স্বাস্থ্য বিভাগের আধিকারিকদের ধারণা কিন্তু অন্যরকন।  ইতোমধ্যে সেই দেশে অন্তত ২০ মিলিয়ন (দুই কোটি) মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে আশঙ্কা করছেন স্বাস্থ্য কর্তারা। 
 

<p><strong>প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের তাণ্ডবে দিশেহারা বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর রাষ্ট্র আমেরিকা। সরকারি হিসাব অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ২৫ লক্ষেরও বেশি মানুষ।</strong></p>

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের তাণ্ডবে দিশেহারা বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর রাষ্ট্র আমেরিকা। সরকারি হিসাব অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ২৫ লক্ষেরও বেশি মানুষ।

<p><strong>আমেরিকায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রমণের শিকার হয়েছে ৩৯,৩২৭ জন। যা দেশটিতে দৈনিক সংক্রমণে এখনও পর্যন্ত রেকর্ড বলেই জানা যাচ্ছে।</strong></p>

আমেরিকায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রমণের শিকার হয়েছে ৩৯,৩২৭ জন। যা দেশটিতে দৈনিক সংক্রমণে এখনও পর্যন্ত রেকর্ড বলেই জানা যাচ্ছে।

<p><strong>তবে আমেরিকার এক  স্বাস্থ্য কর্মকর্তা জানাচ্ছেন, যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্তের সংখ্যা ২ কোটির উপরে। এমন অনেকেই আছেন যারা আক্রান্ত হয়েছেন কিন্তু জানেন না। আমেরিকার রোগ নিয়ন্ত্রণ ও নিরাময় কেন্দ্র সিডিসির ডিরেক্টর ড. রবার্ট রেডফিল্ড বলেছেন, আমরা এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে করোনা সংক্রমণের যে চিত্র দেখেছি, প্রকৃতপক্ষে তারচেয়ে ১০ গুণ মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।</strong></p>

তবে আমেরিকার এক  স্বাস্থ্য কর্মকর্তা জানাচ্ছেন, যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্তের সংখ্যা ২ কোটির উপরে। এমন অনেকেই আছেন যারা আক্রান্ত হয়েছেন কিন্তু জানেন না। আমেরিকার রোগ নিয়ন্ত্রণ ও নিরাময় কেন্দ্র সিডিসির ডিরেক্টর ড. রবার্ট রেডফিল্ড বলেছেন, আমরা এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে করোনা সংক্রমণের যে চিত্র দেখেছি, প্রকৃতপক্ষে তারচেয়ে ১০ গুণ মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

<p><strong>সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন রাজ্যে বাড়তে শুরু করেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। ওই কর্মকর্তা মনে করছেন দেশব্যাপী আতঙ্ক যাতে না ছাড়ায় সে কারণে ট্রাম্প প্রশাসন প্রকৃত তথ্য জানাচ্ছে না।</strong></p>

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন রাজ্যে বাড়তে শুরু করেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। ওই কর্মকর্তা মনে করছেন দেশব্যাপী আতঙ্ক যাতে না ছাড়ায় সে কারণে ট্রাম্প প্রশাসন প্রকৃত তথ্য জানাচ্ছে না।

<p><strong>আমেরিকায় প্রকৃত আক্রান্তের সংখ্যা  ২ কোটির উপরে। এর মানে দাঁড়াচ্ছে দেশটির ৬ শতাংশ মানুষই  ইতিমধ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। কারণ আমেরিকার মোট জনসংখ্যা ৩৩ কোটি।</strong></p>

আমেরিকায় প্রকৃত আক্রান্তের সংখ্যা  ২ কোটির উপরে। এর মানে দাঁড়াচ্ছে দেশটির ৬ শতাংশ মানুষই  ইতিমধ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। কারণ আমেরিকার মোট জনসংখ্যা ৩৩ কোটি।

<p><strong>এর আগে আমেরিকার রোগ নিয়ন্ত্রণ ও নিরাময় কেন্দ্রের (সিডিসি) বিশেষজ্ঞ ডা. অ্যান্থনি ফাউচি জানিয়েছিলেন, দেশটির মোট আক্রান্তের ২৫ শতাংশ জানেনই না যে তারা করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। কারণ, তাদের মধ্যে কোনও লক্ষণ প্রকাশ পায়নি।</strong></p>

এর আগে আমেরিকার রোগ নিয়ন্ত্রণ ও নিরাময় কেন্দ্রের (সিডিসি) বিশেষজ্ঞ ডা. অ্যান্থনি ফাউচি জানিয়েছিলেন, দেশটির মোট আক্রান্তের ২৫ শতাংশ জানেনই না যে তারা করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। কারণ, তাদের মধ্যে কোনও লক্ষণ প্রকাশ পায়নি।

<p><strong>সম্প্রতি সিডিসি দেশব্যাপী ব্লাড স্যাম্পল সংগ্রহ করতে শুরু করেছে। সেটার ভিত্তিতে দেখা যাচ্ছে মহামারীর শুরুতে অনেকে বুঝতেই পারেননি যে তারা করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাছাড়া শুরুর দিকে অনেকে টেস্ট করারই সুযোগ পাননি। তখন যাদের মধ্যে করোনার লক্ষণ ছিল কেবল তাদের টেস্ট করানো হয়েছিল।</strong></p>

সম্প্রতি সিডিসি দেশব্যাপী ব্লাড স্যাম্পল সংগ্রহ করতে শুরু করেছে। সেটার ভিত্তিতে দেখা যাচ্ছে মহামারীর শুরুতে অনেকে বুঝতেই পারেননি যে তারা করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাছাড়া শুরুর দিকে অনেকে টেস্ট করারই সুযোগ পাননি। তখন যাদের মধ্যে করোনার লক্ষণ ছিল কেবল তাদের টেস্ট করানো হয়েছিল।

<p><strong>সাম্প্রতিক সময়ে  যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ও পশ্চিমের অঙ্গরাজ্যগুলোতে বেশি সংক্রমণের খবর পাওয়া যাচ্ছে। আগামী দিনগুলিতে রাজ্যগুলোতে সংক্রমণ ভয়াবহ আকার ধারণ করবে বলে সতর্ক করে দিয়েছেন আমেরিকার শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ড. অ্যান্থনি ফাউচি।</strong></p>

সাম্প্রতিক সময়ে  যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ও পশ্চিমের অঙ্গরাজ্যগুলোতে বেশি সংক্রমণের খবর পাওয়া যাচ্ছে। আগামী দিনগুলিতে রাজ্যগুলোতে সংক্রমণ ভয়াবহ আকার ধারণ করবে বলে সতর্ক করে দিয়েছেন আমেরিকার শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ড. অ্যান্থনি ফাউচি।

<p><strong>জোরালোভাবে করোনা টেস্টিং না করাকেই এজন্য দায়ী করছে সিডিসি। যুক্তরাষ্ট্রের এই স্বাস্থ্য সংস্থাটি বলছে, উপসর্গবিহীন ও উপসর্গ দেখা দেয়া ব্যক্তিদের সেভাবে করোনা পরীক্ষা করা হয়নি। যে কারণে আক্রান্তের সংখ্যাটা অনেক গভীরে গেছে।</strong></p>

জোরালোভাবে করোনা টেস্টিং না করাকেই এজন্য দায়ী করছে সিডিসি। যুক্তরাষ্ট্রের এই স্বাস্থ্য সংস্থাটি বলছে, উপসর্গবিহীন ও উপসর্গ দেখা দেয়া ব্যক্তিদের সেভাবে করোনা পরীক্ষা করা হয়নি। যে কারণে আক্রান্তের সংখ্যাটা অনেক গভীরে গেছে।

<p><strong>দ্য ইউনিভার্সিটি অব ওয়াশিংটন আশঙ্কা করছে, যদিও ৯৫ শতাংশ আমেরিকান মাস্ক পরেন, তারপরও আগামী অক্টোবরের মধ্যে এক লাখ ৪৬ হাজার থেকে এক লাখ ৮০ হাজার আমেরিকান মারা যাবেন করোনায়।</strong></p>

দ্য ইউনিভার্সিটি অব ওয়াশিংটন আশঙ্কা করছে, যদিও ৯৫ শতাংশ আমেরিকান মাস্ক পরেন, তারপরও আগামী অক্টোবরের মধ্যে এক লাখ ৪৬ হাজার থেকে এক লাখ ৮০ হাজার আমেরিকান মারা যাবেন করোনায়।

<p><strong>এদিকে ট্রাম্প প্রশাসন প্রচার চালাচ্ছে , করোনাভাইরাস যুক্তরাষ্ট্রে দুর্বল হয়ে পড়েছে। আস্তে আস্তে বিদায় নিচ্ছে। কিন্তু প্রকৃত চিত্র ঠিক তার বিপরীত।</strong></p>

এদিকে ট্রাম্প প্রশাসন প্রচার চালাচ্ছে , করোনাভাইরাস যুক্তরাষ্ট্রে দুর্বল হয়ে পড়েছে। আস্তে আস্তে বিদায় নিচ্ছে। কিন্তু প্রকৃত চিত্র ঠিক তার বিপরীত।

<p><strong>যুক্তরাষ্ট্রের দ্য সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল (সিডিসি) বলছে, প্রকৃত তথ্য হলো প্রকাশিত সংখ্যার অন্তত ১০ গুণ বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।</strong></p>

যুক্তরাষ্ট্রের দ্য সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল (সিডিসি) বলছে, প্রকৃত তথ্য হলো প্রকাশিত সংখ্যার অন্তত ১০ গুণ বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

loader