110

কৃষি আইন, অত্যাবশ্যকীয় পণ্য পরিষেবা আইন সহ সাত দফা দাবিতে বৃহস্পতিবার দেশ জুড়ে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছিল কেন্দ্রীয় শ্রমিক সংগঠনগুলি। বনধ ঘিরে দেশের বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষিপ্ত অশান্তি ছবি দেখা গিয়েছে। এ রাজ্যের বনধের প্রভাব পড়ল যথেষ্ট।

Subscribe to get breaking news alerts

210

বারাসতে বামদের ধর্মঘট ঘিরে তুমুল উত্তেজনা ছড়ায়। ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করতে পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তি হয় বাম-কংগ্রেস সমর্থকদের।

310

বারসতের হেলাবটতলা মোড়ে বামেদের বিক্ষোভের জেরে উত্তেজনা দেখা দেয় এলাকায়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে লাঠি চালায় পুলিশ। সিপিএম ও বাম কর্মী সমর্থকদের গ্রেফতার করতে বনধ সমর্থনাকারীদের পুলিশ তাড়া করে। পুলিশের লাছির ঘায়ে জখম হয়েছেন বেশ কয়েকজন।

410

অন্যদিকে, পশ্চিম মেদিনীপুরে বনধ সফল করতে অভিনব পন্থা নেয় বাম যুবর সমর্থকরা। মেদিনীপুর শহরের কালেক্টি মোড়ে সরকারি বাস আটকে রাস্তার উপর ক্রিকেট খেলতে শুরু করে। পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

510

বনধ সফল করতে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় রাস্তা অবরোধ করে বনধ সমর্থনকারীরা। একইসঙ্গে রাস্তার উপর টায়ার ও আগুন জ্বালিয়েও বিক্ষোভ দেখানো হয়।

610

বৃহস্পতিবার বামেদের বিক্ষোভের কারনে বিভিন্ন জায়গায় লোকাল ট্রেন চলাচল ব্যাহত হয়। দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্যানিং, বারুইপুর, ডায়মন্ড হারবার, জয়নগর সহ ট্রেন অবরোধ করে বিক্ষোভ বাম-কংগ্রেস সমর্থকদের।

710

পূর্ব মেদিনীপুরে বনধের মিশ্র প্রভাব পড়ে। কেন্দ্রীয় নীতির বিরোধিতা ও সাত দফা দাবিতে জেলার বিভিন্ন জায়গায় মিছিল করে সিপিএম। 
 

810


পূর্ব মেদিনীপুরের বিভিন্ন জায়গায় ধর্মঘটের সমর্থনে মিছিল করে বামেরা। কেন্দ্রীয় নীতির বিরোধিতায় স্লোগান তুলে বিভিন্ন জায়গায় রাস্তা অবরোধ করে। পাশাপাশি, বনধের মিশ্র প্রভাব পড়ে মুর্শিদাবাদে।

910

অন্যদিকে, শিয়ালদহ দক্ষিণ শাখায় বিভিন্ন জায়গায় ট্রেন অবরোধ করে বনধ সমর্থনকারীরা। লক্ষ্মীকান্তপুর লাইনে বিভিন্ন জায়গায় ট্রেন অবরোধ হয়। নদিয়ার চাকদহে প্রধানমন্ত্রীর কুশপুত্তলিকা পুড়িয়ে বিক্ষোভ দেখায় বাম-কংগ্রেস সমর্থকরা।

1010

গোটা দেশে বাম শ্রমিক সংগঠনের ডাকা ধর্মঘট সফল হয়েছে বলে দাবি করলেন সিপিএম নেতা মহম্মদ সেলিম। অন্যদিকে, বামেদের ধর্মঘটে মাঝেরহাটে বিজেপির বিক্ষোভের তীব্র সমালোচনা করেন সেলিম।