Asianet News BanglaAsianet News Bangla

কিডনিতে স্টোন? এই ৭টি ঘরোয়া উপায়ে সারিয়ে ফেলুন সমস্যা

আমাদের দেশে কিডনির সমস্যায় আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা খুব একটা কম নয়। ক্রমশ দিনে দিনে বেড়েই চলছে এর সংখ্যা। বর্তমানে কিডনি স্টোন বা বৃক্কে পাথর জমার সমস্যা এখন প্রায়ই শোনা যায়। কিডনি সমস্যাগুলির মধ্যে অন্যতম হল কিডনিতে স্টোন বা পাথর হওয়ার সমস্যা।

7 Home Remedies To Dissolve Kidney Stones Naturally bpsb
Author
Kolkata, First Published Jul 8, 2022, 11:03 AM IST

শরীরের সঠিকভাবে কাজ করার জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গগুলির মধ্যে একটি হল কিডনি। কিডনি আমাদের শরীর থেকে বর্জ্য এবং দূষক পদার্থ অপসারণ করতে রক্তকে ফিল্টার করে, যেমন অতিরিক্ত তরল, এবং সঠিক পরিমাণে ইলেক্ট্রোলাইট বজায় রাখতে। কিডনি পাথরের সমস্যা বর্তমানে অতিপরিচিত একটি রোগ। মানবে দেহের সবচেয়ে পরিচিত একটি অঙ্গ এটি। কিডনি অচল হয়ে যাওয়া মানে অবধারিত মৃত্যু। একটি ছোট পাথর উপসর্গ সৃষ্টি না করেও কিডনিতে হতে পাড়ে। যদি একটি পাথর ৫ মিলিমিটার থেকে বেশি হয় তবে এর ফলে ইউটেরাস এর বাধা হতে পারে যার ফলে নিম্ন পেট বা পেটে তীব্র ব্যথা হয়। 

আমাদের দেশে কিডনির সমস্যায় আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা খুব একটা কম নয়। ক্রমশ দিনে দিনে বেড়েই চলছে এর সংখ্যা। বর্তমানে কিডনি স্টোন বা বৃক্কে পাথর জমার সমস্যা এখন প্রায়ই শোনা যায়। কিডনি সমস্যাগুলির মধ্যে অন্যতম হল কিডনিতে স্টোন বা পাথর হওয়ার সমস্যা। 

ঘরে বসেই কিডনির স্টোন সারিয়ে ফেলা যায়। রইল ৭টি উপায়:

লেবুর রস: সমস্ত সাইট্রাস ফলের মধ্যে, লেবুতে সর্বাধিক পরিমাণে সাইট্রেট থাকে, এমন একটি উপাদান যা প্রাকৃতিকভাবে কিডনিতে পাথর তৈরি হতে বাধা দেয়। অন্যান্য ফলের রসে অক্সালেট থাকে, যা কিডনির পাথরের অন্যতম প্রধান উপাদান এবং এতে কম সাইট্রেট থাকে, যে কারণে প্রতিদিন দুই লিটার জলে চার আউন্স লেবুর রস পান করা পাথরের গঠনকে ধীর করতে সাহায্য করতে পারে। অন্যান্য ফলের রসও প্রায়শই ক্যালসিয়াম-ফোর্টিফাইড থাকে এবং এতে কম সাইট্রেট থাকে।

পানীয় জল: লিভার এবং মস্তিষ্ক সহ প্রতিটি অঙ্গের স্বাস্থ্য এবং কার্যকারিতার জন্য জল অপরিহার্য। কিডনির প্রস্রাব তৈরির জন্য জলের প্রয়োজন কারণ এটি শরীরের ফিল্টারিং প্রক্রিয়াকে চালু রাখে। শরীরে অবাঞ্ছিত বা অপ্রয়োজনীয় পদার্থগুলিকে প্রাথমিকভাবে প্রস্রাব হিসাবে নির্গত করে দেওয়া হয়। পুরুষ এবং মহিলাদের জন্য, যথাক্রমে, দৈনিক প্রসাবের পরিমাণ হতে হবে ৩.৭ লিটার এবং ২.৭ লিটার।

ডালিমের রস: ডালিম ঘন ঘন আলসার এবং ডায়রিয়া সহ অসুস্থতা নিরাময়ের জন্য ব্যবহার করা হয়, এবং কারণ এটি ক্যালসিয়াম অক্সালেট কমায় এবং এটি অ্যান্টিঅক্সিডেন্টগুলিতেও সমৃদ্ধ, যা কিডনিকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে এবং কিডনিতে পাথর হওয়া প্রতিরোধে ভূমিকা রাখতে পারে। এটি আপনার প্রস্রাবের অ্যাসিডিটির মাত্রাও কমিয়ে দেয়। নিম্ন অম্লতার মাত্রা ভবিষ্যতে কিডনি পাথরের জন্য আপনার ঝুঁকি কমায়।

7 Home Remedies To Dissolve Kidney Stones Naturally bpsb

রাজমা: রাজমা কার্যকরভাবে কিডনিতে পাথর অপসারণ করতে এবং কিডনি পরিষ্কার করতে সহায়ক। রাজমার গুরুত্বপূর্ণ খনিজগুলিও অন্তর্ভুক্ত করে যা ওজন কমাতে সহায়তা করে। কিডনি বিনস, বা রাজমা প্রোটিন সমৃদ্ধ এবং এতে দ্রবণীয় এবং অদ্রবণীয় ফাইবারের সংমিশ্রণ রয়েছে যা আপনার পাচনতন্ত্রের জন্য স্বাস্থ্যকর। কিডনি মটরশুটিতে উপস্থিত ভিটামিন বি পাথর দ্রবীভূত করতে এবং ফ্লাশ করতে এবং কিডনির সামগ্রিক কার্যকারিতায় সহায়তা করে। আপনি কিডনি বিনের ঝোল বা রাজমা আপনার ডায়েটে যোগ করতে পারেন।

ড্যান্ডেলিয়ন জুস: ড্যানডেলিয়নগুলিতে ভিটামিন (এ, বি, সি, ডি) এবং পটাসিয়াম, আয়রন এবং জিঙ্কের মতো খনিজ রয়েছে। ড্যান্ডেলিয়ন জুস পিত্ত নিঃসরণ বাড়াতে সাহায্য করে এবং শরীর থেকে টক্সিন দূর করতে সাহায্য করে। ২-৪ কাপ ড্যান্ডেলিয়ন চা পান করা পাথর তৈরিতে আটকায়। আপনি তাজা ড্যান্ডেলিয়ন জুস তৈরি করতে পারেন বা এটি চা হিসাবে কিনতে পারেন। এর সঙ্গে কমলার খোসা, আদা এবং আপেলও যোগ করতে পারেন। সারা দিন ৩-৪ কাপ পান করুন।

উইটগ্রাস জুস: উইটগ্রাস দীর্ঘকাল ধরে স্বাস্থ্যের উন্নতির জন্য ব্যবহৃত হয়ে আসছে কারণ এটি অসংখ্য পুষ্টিগুণে সমৃদ্ধ। উইটগ্রাস প্রস্রাবের প্রবাহ বাড়ায় যা পাথর বের করতে সাহায্য করে। উপরন্তু, এটিতে প্রয়োজনীয় পুষ্টি রয়েছে যা কিডনি পরিষ্কার করতে সহায়তা করে। যদি তাজা গমের ঘাসের রস সহজে অ্যাক্সেসযোগ্য না হয়, আপনি নির্দেশ অনুসারে গুঁড়ো উইটগ্রাসের পরিপূরক গ্রহণ করতে পারেন।

গ্রিন টি: গ্রিন টি নির্যাস ক্যালসিয়াম অক্সালেটের সাথে মিলিত হয়। গ্রিন টির সহায়তায় কিডনিতে পাথরে ক্রিস্টালাইজ হয় না। ক্ষুদ্র স্ফটিকগুলি সহজেই প্রস্রাব থেকে সরানো হয়। নিয়মিত গ্রিন টি পান করা দীর্ঘ সময়ের জন্য কিডনির স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী হতে পারে।

আরও পড়ুন- আপনার পিঠেরও একই অবস্থা, আজ থেকে ব্যবহার করুন এই অব্যর্থ টোটকা

আরও পড়ুন- মাত্র ২ সপ্তাহে কমবে ৫ কেজি ওজন, মেনে চলুন এই ম্যজিক ডায়েট

আরও পড়ুন- ৪০ বছরের পরেই শুরু করুন এই ওষুধগুলো খাওয়া, শরীর থাকবে ফিট

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios