বিশ্বনাথ দাস, হাওড়া-সাপ্তাহিক লকডাউনে চাঞ্চল্য়কর দৃশ্য দেখা গেল হওড়ায়। পুলিশের নজরদারির অভাবে লঞ্চঘাটে বসে অবাধে চলছে গাঁজার আসর। পুলিশের নজরদারির বালাই না থাকায় লঞ্চঘাটেই চলছে অবাধে সুখটান। লকডাউনের নিয়মে তোয়াক্কা না করেই লঞ্চঘাটে মাদকাশক্তদের ভিড়।

আরও পড়ুন-সুখা মাটিতে শিকড় শক্ত পদ্মফুলের, এখন তৃণমূলের অবস্থান কোথায়

এই চাঞ্চল্যকর ছবিটি ধরা পড়েছে রামকষ্ণপুর লঞ্চঘাটে। লকডাউনের জেরে ফেরি পরিষেবা আপাতত বন্ধ। সেকারণে সাধারণ মানুষের সেরকম আনাগোনা নেই ওই চত্বরে। স্বাভাবিকভাবেই পুলিশের নজরদারির অভাব থাকায় রীতিমত গাঁজার আসর বসেছে হাওড়া স্টেশন চত্বর লাগোয়া ফেরিঘাটে।

অভিযোগ, রামকৃষ্ণপুর লঞ্চঘাটটিতে সেভাবে নজরদারি নেই পুলিশের। তার ফলে নেশার আসর দিনে দিনে বাড়ছে। এমনকি সোমবার লকডাউনের দিনেও অবাধে গাঁজায় সুখটান দিতে গেল তাদের। মুখে মাস্ক নেই, সামাজিক দূরত্ব বিধি না মেনেই চলছে গাঁজার আসর। 

আরও পড়ুন-রূপনারায়ণ নদীতে সন্দেহজনক ট্রলার ঘিরে রহস্য

অন্যদিকে, হাওড়া স্টেশন চত্বরেও দেখা গেল আরও এক অন্য ছবি। স্টেশনের বাইরে দেখা গেল আটকে পড়া যাত্রীদের লম্বা লাইন। তাঁদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা করেছিল এক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা। সেই খাবার নেওয়ার জন্য লকডাউনের কোনও নিয়মই মানা হল না। সেখানে হাতে গোনা কয়েকজন সিভিক ভলান্টিয়ার ও পুলিশ থাকলেও সামাজিক দূরত্ব বিধি মানার কোনও বালাই নেই। 

আরও পড়ুন-রূপনারায়ণ নদীতে সন্দেহজনক ট্রলার ঘিরে রহস্য, বাজেয়াপ্ত বেআইনি জিনিসপত্র

হাওড়া ব্রিজ ও দ্বিতীয় হুগলি সেতুতে আবার অন্য ছবি। সেখানে পুলিশের কড়া নজরদারি রয়েছে। বিশেষ নথিপত্র দেখেই যাতায়াত করা যাচ্ছে দুই জায়গায়। কিছু জায়গায় ড্রোন দিয়েও নজরদারি চালানো হয়েছে।