বিশ্বনাথ দাস, হাওড়া-করোনা আবহের মধ্যে সংক্রমণ বৃদ্ধির আশঙ্কায় সমস্ত সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখেছে সরকার। অনলাইন বা অন্য কোনও পদ্ধতিতে চলছে পড়াশুনা। কিন্তু এই সরকারি নির্দেশিকাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে কার্যত অবৈধ ভাবে চলছিল একটি হাওড়ার একটি বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

আরও পড়ুন-করোনা আবহে শান্তি বজায় রাখার বার্তা রাজ্যে, বাজি পোড়ানো থেকে বিরত থাকার আবেদন

ঘটনাটি ঘটেছে হাওড়ার সাঁকরাইল থানা এলাকার ধুলাউড়ি নিউ রোড এলাকায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছে ক্লাস চলতে থাকা ওই বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে হানা দেয়। কোচিং সেন্টারের মালিক সহ ৫ জনকে আটক করেছে পুলিশ। অভিযোগ, একটি শ্রেণি কক্ষের মধ্যে গা ঘেঁষাঘেঁষি করে বসেছেন পড়ুয়ারা। শুধু তাই নয়, অধিকাংশ পড়ুয়াদের মুখে  মাস্ক ছিল না বলে অভিযোগ। এই অবস্থায় বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে করোনা বিধি মানা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন স্থানীয়াসিন্দারা।

আরও পড়ুন-প্রবল বিস্ফোরণে ছিন্ন ভিন্ন হয়ে গেল ঠিককর্মীর দেহ, ডিপিএলের কাজে আশঙ্কাজনক আরও ১

খবর পেয়ে ওই বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে হানা দেয়। পুলিশ গিয়েও দেখে গা ঘেঁষাঘেঁষি করে বসে আছেন পড়ুয়ারা। পুলিশ হাতে নাতে প্রমাণ পেয়ে ওই বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটিকে  বন্ধ করে দেয়। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মালিক সহ পাঁচ জনকে। ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পড়াশুনা করা ছাত্রছাত্কীদের বাড়ি পাঠানোর ব্যবস্থা করে পুলিশ।