মহিলা ও শিশুদের সুরক্ষার জন্য প্রচারাভিযানের ব্যবস্থা করেছিল ভেলোর পুলিশ। আর তার একদিন পরেই ভেলোর দুর্গের সন্নিকটে একটি পার্কে ছুরি দেখিয়ে এক তরুণীকে গণধর্ষণ করল তিন যুবক। 

 ষোড়শ শতকে তৈরি ভলোর দুর্গ রয়েছে তামিলনাড়ুর ভেলোর শহরের একেবারে প্রাণকেন্দ্রে। বহু মানুষের আনাগোনা লেগে থাকে এই অঞ্চলে। দুর্গ সংলগ্ন একটি পার্কে রাত সাড়ে নটা নাগাদ ঘটে এই ঘটনা।  তিনজন ব্যক্তি গলায় ছুরি ঠেকিয়ে ধর্ষণ করে ২৪ বছরের তরুণীকে। 

আরও পড়ুন: বিক্ষোভ সামলাতে কাশ্মীরের মত এবার গৃহবন্দি অন্ধ্রের বিরোধী নেতারা, আনা হচ্ছে বিশেষ বিল

তদন্তে নেমে পুলিশ জানিয়েছে, পার্কে প্রেমিকের সঙ্গে বসেছিল ওই তরুণী। অনেকক্ষণ ধরেই সেখানে ঘুরঘুর করছিল অভিযুক্তরা। সময় বুঝে যুগলের উপর চড়াও হয় তারা। প্রথমে তরুণীর সঙ্গীকে বেধড়ক মারধর করে সেখান থেকে সরিয়ে দেয়। তা পর ছুরি দেখিয়ে ধর্ষণ করা হয় তরুণীকে। যুগলের সঙ্গে থাকা জিনিসপত্রও কেড়ে নিয়ে পালিয়ে যায় দুষ্কৃতীরা। তরুণীর মোবাইল ফোনও ছিনতাই করা হয়। 

দেখুন ভিডিও: বিজেপির মিছিল ঘিরে ধুন্ধুমার মধ্যপ্রদেশে, নিগৃহীত মহিলা জেলাশাসক ও উপ জেলাশাসক

অচৈতন্য অবস্থায় তরুণীকে পড়ে থাকতে দেখে সন্দেহ হয় স্থানীয়দের। পুলিশ এসে তাঁকে উদ্ধার করে। বর্তমানে ভেলোর মেডিক্যাল কলেজে তাঁর চিকিৎসা চলছি। ভেলোরের একটি কাপড়ের শোরুমে কাজ করতেন তরুণী ও তাঁর প্রেমিক। 

ইতিমধ্যে নির্যাতিতার বয়ান রেকর্ড করেছে পুলিশ। তার ভিত্তিতে শক্তিনাথন ও অজিত নামের বছর উনিশের দুই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এখনও অধরা মানিকান্দন নামে বছর ৪৫-এর আরেক অভিযুক্ত। অভিযুক্ত তিন জনের বিরুদ্ধে আগে থেকেই চুরি-ছিনতাই সহ একাধিক অভিযোগ রয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে।