অযোধ্যাতে  রাম মন্দিরের নির্মাণ হোক, এর জন্য কয়েক দশক ধরে রাম ভক্তরা অপেক্ষা করে আছেন। আর এবার সেই অপেক্ষার অবসান ঘটছে চলেছে। আগামী ৫ আগস্ট অযোধ্যায় ভূমি পুজো হতে চলেছে সেই রাম মন্দিরের। দিনটি বিশেষ হতে চলেছে জব্বলপুরের বাসিন্দা উর্মিলা চতুর্বেদীর কাছেও। কারণ এদিনই ২৮ বছর ধরে করা ব্রত ভাঙতে চলেছেন ৮১ বছরের এই বৃদ্ধা।

রাম মন্দিরের সংকল্প নিয়ে ১৯৯২ সাল থেকে উপবাস করছেন উর্মিলা চতুর্বেদী। এবার  ওনার এই সংকল্প সম্পূর্ণ হতে চলেছে। বিগত ২৮ বছর ধরে উপবাস করা ঊর্মিলা এখন তাঁর বয়স ৮১ বছর। কিন্তু সংকল্পে এখনো দৃঢ় এই বৃদ্ধা। তিনি উনি জানান, উপবাসের পিছনে ওনার একটাই লক্ষ্য ছিল, আর সেটা হল অযোধ্যাতে রাম মন্দির হওয়া নিজের চোখে দেখা। এবার ওনার এই ইচ্ছে পূর্ণ হতে চলেছে। 

 

 

 ১৯৯২ সালে দেশের ইতিহাসে লেখা হয়েছিল রাম মন্দির-বাবরি মসজিদ নিয়ে বিতর্কিত অযোধ্যা পর্ব। সেই দিন থেকেই খাওয়াদাওয়া ছেড়েছিলেন জব্বলপুরের উর্মিলাদেবী। তখন তাঁর বয়স ছিল ৫৩ বছর। অখন থেকেই অন্ন মুখে নেননা।  রামের নামে পণ করেছিলেন, যতদিন না রাম মন্দির তৈরি হবে, ততদিন তিনি অন্ন-জল গ্রহণ করবেন না। এতদিন প্রায় উপবাসেই দিন কেটেছে। তাঁর খাবার বলতে ছিল সামান্য ফলমূল আর দুধ। কোনওভাবেই তাঁকে অন্য কিছু খাওয়ানো যায়নি। কথাও বলতেন না কারও সঙ্গে বিশেষ। 

আরও পড়ুন: আজ থেকে শুরু অযোধ্যার ভূমি পূজন উৎসব, শ্রীলঙ্কার মাটি ও দেশের ১৫১টি নদীর জল নিয়ে হাজির সত্তরোর্ধ দুই ভাই

জব্বলপুরের বিজয় নগর এলাকার বাসিন্দা উর্মিলা চতুর্বেদী জানান, বিতর্কিত সৌধ ভাঙার সময় দেশে হিংসা ছড়িয়ে পড়ে। দেশ রক্তাত্ত্ব হয়। হিন্দু-মুসলিম ভাইয়েরা একে অপরের রক্ত বইয়ে দেয়। এসব দেখে আমি খুব হতাশ হয়ে পড়ি। আর সেই দিনই আমি সংকল্প নিই যে, এবার মুখে অন্ন তখনই তুলব, যখন অযোধ্যাতে রাম মন্দির নির্মাণ হবে। তবে ২৮ বছর ধরে উপবাস করায় নানা সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়েছে এই বৃদ্ধাকে। উপবাসের সংকল্প নেওয়ার জন্য উনি নিজের পরিজন আর সমাজের থেকে অনেক দূর হয়ে যান। অনেকেই ওনার এই উপবাস শেষ করার জন্য চাপ দেয়। আবার অনেকেই ওনার উপবাসের জন্য মজাও করেন। তবে এই কবছর তিনি যাতে  অসুস্থ না হয়ে পড়েন, তার জন্য পরিবারের সদস্যরা দিনরাত উর্মিলাদেবীর দেখভাল করেছেন, যত্ন নিয়েছেন।

আরও পড়ুন: রাম মন্দিরের ভূমি পুজোয় এখনও আমন্ত্রণ পেলেন না আডবাণী ও যোশী, লাইম লাইটে কেবল মোদী

শুধুমাত্র কলা আর চা খেয়ে দীর্ঘ ২৭ বছর কাটানোর পর উর্মিলা চতুর্বেদী এবার নতুন উৎসাহের সাথে অযোধ্যাতে রাম মন্দির নির্মাণ সম্পূর্ণ হওয়ার প্রতিক্ষা করছেন। আপাতত আগামী ৫ আগস্ট অযোধ্যায় ভূমি পুজোর গোটা অনুষ্ঠান তিনি যাতে ভিডিও কনফারেন্সে  দেখতে পারেন তার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।