সম্প্রতি মণিপুরের মুখ্যমন্ত্রীর 'গ্রীন মণিপুর মিশন' নামক একটি কর্মসূচীর ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডার হিসাবে নির্বাচিত হলেন মণিপুরেরই ন'বছরের শিশু। তবে তার মণিপুরের অ্যাম্বাসাডার হিসাবে নির্বাচিত হওয়ার পিছনে একটি কারণ রয়েছে। যে কারণের কথা শুনলে চোখে জল চলে আসবে আপনারও।

মণিপুরের ন'বছরের শিশুকন্যা ভ্যালেন্টিনা এলাঙ্গবাম-এর একটি ভিডিও সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে, যেখানে ছোট্ট ভ্যালেন্টিনা-র কান্নার ছবি ফুটে উঠেছে। কিন্তু জানেন এই কান্নার কারণ কী। বাড়ির কাছেই নিজের হাতে দু'টি গুলমোহর গাছ পুঁতেছিল সে। কিন্তু খালের পাড় পরিষ্কার করার জন্য সাফাইকর্মীরা নির্বিচারে কেটে ফেলে সেই গাছদুটি। আর সেই দেখে চোখের জল বাধ ভাঙে ছোট্ট ভ্যালেন্টিনা-র। আর তার সেই কান্নার ভিডিও রেকর্ড করেন তার কাকা। তা মুহূর্তের মধ্য়েই ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। 

ক্লাস ফাইভের সেই ছোট্ট মেয়ের কান্নারল ভিডিও নজরে আসে মণিপুর সরকারেরও। বিষয়টির দ্বারা গভীরভাবে প্রবাহিত হন, মণিপুরের মুখ্যমন্ত্রী এন বিরেন সিং-ও। এরপরই রাজ্যের ইনফরমেশন এবং এবং পাবলিক রিলেশন দফতরের ডিরেক্টর এইচ বালাকৃষ্ণণ সিদ্ধান্ত নেন মণিরপুরের মুখ্যমন্ত্রীর উদ্যোগে 'গ্রীন মণিপুর মিশন' নামে যে ককর্মসূচী গ্রহণ করা হয়েছে, তার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসডার করা হবে ছোট্ট ভ্যালেন্টিনা এলাঙ্গবাম-কে। 

প্রসঙ্গত, মণিপুরের মুখ্যমন্ত্রীর এই গ্রীন মণিপুর মিশন-এর বিশেষ উদ্যোগ নেওয়ার কারণ হল, সারা মণিপুর জুড়ে সবুজের বিস্তার ঘটানো। গাছের জন্য যে মেয়ের প্রাণ কাঁদে সেই মেয়েই যে এমন অভিযানের শরিক হবে সেকথা তো বলাই বাহুল্য।