শাস্তি হিসাবে আট বছরের এক দলিত শিশুকে তপ্ত রোদে টাইলসের ওপর বসিয়ে রাখা হল সারা দুপুর। যার জেরে শিশুটির পশ্চাতদেশ পুড়ে গিয়েছে বলে জানা গিয়েছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাঁকে ভর্তি করা হয়েছে হাসপাতালে। 

অমানবিক এই ঘটনাটি ঘটেছে মহারাষ্ট্রের আর্ভি এলাকায়। আহত ওই দলিত শিশুটির নাম আরিয়ান খাড়সে। জানা গিয়েছে আরিয়ান মাতং সম্প্রদায়ের অন্তর্গত। আর তারা দলিত হিসাবেই গণ্য করা হয়। এই ঘটনায় অভিযোগের তির গিয়েছে ৩২ বছর বয়সী উমেশ ওরফে আমোল ধোরের দিকে। বিষয়টি জানিয়ে শিশুটির বাবা পুলিশের কাছে ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ  দায়ের করেছেন। আর এর পরই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ। 

তদন্ত করে পুলিশ জানতে পেরেছে, প্রতিদিনের মতো ঘটনার দিনও কাছের জোগোনা মাতা মন্দির প্রাঙ্গনে খেলা করছিল ছোট্ট আরিয়ান। উমেশ নামে ওই ব্যক্তির সন্দেহ হয় যে মন্দির থেকে পয়সা চুরি করেছে সে। আর এই সন্দেহ থেকে শিশুটিকে জোড় করে হাত বেঁধে তাকে দুপুর রোদে মন্দিরের তপ্ত টাইলসের ওপরে বসিয়ে রাখা হয়। এই ঘটনায় পুলিশের ব্যাখ্যা যে, প্রতিদিনই ওই মন্দির প্রাঙ্গনে খেলা করে শিশুরা। তাতে কারওরই বিশেষ আপত্তি থাকে না। কেবলমাত্র সন্দেহের বশে কেন ওই ব্যক্তি এমন কাজ করলেন তা নিয়েই তদন্তে নেমেছে পুলিশ।