রবিবার সন্ধ্যায় সূত্র জানিয়েছে, আফগানিস্তানের জালালাবাদের একটি কারাগারে হামলা চালিয়েছিল ইসলামিক স্টেট জঙ্গি গোষ্ঠী। কয়েক ঘন্টা ধরে সেই কারাগার অবরুদ্ধ রেখেছিল জঙ্গিরা। অবশেষে কারাগারটি জঙ্গিমুক্ত করা গেলে দেখা গিয়েছিল অন্তত ২৯ জন আফগান বন্দির মৃত্যু হয়েছে। এই হামলার নেতৃত্বে ছিলেন একজন ভারতীয়, আফগান গোয়েন্দা সূত্রে এমন তথ্যই জানানো হয়েছে।

তারা বলেছে, এই হামলায় ইসলামিক স্টেটের ১১ জন জঙ্গি জড়িত ছিল বলে মনে করা হচ্ছে। তাদের মধ্যে অন্তত তিনজন ভারতীয় নাগরিক বলে দাবি করেছে তারা। হামলার নেতৃত্বে ছিলেন কালুকেত্তিয়া পুরাইল ইজাস নামে এক ব্যক্তি। তিনিও ভারতীয় নাগরিক, কেরল-এর কাসারগড় জেলার বাসিন্দা বলে দাবি করছে আফগান গোয়েন্দা বিভাগ। ধারণা করা হচ্ছে। রবিবার সন্ধ্যায় কারাগারের প্রবেশ পথে একটি বিস্ফোরক ভরা ট্রাক নিয়ে সংঘর্ষ ঘটিয়েছিলেন কালুকেত্তিয়া। সেই বিস্ফোরণেই তাঁর মৃত্যু হয়েছিল এবং বাকি জঙ্গিদের কারাগারে ঢোকার পথ পরিষ্কার হয়ে গিয়েছিল।

সোমবার রাতেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ফোন করেছিলেন আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি। ইদের শুভেচ্ছা বিনিময়ের সঙ্গে সঙ্গে আঞ্চলিক নিরাপত্তা নিয়েও তাঁদের মধ্যে কথা হয় বলে জানানো হয়েছিল প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে। সেই সঙ্গে যথাযথ সময়ে খাদ্য ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় সহায়তা সরবরাহের জন্য ভারত-কে ধন্যবাদ জানিয়েছিলেন আফগান প্রেসিডেন্ট। ঘানি সেই সময় এই ভারতীয় নাগরিকদের আফগানিস্তানে জঙ্গি কার্যকলাপের প্রসঙ্গটি তুলেছিলেন কিনা, সেই বিষয়টি স্পষ্ট নয়। তবে এর আগেও বেশ কয়েকবার, আফগানিস্তান ও পাকিস্তানে আইএস জঙ্গিদের কার্যকলাপে ভারতের বিশেষ করে কেরলের যোগ পাওয়া গিয়েছে।