সম্প্রতি হৃতিক রোশন অভিনীত সুপার ৩০ ছবি নিয়ে দর্শকদের মধ্যে উন্মাদনার অন্ত নেই। বিশিষ্ট গণিতজ্ঞ আনন্দ কুমারের জীবনের ওপর গড়ে উঠেছে এই ছবির প্রেক্ষাপট। জীবনের সব প্রতিকূলতাকে জয় করে নিয়ে আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া ছেলেমেয়ের মধ্যে শিক্ষার আলো জ্বালাতেই উদ্যোগী হয়েছিলেন আনন্দ কুমার। 

এদেশে এমন অনেকেই রয়েছেন যাঁরা, যথাযথ অর্থের অভাবে পড়াশোনা চালিয়ে নিয়ে যেতে পারেন না। কিন্তু নিজের বুদ্ধি ও মেধার জোরে এরা জীবনে অনেক দূর পর্যন্ত পৌঁছে যেতে পারে। কিন্তু জীবনে সঠিক পথপ্রদর্শকের অভাবের জন্য তাঁরা জীবনে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারেন না। একথা বলারর কারণ বছর খানেক আগে এমনই এক ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশিত হয়েছিল যেখানে দেখা গিয়েছে একটি শিশু রোবোটিক মেকানিজম-এর সাহায্যে ইনজেকশন সিরিঞ্জ দিয়ে একটি যন্ত্র বানিয়েছে। কিন্তু অবাক করা বিষয় ছিল যে, সেই সময়ে ভিডিওটি দেখেছিলেন প্রায় ১৩০০ মানুষ। 

কিন্তু সম্প্রতি সুপার ৩০ আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া ছেলেমেয়ের পড়াশোনা করিয়ে জীবনের মূল স্রোতে ফিরিয়ে আনার গল্প মানুষের সামনে আসার পর সেইদিনের সেই ভিডিওটি আজ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল। বর্তমানে ভিডিওটি প্রায় ৬ লক্ষ মানুষ শেয়ার করেছেন এবং প্রায় ৯১ মিলিয়ান মানুষ ভিডিওটি দেখেছেন। তবে মনে করা হচ্ছে, ভাইরাল হওয়া এই ভিডিওটির সঙ্গে আফগানিস্তান বা সিরিয়ার রিফিউজি সেন্টারের যোগ রয়েছে। ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন নীচের ক্লিঙ্কে।

 

তবে ঘটনা যাই হোক না কেন, হৃতিক রোশন অভিনীত এই ছবি যে মানুষের মধ্যে আলোড়ন তৈরি  করেছে সেকথা বলাই যায়। নেটিজেনদের একাংশের মত, প্রতিভাকে কখনওই চেপে রাখা যায় না। তা একদিন না একদিন সকলের সামনে ঠিকই প্রকাশ পাবে।