অযোধ্যা মামলার ঐতিহাসিক রায় দানের পর, মঙ্গলবার ভক্তদের প্রথম বৃহত্তম জমায়েত। মঙ্গলবার কার্তিক পূর্নিমা উপলক্ষ্যে সরযূ নদীতে পূণ্যস্নানের জন্য লক্ষাধিক ভক্ত ভিড় জমিয়েছেন। জানা গিয়েছে, পূণ্যার্থীরা সরযূ নদীর রাম কি পইদি এবং নয়া ঘাটে ভীড় করেছেন। এই পূর্ণিমা উপলক্ষ্যে সরযূ নদীতে প্রায় পাঁচ লক্ষ পূণ্যার্থীর গঙ্গাস্নানে অংশগ্রহণ করবেন।

আরও পড়ুন- এলওসির কাছে কেন সেনা বাড়াচ্ছে পাকিস্তান, নতুন বিপদের আশঙ্কার সীমান্তবাসীরা

অযোধ্যা জেলা ম্যাজিস্ট্রেট অনুজ কুমার ঝা জানিয়েছেন, 'রামের এই জন্মভূমিতে সাধারণ দিনে প্রায় ৮ হাজার দর্শনার্থী দর্শনের জন্য আসেন। উৎসবের দিনে সেই সংখ্যা ৫০ হাজার অতিক্রম করে। আর এবার এই ঐতিহাসিক রায় দানের পর থেকে এই সংখ্যা ক্রমশ বৃদ্ধি পাবে এই বিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই। তবে অযোধ্যা মামলার রায়ের পর থেকে এলাকা ঘিরে পরিস্থিতি একেবারে স্বাভাবিক রয়েছে।' তিনি আরও জানিয়েছেন, দর্শনার্থীদের সুরক্ষাদের কথা মাথায় রেখে প্রশাসন সব সময় তৎপর রয়েছে। নেওয়া হয়েছে সতর্কতামূলক পদক্ষেপও। দর্শনার্থীরা যাতে নিরাপদে দর্শণ করতে পারেন সেদিকেও নজর রাখা হয়েছে।

আরও পড়ুন- হাতিদের জন্য সৌধ, দৃষ্টান্ত স্থাপন করল কৃষ্ণের লীলাক্ষেত্র

অযোধ্যাতে আগত দর্শনার্থীদের জন্য রয়েছে প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্র, পানীয়জল এবং শৌচালয়ের ব্যবস্থাও। প্রায় ১৮টি ভিন্ন ভিন্ন জায়গায় করা হয়েছে এই প্রাথমিক ব্যবস্থাগুলি। সেই সঙ্গে রয়েছে এ্যাম্বুলেন্স-সহ ২০ টি মেডিক্যাল ক্যাম্পও। অযোধ্যা ডেপুটি ডিরেক্টর মুরলিধর সিং জানিয়েছেন, হিন্দু পঞ্জিকা অনুযায়ী সোমবার শুরু হচ্ছে পূর্ণিমা তাই সোমবার বিকেল ৪টা ৪০ মিনিট থেকে শুরু হবে এই পূণ্যস্নান আর চলবে মঙ্গলবার সন্ধ্যা অবধি।