গত সোমবার এনআরএস মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এক রোগীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে কার্যত রণক্ষেত্রের চেহারা নিয়েছিল। অভিযোগ, সেখানেই কিছু আক্রমণকারীর ছোড়া ইঁটের ঘায়ে গুরুতর আহত হন পরিবহ মুখোপাধ্যায় নামে এক জুনিয়র চিকিৎসক। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন আঘাতে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে তাঁর করোটি। এরপরই একজোট হয়ে প্রতিবাদে সরব হন চিকিৎসকরা। আর এই প্রতিবাদের ঢেউ আছড়ে পড়েছে গোটা ভারতবর্ষে। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে থাকা চিকিৎসকরা সামিল হন এই আন্দোলনে। 

চিকিৎসকদের সর্বোচ্চ সংগঠন-এর তরফ থেকে জানানো হয়েছিল, আপৎকালীন ও রুটিন পরিষেবা চালু থাকলেও বন্ধ থাকবে আউটডোর-সহ অন্যান্য পরিষেবা। সেইসঙ্গে দেশজুড়ে প্রতিবাদ কর্মসূচীরও ডাক দেওয়া হয়েছিল।

আর এবার এই আন্দোলনের স্বার্থেই সারা দেশ জুড়ে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছিল ইন্ডিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন। আর সেই ধর্মঘটে সাড়া দিল গোটা দেশ। এক ঝলকে দেখে নিন দেশের কোথায় কোথায় এই ধর্মঘটের কেমন প্রভাব পড়ল। 

দিল্লির অ্যাসোসিয়েশন অফ অল ইন্ডিয়া ইন্সটিটিউট অব মেডিকেল সায়েন্স-এর চিকিৎসকরা নেমেছেন প্রতিবাদ আন্দোলনে। তাঁদের প্ল্যাকার্ডে চিকিৎসকদের প্রতি নির্যাতনের ছাপ স্পষ্ট।   

ভুবনেশ্বরের চিকিৎসকরা অল ইন্ডিয়া ইনসটিটিউট অব মেডিকেল সায়েন্সেস-এ এদিন পথে নেমেছিলেন প্রতিবাদে। তাঁদের পরনে ছিল হেলমেট। এবং তাঁদের প্ল্যাকার্ডে লেখা ছিল যে, এইরকমভাবে আর কেউ আক্রান্ত হতে চান না।

ঝাড়খন্ডের চিত্রটাও ছিল খানিকটা একইরকম। ঝাড়খন্ডের রাজেন্দ্র ইন্সটিটিউট অব মেডিকেল সায়েন্স-এর ছাত্র-ছাত্রীরাও এদিন ঐক্যবদ্ধভাবে ধর্মঘটে সামিল হয়েছিলেন। 

লখনউ-এও ধরা পড়েছে ধর্মঘটের সেই ছবি যেখানে কিং জর্জেস মেডিকেল ইউনিভার্সিটির চিকিৎসকরা সমবেতভাবে পালন করছেন ধর্মঘট।

একই ছবি ধরা পড়েছে বেঙ্গালরুর ভিক্টোরিয়া হাসপাতালে।