দলত্যাগে হিড়িকে জেরবার জাতীয় কংগ্রেস। এবার দল ছাঁড়লেন খোদ রাহুল গান্ধীর গড় বলে পরিচিত আমেথির রাজপরিবারের এক সদস্য! জানা গিয়েছে রাজ্যসভার সাংসদ তথা আমেথি রাজ পরিবারের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য সঞ্জয় সিং মঙ্গলবার তাঁর কংগ্রেস ত্যাগের সিদ্ধান্ত সাংবাদিকদের জানিয়েছেন। তিনি স্পষ্ট ভাবে জানিয়ে দেন যে  বুধবারই তিনি বিজেপিতে যোগদান করবেন। 

সঞ্জয় সিং অসম থেকে কংগ্রেসের টিকিটে নির্বাচিত রাজ্যসভার সদস্য ছিলেন। তিনি তাঁর ইস্তফাপত্র উপরাষ্ট্রপতি তথা রাজ্যসভার অধ্যক্ষ বেঙ্কাইয়া নাইডুর কাছে জমা দেন। জানা গিয়েছে ইতিমধ্যেই তাঁর ইস্তফাপত্র গ্রহণ করেছেন বেঙ্কাইয়া নাইডু। 

ইস্তফাপত্র জমা দিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি জানান কংগ্রেসের নেতৃত্বের সঙ্কটের জন্যই  দল ছেড়েছেন। তিনি দাবি করেন কংগ্রেস এখনও তাদের সুখের দিনগুলির ভাবনায় মশগুল। তারা জানেও না যে আগামী দিনে ঘুরে দাঁড়ানোর লড়াই কীভাবে লড়তে হবে। তিনি আরও দাবি করেন যে এই মুহূর্তে গোটা দেশ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে রয়েছে, এবং সেই কারণে তিনিও মানুষের ভাবাবেগকে সম্মান জানিয়ে নরেন্দ্র মোদীর হাত শক্ত করবেন। তিনি আরও জানান যে রাজ্যসভার সাংসদপদ থেকেই শুধু নয়, কংগ্রেসের সদস্যপদ থেকেও তিনি ইতিমধ্যেই সরে দাঁড়িয়েছেন।  

সঞ্জয় সিং-এর আগেও বিজেপির সদস্য ছিলেন। নব্বই-এর দশকে বিজেপির টিকিটে তিনি একবার লোকসভা ভোটে জয়লাভও করেন। পরবর্তীতে কংগ্রেসে যোগদান করলেও নিজের রাজনৈতিক অধ্যায়ের পরবর্তী ধাপের জন্য আরও একবার নিজের পুরনো দলকেই বেছে নিলেন তিনি। বিজেপি সূত্রে দাবি আমেথি অঞ্চলে ভালো প্রভাব রয়েছে সঞ্জয় সিং-এর। আগামী দিনে তাঁর প্রভাবকে কাজে লাগাতে বদ্ধপরিকর বিজেপি। 
২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনে  কংগ্রেসের টিকিটে উত্তর প্রদেশের সুলতানপুর কেন্দ্র থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে তৃতীয় স্থান লাভ করেন সঞ্জয় সিং। সুলতানপুর থেকে বিপুল ভোটে জয়লাভ করেন বিজেপি নেত্রী মানেকা গান্ধী।