বাংলার কৃষকদের ৪,৩২০ কোটি টাকা লুন্ঠন করছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকার। সোমবার (২১ ডিসেম্বর), এমনই গুরুতর অভিযোগ করলেন বিজেপির আইটি সেলের সর্বভারতীয় প্রধান, তথা পশ্চিমবঙ্গের দায়িত্বপ্রাপ্ত পর্যবেক্ষক অমিত মালব্য। এদিন কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমর-কে চিঠি দিয়ে, প্রধানমন্ত্রী কিষাণ সম্মান নিধি প্রকল্পের আওতায় প্রাপ্য অর্থ হস্তান্তরের জন্য অনুরোধ জানান পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তারই প্রেক্ষিতে টুইট করে এই অভিযোগ করেছেন অমিত মালব্য।  

এদিন অমিত মালব্য অভিযোগ করেন, পশ্চিমবঙ্গ হল দেশের একমাত্র রাজ্য, যে রাজ্যের সরকার প্রধানমন্ত্রী কিষাণ সম্মান নিধি প্রকল্পের সুবিধা কতজন কৃষক পাচ্ছেন, তার তালিকা কেন্দ্রীয় সরকারকে জানাতে অস্বীকার করেছে। বিজেপির আইটি সেলের প্রধান জানিয়েছেন, বিভিন্ন সূত্রের অনুমান অনুসারে পশ্চিমবঙ্গে এই কেন্দ্রীয় সরকারি প্রকল্পের সুবিধা পান প্রায় ৭২ লক্ষ কৃষক। তাঁর অভিযোগ, রাজ্য সরকার সেই কৃষকদের তালিকা না দিলেও অ্যাকাউন্টে অর্থ চাইছে যাতে করে, তৃণমূল নেতারা তাদের 'কাট মানি' পেতে পারেন।

এর আগে বারবারই বিভিন্ন সভায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, কেন্দ্র প্রধানমন্ত্রী কিষাণ সম্মান নিধি প্রকল্প চালুর আগেই তিনি রাজ্যে কৃষক বন্ধু প্রকল্প চালু করেছেন। কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রীকে পাঠানো চিঠিটিতেও তিনি তা জানিয়েছেন। সেইসঙ্গে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় প্রকল্পটির আওতায় পাঠানো তহবিলের মাধ্যমে কারা লাভবান হচ্ছেন, তাদের নামের তালিকাও পাঠানো হবে। এর আগে অবশ্য বহুবার তিনি নিজে এবং তাঁর দলের নেতা-মন্ত্রীরা দাবি করেছেন, কেন্দ্রের প্রকল্পের থেকে বাংলার প্রকল্পটি অনেক ভাল। কারণ তাতে কৃষকরা একর পিছু পাঁচ হাজার টাকা করে পান। পিএম কিষাণ প্রকল্পে একর পিছু ১২১৪ টাকা করে দেওয়া হয়, তাও আবার অন্তত দু'হেক্টর জমি থাকলে তবেই।